পাতা:পাখীর কথা - সত্যচরণ লাহা.pdf/২৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

২৫৬

পাখীর কথা

ulinæ family বলিয়া পরিচিত। এই পরিবারকে মোটামুটি দুইটি বিশিষ্ট শ্রেণীতে বিভক্ত করা হয়,—Cuculinæ এবং phœnicophainæ। পরভৃতের সমস্ত লক্ষণগুলি cuculinæ শ্রেণীতে বিশেষভাবে প্রকট; পাপিয়া, বউ-কথা-কও প্রভৃতি বাঙ্গালার পরিচিত পাখীগুলি এই শ্রেণীভুক্ত। আমাদের কোকিল (বা Eudynamis honorata) কিন্তু Phœnicophainæ শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত। কোকিল ব্যতীত এই শ্রেণীর আর কোনও পাখীতে পরভৃতলক্ষণ আদৌ দেখা যায় না, কারণ সকলেই ইহারা নিজ নিজ নীড় রচনা করিয়া তথায় অপর পক্ষীর ন্যায় ডিম্বপ্রসব ও শাবক প্রতিপালনাদি ক্রিয়া সম্পাদন করিয়া থাকে। Cuculinæ পাখীরা সর্ব্বতোভাবে পরনির্ভর, অন্যভৃত। শুধু যে কাকের বাসায় তাহাদের শাবক প্রসূত ও পালিত হয়, তাহা নহে; অন্য পক্ষীদিগের নীড়েও তাহাদের শাবক আজন্ম পরিপুষ্ট হইয়া থাকে। বাস্তবিক ইহারা বায়স ব্যতীত অন্য বিহঙ্গ কর্ত্তৃক সাধারণতঃ এমন ভাবে প্রতিপালিত হয় যে বিশেষভাবে এই শ্রেণীর পাখীগুলির কথা আলোচনা করিবার সময় “অন্যৈঃ খলু পোষয়ন্তি” উক্তির সার্থকতা সম্যক উপলব্ধি করিতে পারা যায়। এই “অন্যৈঃ” এর মধ্যে যে অতি ক্ষুদ্র টুনটুনি পাখী (Orthotomus sutorius) থাকিবে ইহা কম বিস্ময়ের কথা নহে; কারণ টুনটুনি বড়জোর দৈর্ঘ্যে দেড় কিম্বা দুই ইঞ্চির অধিক হইবে না, তাহার ডিম্বও তদনুপাতে অতিশয় ক্ষুদ্র; আর cuculinæ শ্রেণীর পাখীর সাধারণতঃ এক ফুট দেড় ফুট দীর্ঘ হইয়া থাকে, এবং তাহাদের অণ্ড টুনটুনি পাখীর অণ্ড অপেক্ষা অনেক বড় এবং সাধারণতঃ বর্ণ, আকার ও পরিধি এত বিসদৃশ যে কেমন করিয়া ঐ ছোট পাখীটি নিজের ছোট ডিমগুলির মাঝে ঐ বৃহৎ ডিমগুলির উপর বসিয়া ফুটাইয়া তোলে, ইহা না দেখিলে পাঠকের কৌতূহল নিবৃত্তি হওয়া অসম্ভব। ছাতারে পাখীর বাসায় পাপিয়ার জন্মকাহিনীও এইরূপ রহস্যময়।