পাতা:প্রবাসী (ঊনত্রিংশ ভাগ, দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৮৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বদেশসেবায় রাজ রাধাকান্ত দেব শ্ৰীহরিপদ গুহ উনবিংশ শতাব্দীর প্রথম ভাগে যে-সমস্ত যশস্বী বাঙালীর পরিচয় পাওয়া যায়, স্বৰ্গীয় রাজা রাধাকান্ত দেব র্তাহাদের অন্যতম। র্তাহার জন্ম ১৭৮৩ খৃষ্টাব্দের ১০ই মার্চ । তাহার পিতা গোপীমোহন দেব ছিলেন কলিকাতার c*ांछांयांछांद्र ब्रांछश्रृंद्रियां८ब्रव्र थङिछेखि भशब्रांछ। নবকৃষ্ণের পোষ্যপুত্র। ধনীর দুলাল হইয়াও রাধাকান্ত সৰ্ব্বপ্রকার প্রলোভন হইতে আপনাকে দূরে রাপিতে সমর্থ হইয়াছিলেন , তাহার বেশীর ভাগ সময় জ্ঞানামুশীলনেই অতিবাহিত হইত। সংস্কৃত, আরবী এবং ফাসী ভাষায় তিনি স্থপণ্ডিত ছিলেন, ইংরাজী ভাষায়ও তাহার বিলক্ষণ দখলের পরিচয় পাওয়া যায় । বলা বাহুল্য, তখনকার দিনে ইংরেজী অভিজ্ঞ বাঙালীর ংখ্যা মুষ্টিমেয় ছিল। দেশের বহু জনহিতকর কার্য্যের সহিত রাধাকাস্তের নাম জড়িত রহিয়াছে। শিক্ষাবিস্তার-কার্য্যে এবং স্বদেশবাসীর জ্ঞান-বিকাশের সহায়তাকল্পে তিনি অক্লান্তকৰ্ম্ম৷ ছিলেন । কলিকাতায় প্রতিষ্ঠিত তৎকালীন অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাফল্যের মূলে র্তাহারই যত্নচেষ্টার পরিচয় পাওয়া যায়। স্ত্রীশিক্ষা-বিষয়েও তিনি একজন পরম উৎসাহদাতা ছিলেন । তাঁহারই চেষ্টায় স্কুল সোসাইটির হেড, পণ্ডিত গৌরমোহন বিদ্যালঙ্কার কর্তৃক স্ত্রীশিক্ষাবিধায়ক’ পুস্তিক রচিত ও মুদ্রিত হইয়াছিল। ইহাতে শুধু স্ত্রীশিক্ষার প্রয়োজনীয়তার কথাই নাই,--শ্ৰীশিক্ষা যে শান্থবিরুদ্ধ নহে তাহাও দেখান হইয়াছে। গৃহ-কারবন্দিনী হিন্দু ললনাকুলকে অজ্ঞানতার মধ্যে বৰ্ধিত হইতে দেখিয়া রাধাকান্ত সত্যই ব্যথিত হইতেন। বিরাটু সংস্কৃত অভিধান ‘শব্দকল্পন্দ্রম’ প্রণয়ন ও প্রচার র্তাহার জীবনের একটি প্রধান কীৰ্ত্তি। ইউরোপের পণ্ডিত্তমণ্ডলী এই গ্রন্থের যথেষ্ট গুণগান করিয়াছিলেন ; এবং • মহারাণী ভিক্টোরিয়৷ ১৮৫৯, জুলাই মাসে তাহাকে a --سا-Se R একখানি পদক দ্বারা সম্মানিত করেন। এই স্ববৃহৎ গ্রন্থ রচনায় তিনি অকাতরে অর্থ ব্যয় ত করিয়াছিলেনই, পরন্তু দীর্ঘ ৪০ বৎসর কাল এই কার্ধ্যে বায়িত হুইয়াছিল। ১৮২২ খৃষ্টাকে এক্ট বিরাট গ্রন্থের প্রথম থও, ১৮৫২ খৃষ্টাব্দে সপ্তম বা শেষ গুও, এবং ১৮৫৮ খৃষ্টাবো পরিশিষ্ট’ রূপে অপর একখণ্ড প্রকাশিত হয় । স্কুল বুক সোসাইটির জন্য তিনি বহু পুস্তকের সঙ্কলন, সংশোধন ও অনুবাদ করিয়াছিলেন। ১৮২১ খৃষ্ট্রান্ধে তিনি লিণ্ডলে মারে-অগুস্থত পদ্ধতিতে একখানি বাংলা বানান-পুস্তক, এবং ১৮২৭ খৃষ্টাব্দে উহার একখানি সংক্ষিপ্তসার প্রকাশ করিয়াছিলেন । ১৮২৯ সনে তিনি ইংরেজী হইতে কতকগুলি গল্প-সমষ্টি নীতি কথা