পাতা:প্রবাসী (সপ্তদশ ভাগ, প্রথম খণ্ড).pdf/৯৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৪৮ প্ৰবাসী—জ্যৈষ্ঠ, ১৩২৪ [ ১৭ণ ভাগ, ১ম খণ্ড থাকিলেও, তিনি এবারে গড়ে নাই। গড়িবার একটা বড় মা বিচিত্ৰ প্ৰসঙ্গ মাত্ৰ দিয়াছেন এই স্নান দেওয়ার কাজটিকে ছোই করিয়া দেখিলেও, আক্ষেপে বিবর এই দে, সকল ৰাৱালী মীৰাই - সমালোচনা পৰ্যন্ত দিয়া কান্ত হন, তাদের গাঠী-এতিয়া লীলা স্নায় দেখা বা। রামমোহন রায়ের যে অত বড় মনীষা ছিল—তুলনা পুয়া: পৰ্যন্ত ভারতবৰ্ষীয় ধৰ্ম্মতত্ব ও সাধনার ঐতিহাসি মূলক বশত, সনাতক. রাউত, অৰ্থনীতি, প্ৰকৃতি সকল বিষয়েই তিৰবিলম্বন্ধে ঠাৱ কতকগুলি ction বা থিওরি সশ্বতে তৱ সেই মনীষা দে অাধুনিক জগতের জন্তু নুতন অনেক ভাবিয়ানি অধ্যাপক মূল বিপিনবিহারী গুপ্ত মহাশয়ের সঙ্গে কথা-প্রসঙ্গে ও নুতন অনেক দিয়াছিল—তাহা ছোটখাট ছাৰিটা ৰঙ্গানুবাদ ভালোচনা কৰিছিলেন বিপিনবাব বিচিত্ৰ সঙ্গে সেই টিপুনিহ মধ্যে এখানে সেখানে দুই চাৰিটা পংক্সির মধ্যে বিক্ষিক স্বাহে আলোচনা চলি যথাযথভাবে লিপিবদ্ধ করিয়া ও প্ৰকাশিত করিয়া ছড়াইয়া অাছে মাত্ৰ হী, সেই জানে, সেসকল উক্তির জি সন্দেহ নাই মধে। কি মুক্ত। লুকাইয়া আছে । তারপর, বাংলায় তত্বজ্ঞান সম্বন্ধে কা সাহিত্য হিসাবে এই পুখানি একখানি অল হাছে যে তারিনে দাৰ্শনিক লেখক নুতন কোন চিন্তা উপস্থিত কঠিা প্ৰকৃতি' জিজ্ঞাসা" কিংবা কৰ্ম্মকথা” । তােহাৱাও দুই চাৰিটা প্ৰবন্ধ লিপিয়াই চুটি লইয়াছেন- এখাৰে পণ্ডিতা ও নাখাৱ দেী পরিচয় পাইলেণ্ড, তার অাঙা ওখানে একটু ইঙ্গিত করিয়াই নিশ্চিন্তু হইয়াছেন । কোথা সম্পূৰ্ণ ছাপ ই তিন শ্বের একটি আগেও পড়ে নাই। প্ৰকৃতি বুনিক কালের শঙ্কর, রামাজমঞ্চাচাষ, কোথায় কাপ বা ষ্টি দৈনিক প্ৰবন্ধের সমষ্টি : জিজ্ঞাসা—দাৰ্শনিক প্ৰৰথে সমষ্টি বা বাতলে—এমন কি হাট স্পেনসারের মত দশন ষ্টি : এক কি সামাজিক প্ৰবণের সমষ্টি । ঐ তিন পুস্তকে, বিমান, দৰ্শন কাব্য ও প্যাস-নবন্যাস সৃষ্টি বাদে আর সকল ক্ষেত্ৰেই বাঙালীয় যায় সম্বন্ধে লেখক অত পাণ্ডিত্য প্ৰকাশ কৱিা নাম মস্তিরে শারি নানা সম্ভাবনার আভাস, কখনো কখনো পাওয়া বিচি মালদসলা উপস্থিত কহিয়াছেন ; সেই সকল উপকরণ লইয়া ৰং, কিয় সে সকল সস্তাবনার পরে বাঙালীর আর ভাবনা সাই বাকি কালের হিন্দুসভ্যতায় ধাবহারোপযোগী ইমারত থার মে মাতাসের পরে আর বিকাশ দেপা যায় না দিয়াছেন :-কিও ই মাত গানে রামে বা অসুস্থ দেহের দোহাই না দিলে, তাহার এ সাই বিশ্লেষণের শক্তি নয়, সৃজনীশক্তিও যে তার আছে অঙ্গ সম্পানের ক্ল হাকে অনুরোধ করা যাইতে পাতি । ঐসকল পুস্তকেসে পরিচয় পাওয়া যায় নাই লা নাই, সেই দেবতার প্রস্তাব কাৰা ও উ পন্যাসের উপরই অধিক বিচিত্রসহ দচ লেখকের মুখের কথাবার্তার প্রতিবেদন কি দৰ্শন , ইতিহাস মা ! এই বইটিতে তাম লুর নীশক্তি আতাস মাহে পর র করি চাইতে পারে - চিত্তক্ষেত্রের মন্ত্ৰ বড় প্রসার - সাহিতা, শিল্প, দৰ্শন লিঙ্কান, অঙ্গসেল যত সম্পূৰ্ণ হয়, ততই তাহাদেৱ প্ৰাণ সংগ্ৰামীণ হয় সব লিয়ে এ তত্ত্ব, সমাজত এক কথা, একটা সাতার এ:ে দrি যে, যেখানে যেটুকু শ্যে বেশ করিার মত ঠাৱ মনের বিশালতা ইহাই এই দে ‘নিস যতটুকু ই পাওয়া ধা, তাহাই পরম বা বলিয়া আম সাধারণ বাঙালী লেখকেরা জীবনের কতটুকু মাথা করি:ে , সাদা অংশের উপর দৃষ্টকে নিবন্ধ করেন, স্কার ইনি কতখানি ক্ষে চান্‌ মামা হিলে জা জীবনে পর মনটাকে নাড়াচাড়া করিতেছেন, তা না করিলে কেবারেই চলে হারামের শক্তি যে কত বড় তা | | যাইহোক, ম : এই বইটিতে এত প্রসঙ্গের অবতা মনের বিশালতা ত সৃজনীশক্তি হয় না। ক ন এবং বেদ ও পুরাণাদি হতে এ ঐতিহাসিক তত্ত্বও তা সংহ খতিয়া আনিল, তাহাকে সুবিহিত ও সম্বন্ধ ভাবে সাজাই থা সাধন কবি হেন দে, সে সকলো মাপাখা লইয়া বিচার দিতে পারিখে, তলে ত মানসিক প্ৰসারের দাৰ্থক কারণ, এই গেলে বেদাদি শস্য ল করি ; মা দরকার পাঠকদের কা আশা কল্পনা গাতেই কল করা - যে গামি সে সব কিছুই জানি না, কি তে সেই গাদেৱ । কিন্তু ব্যাসক ষ্টি মত আবার গাঢ় সভ্যতার ইতিহাস-সৃষ্টি বিধে কাজের হয় না ল স্বামী নয় ৱণ ভাবে বি ন (Antarpology) বা এই কারণে এখনকার পণ্ডিতেরা শুদাই করেন না ইতিহাস Kelson) বা তুলনামুলক ধৰ্ম্ম (Con সত্যতা যাচাই করিতে হইবে ; তারপর সম্বন্ধ নিী { অথবা সধা-বিজ্ঞান (Socology) ৰি বিষয়ে য় তে হইবে । সেঙ্গ বৈজ্ঞানিক যুক্তিপ্ৰণালী চাই মালোচনা মেনুখানি পথ আছে কবলমায় সেইদিক ইন্ধে ইলে চারিটি কথা লিতে পাৰি। বিশিষ্ট ভাবে, ভারতবৰ্ষীয় ধান্ত য়েই সেই স্নান পাকা হয় তখন তার গড় ঢ় থাকে না। বা সাধন বিষয়ে তিনি যে সকল মতামত প্ৰকাশ কারিয়াছেন ও পাহৰি হতে প্ৰমাণ প্ৰযোগ সংগ্ৰহ কলিয়ানে, কামি সে সম্বন্ধে কে প্ৰিণালীর দ্বারা সেই কল্পনাকে চালিত ও সংশোধিত কথা বশিতে অ্যদেী অধিকারী হি । তবে দুটা-একটা প্ৰয় জিজ্য ঋষিার মত বিজ্ঞান ও যথেষ্ট পরিমাণে অাছে সুতরাং এই সব কবির বা সন্দেহ প্ৰকাশ করিবার অধিকার সকলেরই পঢ়িলিনের জনীশক্তি ফুটিয়াছে । তিনি যে ক গড়িতে আমারও আছে অতএব সেই ভাবেই অামি এ ও লই পায়ে তাহা বুধিতে দিছে । ৰাণী ন লোক এই বাঢ় গঠনী করি, সমালোচনা করি না পরে ধীয়াং চিত্ৰ বেদন শি চিারস বী হেিত পাবেন ? পাইল, ২ সংখ্যা বিিচত্ৰ প্ৰসাদ = এই প্ৰৱে আলোচনায় সূত্ৰপাত সেই প্ৰণাম লঙ্গে বৌদ্ধ সরাসধৰ্ম্ম, সন্নাসীসল প্ৰকৃতির উৎপত্তি ও গঠনের কথা পাৱ মাংস খাইলেও সেই একই ফল হয় বিদ্যাতি ভাবে লিতে গিয়া ব্লায়েকবা অবশেৰে বণিতেছেন ; আসিয়া বলির পশু accinctহইল এয়া দে পশুমাসে গাইলেই আৰাৱে সভাসধৰ্ম্ম মিসরে ও প্যালেসটাইনের ভিতর দিয়া দেবতা সহিত এক হওয়া যায় এই ভাৰ আসিল এই জ য় রাপে প্ৰবেশ লাভ কৰিয়াছিল, ইহা না মানিলে বোলহ পাৰ্থ বৈদিক ধরে সঙ্গে গান Bellans গণে সান্ত থাকিঙ্গে অমনি এখান হইতে সেখানে এ খ্ৰীষ্টটের জয়ের কিছু পুৰ্ব্বে পালেষ্টাইনে এসীনি নামক কৰি কেম ডাক্তার হরেন্দ্ৰনাথ শীল মহালয়ের যে আলোচনা জীৱ ফল ৪ মিসরে থেরাপিট সংগ্রাসী দল আদিত হইয়া প্রসঙ্গে উদ্ধত হইয়াছে, তাহাতে তত্বের এই সিদ্ধান্ত পরিষ্কায় ধ্যা ছিলকয়েকটি দূতন doctrine আমাদের দেশ হইতে রোপে ইয়াছে ভাহি হইল, মনে করা দাইতে পাৱে দ্বিতীয় প্রসঙ্গে, ব্লামেল বাৰু আলোচনা উথাপন করিয়াছেন যে, শান বা পাপপুধের কল্পনা ধৃষ্টানধৰ্ম্মে যেমন আছে তেমনি ীে দহে দেখুন— Doctrine of Reg.enation এটি খাটি ও অাছে ; কিন্তু বৈদিত সাহিত্যে ইচ্ছা কোথাও দেখা যায় ৷ বৈদিকতৰ ; ক্ষে দীক্ষা হইলেই নকীবন লাভ হইত বন্ধের তিনি দেখাইছেন যে, দেদের দেবতা, অঙ্গর বা জল, যা দি দেবতা ভীষণ হইতে নে, কি হার কেহই শয়তানের মত পাপে দশ দেখুন--Doctrine of A tonemen বেদে হারপূৰ্ণ প্ৰবৰ্ত্তিত করেন না“তথশাস্ত্ৰও শয়তন প্ৰবেশ লাভ কত পণিতি দেখিতে পাওয়া বায়ু নিধি বা পাবেন নাই ।” ত তিনি-মনে করেন যে, া ৰনা দেখানে । দি লে পশুকে যজ্ঞে অৰ্পণ করা হইত (vºcare, gic এর মত অনুষ্ঠানাদি দেখা যায় সেখানে সেই সকল অনুষ্ঠামো রের বাক্ষণের অাখ্যায়িকার মতে প মাংসের পরিবর্তে পুরো অধিকাংশই দেশী ও বিদেশী অনাৰ্য্য, সংগ্ৰহ হইতে আসিয়াছে বাৰা ইয়ালি এই সকল অনুদান প্ৰবৰ্ত্তনের জন্তু বৌদ্ধগণ অমোটা হাঁী: পুরোশ (অৰ্থাৎ চাচা কিম্ব যবের দিক । আতি দেওয়া তিনি বলেন, “অথৰ্ব্ব বেদেই হোক, জাৱ জাদিক ছিণেই ক্ষে, ইত ; পরে সোমসের শেসের সহিত সেই মাংসের এবং কন Tempter অৰ্থাৎ পাপ-প্ৰশোফের পুল, স্বালে অবশেষ সেবন কৰিলে ধমানের দেবত্ব লাভ হইতে আবিষ্ণৱ করা চলিবে ন কিন্তু প্ৰাচীন বৈদিক সাহিতে পৰ সম্বন্ধে গুটিকতক প্রশ্ন কর ইতে এবং আধুনিক ব্ৰাহ্মণী সাহিত্যের পুন্দৰী যুগে যে য ৱতবৰ্ষ হইতেই মিসৱ পালেtাইনে গিয়াকে এবং সেখান হইতে গঠত হয়। উঠল, তাহাত শয়তানকে প্রতিষ্ঠিত দেখিতে পাই। ইউরোপে থিয়াহে, ইহা না মানিয়া “পায় না কেন ? Tempter ীি সয়াসী সমারে মতামতের সঙ্গে ধৰে হে লেশ লাভ কৰিলেন সেখানে তিনি পাপ-প্ৰৱৰ্ত্তক ও শাস্কি-বিতা যোগ বা স ব নাই, এক থনকার অনেক পতিই মূৰ্ত্তিতে দেখা দেন না ; সেখানে তিনি হ্ৰদ্ধার মানসপুত্ৰ কৰ্ণাণে পায় রিজা দেখাইয়াহেন । সমাসী স শাদার চীনে, দি বাবিলন বিরাজ করিতেছেন বেশ বা যায় যে, এই শতামি জাৰ কৃতি স্থানে বহুপুৰু সুণ হয়ে নানা যাকারে লেং চীনে ব্ৰক্ষণা ধরে তে সঙ্গে খাপ খাই না বৌদ্ধ ধরে বহুদূপে সরাসী পান দরিয়াছিলেন মি গানৰ্ম্মে ও বৌদ্ধধৰ্ম্মে কৌলিক বুগের কৌলিক সমাজ বা Prun }, গাধ তাহার অতিই থাকিল নাইহা কারণ সাজ Shamanism বা অভিাৱাদির ধাদি আবিষ্কারের ও নানা ধাতু করিতে গিয়া কদিকে ষ্টান ও বৌদ্ধধৰ্ম্মে পরস্পস দায় একটা বড় স্থান ছিল এ কথা যদি মানি, তবে এ কটা বিশিষ্ট বে সাশা এবং খৃষ্ঠান ও বৌদ্ধধরে উলয়ের ব্ৰাহ্মাণে । হিত পার্থক কোন ক বিষয়ে- তাহা স্নামে বা অভি ইহা স্বীকার কাতেই হইবে কনিৰে গানৰ্ম্মের মধ্যে original r-এর ভাই রার জন্ম গুগতের সঙ্গে ঈশ্বরে দ্বৈত জীবের সঙ্গে অহা নানা কণে ৩ : বেশি সারা পাইবা বাণ বা দশন সেই হেডকে চাইৰাছ কি, এবা গিলে কে কাতা ক৷ কি হ হিসা গুচিবার না চাই দেখিার দরকার থাকে কি যদি দেখিান যে া ন ও ঈশ্বর - হুই প্ৰতিদ্বন্দী পক্ষের দ্বন্ত জিনিসটা ভারতবরেই বিশে । কথাও না .--বে মুল বিরাতি সকল রপ্তানি হুইলাছে সলিলে ক্ষতি রামে প্ৰবা বলেন, “‘বাবহারিক জগতে যে মায়া হইতে স্বাকী Doctrine of Regeneration, 1). e of A one উৎপতি, সেই ময়ে অৰ্থাৎ বিশ্বজননী শক্তি ওহানশপিণী : ইম ºt পুরোড়াশ ও গান প্ৰকৃতিতে বৈদিক : neha এর সহিত কখনও বিভীষিকামী কহিত হয় নাই আমাৰ্থত দেখিয়া বৈদিক তাই গঠন দেশে শিয়া পঢ়ি ঙে এই থিওরি বিধাবাসিনী এবং চামুণ্ডাও ব্ৰাহ্মণের হন্তে জাননী শিক্তি সম্বন্ধেও এভাবে গৃষ্ঠানত বৈদিক তত্তের কাছে ক্ষী বলিৰাব পরিণত হইয়াছেন বৈদিক কবি সমস্ত জগৎটা তিমা, দীপ্তি যিহেতু আছে কি ? Fraser, tor প্ৰতি প্ৰাচীন এবং আরও মান দেখিছেন এই তাবটি বেদান্তে পূৰ্ণ পরিণতি প্ৰাপ্ত হইয়াছে আধুনিক তত্ত্ববিদগণ সকলেই একবাকো বলিয়াছেন ও দেখাইয়. আন্ধা বা ৭ যখন সকল হতেই বৰ্তমান এবং সকল তই যখন যেinitive tral ge) ইহা আয়াতে বৰ্তমানতখন সম গৎ এবং সমগ্ৰ জাগতিক বা বে টা অত্যন্ত সাধারণ ব্যার হিল bংসের মধ্যেই দেলা হইবে, তাহ বিচিত্ৰ কি ।