পাতা:বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস (কায়স্থ কাণ্ড, প্রথমাংশ, রাজন্য কাণ্ড).djvu/৮০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

WS বঙ্গের জাতীয় ইতিহাস ১ম অধ্যায়। কান্তকুজ-অঞ্চলে মৌখরি বর্শ্ববংশ আধিপত্য করিতেন। হর্ষের ভগিনীপতি মৌখরি গ্ৰহবর্ণার মৃত্যু, তৎপরে হর্ষদেবের হস্তে গোঁড়াধিপ গুপ্তের নিপাত এবং কান্তকুজে ছর্ষের রাজধানীপরিবর্তনকালে কর্ণসুবর্ণপতি শশাঙ্কদেবও বলসঞ্চয়পুৰ্ব্বক মহারাজাধিরাজ উপাধি গ্রহণপুৰ্ব্বক সাৰ্ব্বভৌম হইবার আশায় উদ্দীপিত হইয়াছিলেন, সন্দেহ ছুই। পাশ্বৰী নৃপতিবৃন্দ তাহার ভয়ে সন্ত্রস্ত ছিলেন। হর্ষবৰ্দ্ধন কান্তকুজে অধিষ্ঠিত | ইলে, সম্ভবতঃ এখানকার মৌখরি-রাজবংশ (গ্রহবর্মার আত্মীয় ) তাহদের পূর্বাধিকার ৯ মগধে আসিয়া আধিপত্য করিতে থাকেন। ২৬ এই রাজবংশের সহিত শশাঙ্কদেবের । (ম সংঘর্ষ উপস্থিত হইয়াছিল। পূৰ্ব্বেই লিখিয়াছি, গ্রহরার মহিষী রাজ্যত্র বৌদ্ধ সম্মতীয় মতাবলম্বী ছিলেন, গ্রহবর্মার আত্মীয়স্বজন মৌখরিগণও ঐরূপ বৌদ্ধধৰ্ম্মান্থরক্ত থাকাই সম্ভবপর। এদিকে শশাঙ্কদেব একজন গোড়া শৈব ছিলেন। তাহার সহিত মগধের বর্শ্ববংশের সংঘর্ষ অনেকটা ধৰ্ম্মযুদ্ধে পরিণত হইয়াছিল। তাহারই পরিণাম শশাঙ্ককর্তৃক মগধের বিশাল বৌদ্ধকীৰ্ত্তিবিলোপের আয়োজন। চীনপরিব্রাজকের ভ্রমণকাহিনী হইতে জানিতে পারি যে, প্রধান বৌদ্ধপীঠস্থান কুশীনগর হইতে শশাঙ্ক শ্রমণগণকে বিদূরিত করিয়াছিলেন, স্বয়ং অশোক পাটলিপুত্ৰে সৰ্ব্বদাই যে বুদ্ধপদচিহ্নযুক্ত উজ্জ্বল পাষাণখণ্ড পূজা করিতেন, বৌদ্ধসমাজে প্রধান উপাস্ত বলিয়া চিরদিন যাহার উপাসনা চলিতেছিল, কর্ণসুবর্ণপতি সেই পবিত্র পাষাণখও গঙ্গাগঙে নিক্ষেপ করিয়াছিলেন, তৎপরে তাহ পুনরায় বস্থানে নীত হইয়াছিল।" ভগবান বুদ্ধ গয়ায় যে বোধিক্রমমূলে বোধিজ্ঞান লা করিয়াছিলেন, শশাঙ্ক সেই বোধিক্রম উন্মলিত করিয়া তাহার মূল পর্যন্ত পুড়াইয়া দিয়াছিলেন। এই ঘটনার কয়েকমাস পরেই মগধপতি পূর্ণবৰ্ম্মার যন্ত্রে সেই বোধিতরু রক্ষিত হইয়াছিল ২৮ এই বোধিক্রমের পাশ্বেই ১৬০ ফিটু উচ্চ একটা বৃহৎ বুদ্ধমন্দির ও তন্মধ্যে বোধিক্রমমূলে ভূমিস্পর্শ মুদ্রায় সমাসীন বুদ্ধমূৰ্ত্তি ছিল, রাজা শশাঙ্ক সেই পাষাণময়ী মূৰ্ত্তি তুলিয়া ফেলিয়া (নিজ উপান্ত ) শিবমূৰ্ত্তি স্থাপনের বৃথা চেষ্টা করিয়াছিলেন।৯ চীনপরিত্রাঙ্ককের উক্ত বিবরণী হইতে বেশ আভাস পাওয়া যাইতেছে যে, রাজা শশাঙ্ক মগধের রাজধানী পাটলিপুত্র ও বৌদ্ধসমাজের প্রধানকেন্দ্র বোধগয়া আক্রমণ করিয়াছিলেন এবং মগধপতি তাহার নিকট পরাজিত হইয়াছিলেন, নচেৎ তিনি বৌদ্ধসমাজের প্রধান উপাত্ত বস্তু নষ্ট করিতে কখনই সাহসী হইতেন না। কিন্তু তাহার এই জয়লাভ স্থায়ী ফলদায়ী হয় নাই। কারণ চীনপরিব্রাজক লিখিয়াছেন যে, রাজা শশাঙ্ক কর্তৃক বোধিক্রম উন্মলনের কএক মাস পরে মগধপতি পুর্ণবৰ্ম্ম পুনরায় বোধিক্রমরক্ষার ব্যবস্থা করিয়াছিলেন। মগধের বাহিরে তখন প্রবল পরাক্রান্ত হর্ষদেবের অধিকার, এই কারণে শশাঙ্কদেব মগধ-আক্রমণে কতকটা (२७) करणग्न छाँउँौह इंडिहांग, ६षञ्चकt७, २यांश्नं १७७ II (ss) Watter's Yuan Chuang, Vol II, p. 92. (w) watter, II, p. 115. (k») Vide Watter, II. p. 116,