পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


రి ) e K বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । নীরে নিরঞ্জন লোচন-রাত (১)। সিন্দূরে মণ্ডিত যনি পঙ্কজ-পাত ৷ সজল-চীর রহ পয়োধর-সীমা । কনক-বেলে যনি পড়ি গেল হিমা । (২) ও লুকি করতহি চাহে কিয় দেহা । অবহি ছোড়ব মোহি তেজব লেহা । (৩) ঐছন রস নহি পাওব আর । ইথে লাগি রোই গলয়ে জল-ধারা । (৪) বিদ্যাপতি কহ শুনহ মুরারি। বসন লাগল ভাব রূপ নেহারি ॥ মুদিত নয়নে হিয় ভুজযুগ চাপি । শুতি রহল তহি কিছু না অলাপি । (৫) পরসঙ্গে করলহি নামহি তোরি। তবহি মিলঅ আখি চাহে মুখ মোরি । (৬) শুন ধনি ইথে নহি কহি আন ছন্দ। তোহে অনুরত ভেল শ্যাম চন্দ ॥ যোই নয়ন-ভঙ্গী ন সহ অনঙ্গ । (৭) সোই নয়নে অব লোর-তরঙ্গ ॥ (১) রাতা = রক্তবর্ণ। (২) পয়োধরের উপরে সজল-মুল্প-বস্ত্র শোভা পাইতে লাগিল, মনে হইল যেন স্বর্ণ-নিৰ্ম্মিত বিম্বফল হিমাবৃত হইয়াছে। (৩—৪) সজল-বস্ত্র দেহের সহিত মিলাইয়া লুকাইয়া রহিয়াছে, তাহার এই ভয় যে, সুন্দরী এখনই তাহার স্নেহ বিস্মৃত হইয়া তাহাকে পরিত্যাগ করিবে ; সুন্দরীর দেহ-স্পর্শ রস হইতে শীঘ্ৰ বঞ্চিত হইবে, এই জন্য সে কান্দিয়া অশ্র-বিসর্জন করিতেছে। ( আৰ্দ্ৰ বস্ত্র হইতে জল-ধারা পাতের উৎপ্রেক্ষা । ) (৫) চক্ষু মুদিত করিয়া বক্ষে কর অর্পণপূর্বক কাহারও সঙ্গে আলাপ না করিয়া সুন্দরী শুইয়া রহিল। (৬) প্রসঙ্গে তোমার নাম করিলে তবেই মুখ ফিরাইয়া একবার দৃষ্টিপাত করে। (৭) অনঙ্গ যে দৃষ্টি সহ করিতে পারে না, অর্থাৎ যে দৃষ্টির নিকট অনঙ্গ পরাজিত হয়।