পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৬৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন সঙ্গীত–রাধামোহন সেন–১৯শ শতাব্দীর প্রথমভাগ। ১৬২৫ নব দুৰ্ব্বাদল জিনি বর্ণ ঘট । বসন্ত । কলা পূর্ণ ভাবে মুখচন্দ্র-ছটা । শিখিপুচ্ছ-শিরস্ত্রাণ সুপ্রকাশে। শরীরের শোভা করে রক্তবাসে ॥ নানা পুষ্পময় কৃত মাল্য গলে। উনমত্তত যৌবন-মদ্য-বলে। কর দক্ষিণে আম্রের মঞ্জুল রে । পূগ কপূর তাম্বল সব্য করে। তাল বাদ্য সমন্বিত নৃত্য গান। এ বসন্ত রাগিণীর বিদ্যমান ৷ সখী-সঙ্গে বরাঙ্গণ রঙ্গ সাজে। দৃমিদং দৃমিদং সমৃদঙ্গ বাজে। ধিধি ধিক্কট ধিক্কট ধিক্কক ধেই । . থাথাথুং থকুথুং থকুথুং থকু থেই৷ মধু মন্দিরা ঠিষ্টিনি ঠিন্নি গাজে। ঝননং ঝননং জগঝম্প বাজে ৷ তাধিয়া তাধিয়া পদ-নৃত্য-ভরে। মধুর ধ্বনি রঞ্জিত বংশী-স্বরে। রণ রঙ্কণ রঙ্কণ মঞ্জু পাদ। বীণা-নিক্কণে নিক্কণে আস্ত নাদ ॥ জাতি-সম্পূরণ-রীতি মধ্যে গণি । সুর-স্থশ্রেণী সা-রি-গ-ম-প-ধ-নি ॥ খরজের ঘরে রাগিণীরে ধরে। মুনি-উক্ত গান দিবা দ্বিপ্রহরে ৷ ” শিশিরাস্ত ঋতু-মতে ধাৰ্য্য পাবে। স্বসন্ত ঋতু সদা নিত্য গাবে। ఇe8