পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭১০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬৫২ বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় । নতুবা হারাবে ভাই আপনার ধন। মহৎ-কৃপা বিনে নহে ঐছে আচরণ ॥ বেদ-শাস্ত্র-পুরাণেতে স্ত্রী-সঙ্গ বারণ। কেমনে বা বারণ ইহা বুঝি বিবরণ ॥ বৈরাগ্যের ধৰ্ম্ম যায় স্ত্রী-সঙ্গ করিতে । গোস্বামীরা বারণ করিয়াছে বহু গ্রন্থে ॥ তথাহি মধ্যলীলাতে । “অসৎ-সঙ্গ-ত্যাগ এই বৈষ্ণব-আচার। স্ত্রী-সঙ্গ অসাধু এক কৃষ্ণ-ভক্ত আর ॥” “দুঃসঙ্গ কহিয়ে কৈতব আত্ম-বঞ্চন । কৃষ্ণ কৃষ্ণ-ভক্তি বিনে অন্ত কামনা ৷” স্ত্রী-সঙ্গ করিলে নিজ আত্মাহারা হবে। আত্মা নষ্ট হৈলে জীব অধোগতি পাবে ॥ ইহার কারণে গোস্বামী বারণ করিল। ধৰ্ম্ম হেন স্বল্পজ্ঞানী জনে আচরিল ॥ ধৰ্ম্ম যাবে এই মাত্র করে অনুভব । কৈছে যাবে ইহা কিছু নাহি জানে ভাব ॥ সূক্ষ্ম ধৰ্ম্ম আছে দেখ পৰ্ব্বত গহবরে। সকল বিভিন্ন মত সূক্ষ্ম না বিচারে ॥ মহাজন-সাধু-পাশে স্বহ্ম ধৰ্ম্ম পাই। আপনার কাছে সাধু সে ধৰ্ম্ম দেখাই ॥ পৰ্ব্বত গহবর করি আপনার শির। মধ্যেতে বিরাজে রস গরজে গভীর ॥ স্ত্রী-সঙ্গ করিতে হেন ধৰ্ম্ম বহি যায় । দুৰ্ব্বল ক্ষীণত হয় তবু না জানয় ॥ দিবা নিশি জীব সব অনর্থে ফিরয় ! অনর্থ নিবৃত্ত হইলে ভক্তি নিষ্ঠা হয়। সাধুসঙ্গ হৈতে হয় শ্রবণ কীৰ্ত্তন। সাধন ভক্তে সৰ্ব্বানর্থ হয় নিবৰ্ত্তন ॥ কৃষ্ণ-ভক্তি আত্মগ্রন্থ পুরাণেতে কহে। বিশ্বাস করহ সবে মিথ্যা কভু নহে ॥ “ধাতুরূপে সৰ্ব্বদেহে বৈসে কৃষ্ণ-শক্তি । ইহা শুনি করে হে তাহ প্রতি ভক্তি ॥