পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রাচীন গদ্য-সাহিত্য—রাম বস্থ–১৮০১ খৃঃ। এ প্রসঙ্গের আদি এই রামচন্দ্র নামেতে একজন বঙ্গজ কায়স্ত পূৰ্ব্বদেশনিবাসী আপন রোজগারের চেষ্টায় দেশান্তরি হইয়া পাটমহল পরগণায় অবস্থিতি করিলেন এবং সেই স্থানে বিবাহ করিলেন তাহার শুালকের সরকার সপ্তগ্রামের কাছারিতে কাননগো দপ্তরে মুহরি ছিল রামচন্দ্রও তাহদের সমিভ্যারে দপ্তরখানায় যাতায়াত করিতে ২ সৰ্ব্বত্রে পরিচিত হইলেন রামচন্দ্র ক্ষমতাপন্ন লোক অতএব ঐ দপ্তরে তিনিও মুহরিগিরি কাৰ্য্যে প্রবত্ত হইলেন। এই মতে কতক কাল গত হইলে রামচন্দ্রের প্রতি দেবতার অনুগ্রহ তাহাতে ক্রমে ২ তাহার তিন জন পুত্ৰ সন্তান জন্মিল তাহারদের জ্যেষ্ঠের নাম রাখিলেন ভবানন্দ মধ্যমের নাম গুনানন্দ কনিষ্ঠের নাম শিবানন্দ তাহারা তিন ভ্রাতা আপনাদের জাতি ব্যবসা লেখা পড়ায় তিন জনেই পটু হইল পারসি ও বাঙ্গলা ও নাগরি আদিতে মূৰ্ত্তিমন্ত তন্মধ্যে রামচন্দ্রের কনিষ্ঠ পুত্র শিবানন্দ অধিক ক্ষমতাপন্ন। কাননগো দপ্তরে আপন বাপের প্রকোষ্ঠে কাৰ্য্যকৰ্ম্ম করিতেছিল ইতিমধ্যে সে দপ্তরের শিরিস্তাদার কান্তার নামে একজন কটকী ছিল তাহার সহিৎ শিবানন্দের অপ্রণয় হইয়া সে হইতে উৎখ্যাত হইয়া গৌড়ে রাজধানি স্থানে গতি করিলেন। সে সময় গৌড়ে বাদসাহি কোট বাঙ্গালা ও বেহারের খালিসা সেই স্থানে তাহার অধিবক্ষ্য নবাব ছোলেমান গররানি নাম পাঠান ছেলেমানের পূর্বাবধি কিছু এমত ঐশ্বৰ্য্য ছিল না দৈবক্রমে তাহারি কিছুকাল পূৰ্ব্বে বাঙ্গালা ও বেহার ও উড়িম্বা তিন সবার কর্তী হইয়া মহা ঐশ্বৰ্য্যমন্ত হইয়াছিল তাহার বিবরন এই। যে কালে দিল্লির তত্তে হোমাণ্ডু বাদসহ তখন ছোলেমান ছিলেন কেবল বঙ্গ ও বেহারের নবাব পরে হোমাণ্ডু বাদসাহের ওফাত হইলে হেদোস্তানে বাদসাহ হইতে ব্যাজ হইল এ কারণ হোমাণ্ডু ছিলেন বৃহত গোষ্ঠী তাহার অনেক গুলিন সন্তান তাহারদের আপনার মধ্যে আত্মকলহ হইয়া বিস্তর ২ বাঁকড়া লড়াই কাজিয়া উপস্থিৎ ছিল ইহাতে সুবাজাতের তহশিল তাগাদ কিছু হইয়াছিল না। এই অপকাশ ক্রমে ছোলেমান সেনা সজা করিয়া সে সুবাও আপন করতল করিলেন এবং দুই তিন বৎসর পর্য্যন্ত তিন মুবার কতৃত্ব নিস্করে করিলেক ইহাতে ভাণ্ডারাবধি ধনে পরিপুন্ন করিলেন। পরে হোমাণ্ডুসাহের জ্যেষ্ঠ পুত্র একবার সাহ দিল্লির তত্তে বাদশাহ হইলেন তৎকালিন ছোলেমান বিস্তর শওগাত নজর ইত্যাদি দিয়া একববর বাদসাহের সহিৎ সাক্ষাত করিলে সময়ক্রমে বাদসাহের অনুগ্রহে অনুগৃহীত ده سواران