পাতা:বর্ত্তমান বাঙ্গালা সাহিত্যের প্রকৃতি.pdf/৪৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ రిసె 1 পাঠ্য। সুতরাং "সাহিত্য যত অধিক লোকের উপযোগী হয, উহার সঙ্কীর্ণ বা সাম্প্রদাযিক লুব নুষ্ট হইযা জাতীয ভাব তত প্রবল হফ এবং উহার সাহিত্য নামও তত সার্থক হইতে থাকে । যে সাহিত্য কৈবল বিশেষ প্রণালীতে শিক্ষিত শ্রেণী বিশেষের উপযোগী, তাহ জাতীয সাহিত্য নহে, সাম্প্রদাযিক সাহিত্য । জ্ঞানবিস্তার ও জাতীয একত। সাধনরূপ যে মহৎ কার্য্য প্রকৃত সাহিত্যেন্দ্র দ্বাবা সম্পাদিত হয, উহা দ্বারা তাহ সম্পাদিত হইতে ত পারেই না , অধিকন্তু উহাব প্রভাবে সমাজের শ্রেণী বিশেষ লোক সাধারণেব সম্বন্ধে সহানুভূতি শূন্য হইয, সমাজের ভিতব একটা বিষম অনিষ্টকাবী পার্থক্যেব সূত্রপাত কবিয়া, তাহার পবিবৰ্দ্ধন সৗধম, কবিতে •থাকেন । বস্তুতঃ বর্তমান বাঙ্গাল। সাহিত্যুের যে লক্ষণেব কথা কহিতেছি, স্বদেশের লোক সাধারণের সম্বন্ধে অবজ্ঞা, অনাস্থ ও সহানুভূতিশুষ্ঠতাই তাহাব উৎপত্তির অন্যতম কার্বণ এবং * প্রবলতার প্রধান হেতু । কিরূপ ভাষায ও ভঙ্গিতে লিখিলে আমাদেব আপন আপন মনস্তুষ্টি হয়, লিখিবার সময আমাদেব কেবল সেই দিকে দৃষ্টি