পাতা:বাংলার পাখি - জগদানন্দ রায়.djvu/৭৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বাংলার পাখী। Örዓ কাক ও কোকিলের মধ্যে এত শত্ৰুতা। কেহ কাহাকেও দেখিতে পারে না-যেন দাকুমড়ার সম্পর্ক। তোমরা হয়ত ভাবিতেছ, যখন কাকেরা বাসায় থাকে না, তখন স্ত্রী-কোকিল লুকাইয়া কাকের বাসায় ডিম পাড়িয়া BDL S DDB BBDB DDS SBBBBD DDD D BBD কাকের বাসায় ডিম পাড়ে, তাহা বড় মজার। আমরা আগেই বলিয়াছি, কালো কোকিলারাই পুরুষ এবং তিলে কোকিলরা স্ত্রী। স্ত্রী-কোকিলরা বড় লাজুক। যখন পুরুষকোকিলরা সেই টানা টানা সুরে গান জুড়িয়া আনন্দ করে, তখন স্ত্রী-কোকিলরা গাছের পাতার আড়ালে লুকাইয়া দিন DBS BD DBDS D BDBDB BB DDBD DSBDDD পাতার আড়ালে বসাইয়া পুরুষ-কোকিল কাকের বাসার কাছে ডালে বসিয়া “কু-উ-কু-উ” করিয়া গান জুড়িয়া দেয়। কাকেরা কি রকম অদ্ভুত পাখী, তাহা তোমরা আগেই শুনিয়াছ। সব ব্যাপারেই তাহদের সন্দেহ। পৃখিবীতে DD DDD DDB BB mDBBD BDBDS DBB S DB মানিতেই চায় না। “ধপাস” করিয়া একটি শব্দ হইলে, BB BDDDD DDBS D gD DDu BD BDBBB কহিলে, এই লক্ষীছাড়া পাখীদের মনে সন্দেহ হয়, আর “কা-কা” করিয়া আরো গোটা দশেক জাতি-তাইদের ডাকিয়া মহা গণ্ডগোল বাধাইয়া দেয় । তার পরে পাখীদের BB BD DBB BB DD Kz gBD DD DDS