পাতা:বিটকেলের দপ্তর - বিপিনবিহারী বসু.pdf/২০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>bー বিটকেলের দপ্তর । লোক ও দৃশ্য দেখিতে দেখিতে চলিতে লাগিলাম। এক জায়গায় প্ৰহলাদ চরিত্রের গুরু মহাশয়দের সঙ্গে দেখা—অাৰি হাসিতে হাসিতে ছুটিলাম । তাহারা আমায় তাড়া করিল কিন্তু ধরিতে পাবিল না । তাহার পরে যাহা যাহা দেখিলাম সব যেন ঘুমেব ঘোরে কতক মনে আছে কতক নাই । এক জায়গায় দেখিলাম একগাচি কেশ দুদিকে টেনে বাধ৷ হইয়াছে অব একজন স্থত্রধর একখানা করাৎ লইয়। চুল গাছ “লম্বী লম্বি।” দুভাগ কবিতেছে, চতুর্দিকে বিস্তর উকীল ও কোন্সলী ই করিযী দাড়াইয়া আছেন। আরও দেখিলাম দুটি ভাই দুই পাশ্বে দাড়াইয়। "চুল চের।” তত্ত্বাবধাবণ কবিতেছেন। আবাব তাহাৰ ভিতরে একজনেব অমুচব প্রতি মুহূৰ্ত্তে অপর ভাইকে জিজ্ঞাসা কবিতেছে “উনি জিজ্ঞাসা কবচেন আপনায় শারীবিক কুশলত” ? অাবাব তাহাব একজন অনুচর অপব ভ্রাতাকে জিজ্ঞাসা করিতেছে “উনি জিজ্ঞাসা কবচেন আপনার শাবীবিক কুশল ত ? আমি অনেকক্ষণ দাড়াইয়া রচিলাম কিন্তু কিছুই বুঝিতে পারিলাম না । মহাভারতে লেখা আছে ষে উতঙ্ক পোষ্যমহিষীদত্ত কুস্তলের অনুসন্ধানে নাগলোকে গিযাছিল। সেখানে গিয দেখে দুটি স্ত্রীলোক সুচারু বাপদও যুক্ত তন্ত্রে বস্ত্র বয়ন করিতেছে। সেই তন্ত্রের স্বত্র সকল শুক্ল ও কৃষ্ণবর্ণ আর দ্বাদশ অরযুক্ত এক খানি চক্র ছয়টি শিশু কর্তৃক পরিচালিত হইতেছে আর একজন পুরুষ ও অতি মনোহব একটি অশ্ব দাড়াষ্টয়া রহিয়াছে। উতঙ্ক এই কারখানার কিছুই বুঝিতে পারিল