পাতা:বিভূতি রচনাবলী (অষ্টম খণ্ড).djvu/১০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিভূতি-রচনাবলী واعb এই সময় আশা আধ-বসা অবস্থায় উঠে ঝাঝের সঙ্গে বল্পে –খবরদার । তিনি স্বগ গে গিয়েচেন, র্তার নামে কিছু বোলো না— নেত্য বিক্রপের স্বরে বল্লে-ওরে আমার স্বামী-দোহাগী সতী রে! মারো মুখে বাট, বলতে লজ্জাও করে না ? আমি বলচি, না তুই বলতিস্ সেই যত নেট বেঁচে থাকতে ? আবার স্বামী-সোহাগ দেখাতে এসেচেন, মরণ নেই ? ভারি স্বামী ছিল মুরোদের, সূব জানি, বিয়ে করে একখান কাপড় কিনে দেবার, এক মুঠো অন্ন দেবার ক্ষমতা হয় নি— আশা আবার উঠে বল্লে—আবার ওই কথা ! তিনি মরে স্বগ গে গিয়েচেন, তার নামে কেন বলবে তুমি ? * নেত্য হঠাৎ তেড়ে এসে আশার কাধে এক লাথি মেরে বল্পে – স্বামীর সোহাগ উথলে উঠলো বদমায়েশ মাগীর, যে বেরিয়ে এসেচে তার মুখে আবার-গলায় দড়ি দিগে যা— আশার চেহারা আগের চেয়ে খুব খারাপ হয়ে গিয়েচে, গায়ের রঙেরও আগের মত জলুস নেই, লাথি খেয়ে সে কিন্তু এবার ঠেলে উঠলো। বল্লে—তাই দেবে, গলায় দড়ি দিয়ে তোমায় পুলিশের হাতে যদি তুলে না দিই – —চুপ—পুলিশ তোর বাবা হয় ! —আবার মুখে ওই সব কথা ? এইবার একটি প্রৌঢ় স্ত্রীলোক এগিয়ে ঘরের মধ্যে এসে দাড়ালো। বল্পে—এসব আপনাদের কি কাণ্ড ? আপনার না ভদর লোক ? আশপাশের বাড়ীতে গেরস্তর ঝি-বউ সব রয়েচে, এখানে মদ খেয়ে চেঁচামেচি চলবে না । হ্যাংগামা করতে হয়, ন্যাক্রা করতে হয়, সরকারী রাস্তা পড়ে রয়েচে । আমার বাড়ী ওসব করলে পুলিশে খবর দিতে হবে— পালমশায় এবার বোধ হয় সাহস পেয়ে এগিয়ে এসে বল্পেন—আমিও তাই বন্ন । বলি এখানে ওসব কোরোনি-ত মাতালের সামনে এগোতে কি সাহস হয়! প্রৌঢ় স্ত্রীলোকটি আশাকে ধরে ঘরের বাইরে আনতে আনতে বল্লে—মাতালের সামনে তকৃকো কত্তে আছে, ছিঃ মা—দেখচো না ওর এখন কি ঘটে জ্ঞান আছে ? এসো আমার ঘরে— - আশা চলে যায় দেখে নেত্য জড়িত কণ্ঠে বাজখাই আওয়াজে বল্পে—এই, কোথাও যাবিনি বলে দিচ্চি—হাড় ভাঙবো মেরো-খবরদায় ! এই ! আমি এখন চা আর ডিমভাজ খাবো —করে না দিয়ে যদি নড়বি-নিয়ে যেও না মুসী— 藝 প্রৌঢ় স্ত্রীলোকটি যেতে যেতেই বল্লে-আচ্ছ, চা করে ডিম ভেজে আমার ঘর থেকে পাঠিয়ে দিচ্চি বাবা—আপনি একটু শান্ত হয়ে শুয়ে থাকুন— . পালমশায় উপস্থিত লোকজনদের দিকে চেয়ে বল্লে—চলে সব, চলে, কি দেখতে এসেচে সব ? দুটো হাত পা ধেরিয়েচে কারো, না ঠাকুর উঠেচে ? বন্ন, তখন ওখানে যেগুনি, যে যার ঘরে যা খুশি করুক না, তোমার কি ? আমুক দিকি আমার নিজের ঘরে। দেখি কত বড় কে বাপের ব্যাট ।