পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/১০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b е ৰিভূতি-রচনাবলী বুড়ীর নিচ্চিন্দে হয়ে বেরিয়েচে–রাত ন’টার এদিকে ফিরবে না। চা আর ভাজা খেয়ে কথা হবে এখন বসে বসে । —বেশ, আমি এত রাত্রে যাব কোথায় ? —এখানে থাকবেন । —সে সাহস আমার নেই। 創 পান্না ধমক দিয়ে বললে—আপনি না পুরুষমানুষ ? ভয় কিসের। আমি আছি। সে ব্যবস্থা করবো । —তুমি থাকলে তৰু ভরসা পাই। —বস্কন—আসচি– একটু পরেই পান্না চা আর বাদাম ভাজা নিয়ে ফিরলো। বললে—চলুন ঘরে। —না, আমি ঘরে যাব না। এখানেই বসে। পান্না হঠাৎ এসে খপ করে আমার হাত ধরে বললে—তা হবে না, আম্বন। আমি কৃত্রিম রাগের স্বরে বললাম—তুমি আমার হাত ধরলে কেন ? —বেশ করেচি, যাও । —জান ওসব আমি পছন্দ করি নে। —আমি ভয় ও করি নে। দু'জনে খুব হাসলাম—পান্না তুমি কি আমায় ভালোবাসো ? সত্যি জবাব দাও। পান্না ঘাড় দুলিয়ে বললে—না— —না, হাসি ঠাটা রাখে, সত্যি বলে । —কখনই না। —বেশ, আমি তবে এই রাত্তিরে চলে যাবো k —সত্যি ? —যদি ভালো না বাসো, তবে আর মিথ্যে কেন খয়ে-বন্ধন— পান্না খিলখিল করে হেসে উঠলো মুখে আঁচল দিয়ে। ততক্ষণ সে আমার হাত ধরে ঘরের মধ্যে নিয়ে গিয়ে ফেলেচে ! আমি কিন্তু মন ঠিক করে রেখেছি। ফাকা কথায় ভুলবার নই আমি। কাল সকালে পান্না আমার সঙ্গে যেতে পারবে কিনা ? যেখানে আমি নিয়ে যাবো। সে বিচারের ভার আমার উপর ছেড়ে দিতে পারবে কি ও ? আমি জানতে চাই এখুনি। পান্না সহজ ভাবে বললে—নাও ওগো গুরুঠাকুর, কাল সকালে যখন খুশি তুমি কৃপা করে আমায় উদ্ধার কোরে—এখন চাটুকু আর ভাজা ক'টা ভাল মুখে খেয়ে নাও তো দেখি ? চা খাওয়া শেষ হয়ে গেল। আমি বললাম—এখন ? পান্না হেসে বললে—কি এখন ? —এখন কি করা যাবে ?