পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/২৫৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


३७* বিভূতি-রচনাবলী ৰেকতি—আমার বাড়ী না তোর বাড়ী ? আমি আজও বেঁচে নেই ? তোর কী দাবি জাছে এ বাড়ীর ওপর ? আমি ওপর থেকে সব শুনেছি। বদমাইস পাজি কোথাকার! জাৰি মরবার আগে খোকনকে বাড়ী লিখে দিয়ে যাব-কালই যাচ্ছি আমি সদ্বরে। বৌমাকে আছি করে যাব। তোমার বাড়ীর আম্বা ঘুচিয়ে তবে আমার কাজ, হত্তছাড়া বামাইশ | রাত ছপুরের সময় এসে উনি ঘরের বেীকে বলবেন, বেরো, বেরো। মুরোদ নেই এক কড়ায়— ধ্যারে হারামজাদা, ও ভদ্ধরনোকের মেয়ে সারা মাস কি খায় তুই তার কোন হদিস রাখিল ? না কেউ রাখে ? বেরো বলতি লজ্জা করে না ? এল তো খোকন, এস—চল বৌমা—ওপরের স্বরে চল— তারা ঘোমটা টেনে দিয়েছিল শ্বশুর আসবার সঙ্গে সঙ্গেই। সে ফিস ফিস করে খোকনকে কি বললে । খোকন বললে—ঠাকুরদাদা, তুমি ওপরে স্বাe—ম বলছে। ভবতারণ সাহস পেয়ে বললে—আমি তাড়িয়ে দেবার কথা আগে মুখে এলিছি না আপনার গুণধর বেীমা ? জিগ্যেস করুন তো কে আগে কাকে বেরিয়ে যাবার কথা বলেছে ! হ্য খোকা, ৰল তো ? আপনার বেীমাই বললে না আমাকে বেরিয়ে যেতে ? কেন, ওর বাবার বাড়ী ? —খ্যা, ওর বাবার বাড়ী। আলবৎ ওর বাবার বাড়ী। হারামজাদ, ফের ঘদি তুমি ওসব কথা মুখে এনেছ তবে তোমাকে আমি— • উপেন ভটচার্জ ওপরে উঠে চলে গেলেন। ভবতারণ চুপ করে বসে রইল তক্তপোশের এক কোণে । খানিকক্ষণ সবাই চুপচাপ। হঠাৎ ভবতারণ উঠে জামার পকেট হাতড়ে একখানা ছ টাকার নোট বার করে স্ত্রীর দিকে ছুড়ে দিয়ে বললে, এই দিলাম। ধার দেন। শোধ দিও। আমি এক্ষুনি চললাম। দেশলাই কে নিল আমার । তারা বললে—খোকন, দেশলাইট ঐ রয়েছে, দে তো'। একটা বিড়ি ধরিয়ে নিয়ে ভবতারণ জামা গায়ে দিতে দিতে বললে, এসেছিলাম অনেক জাশ করে। তা এ বাড়ী অামি থাকব না। এখানে আমার পোষাবে না বুঝলাম। কেউ মূখন আমাকে দেখতে পারে না এ বাড়ীতে । খাওয়া হল না, শরীরটাও খারাপ। তা হক, স্বাবই। আর আসছি নে। স্বাখ খোকন, ধাবি কলকাতায় ? চল আমার সঙ্গে, মটোর কিনে দেব, লবেঞ্চুস কিনে দেব कङ्ग५ी निक्रडब्ल । —স্বাবি ? -ञी । —এস আমার সোনা, জামার মালিক, চল জাম্বার সঙ্গে--