পাতা:বিভূতি রচনাবলী (একাদশ খণ্ড).djvu/২৮৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


८छIांछिद्भित्रण ३७e —মঙ্গলবার কিছু নেই ? ভেবে দেখ। প্রত্যেক অস্বীকৃত পাপের জন্যে সেন্ট জেভিয়ারের পবিত্র বেদীতে স পাচ আন!— —মেরী মাতার দোহাই হুজুর, মঙ্গলবার আর কিছু নেই। —আচ্ছা বলে যাও। বুধবার— —আমার ক্ষেতের খাম-আলু সাস্তারা চুরি করে নিয়ে পালাচ্ছিল বুরুথ টুড় আর তার ছেলে সল টুভু, তাদের ঢ়িল ছুড়ে পা ভেঙে দিয়েছি। —পা ভেঙে ? —হঁ্যা হুজুর। পা একেবারে ভেঙে । মিথ্যে কথা বলব কেন । —আর তুমি যখন অপরের ক্ষেত থেকে চুরি করলে তখন বুঝি পাপ হল না ? —আজে-— —বলে যাও। বৃহস্পতিবার। পবিত্র সেন্ট টেরেস বোজার পবিত্র স্মৃতিতে পূত বুহম্পতিবার । পুরোহিত হাটু গেড়ে বসে উক্ত সেন্ট টেরেসার উদেখে আঙুমি প্রণাম করলেন। চাষাও র্তার দেখাদেখি তাই করলে। তার পর বললে—হুজুর, বৃহস্পতিবার একজনের ধার শোধার কথা ছিল—দিই নি । —ইচ্ছে করে ? মনে ছিল ? —হঁ্যা হুজুর । টাকাটা হাতছাড়া করতে কষ্ট হচ্ছিল । —ই ? ধার করবার বেলা মনে থাকে না সেসব ? টাকা শোধ দিয়েছ ? —ন হুজুর । —আত্মপাপ-শোধনকারীদের উচিত পাপস্বীকারের দিনই গির্জা থেকে ফিরে গিয়ে পূর্বের ক্রাট সংশোধন করা । আজই টাকা শোধ দেবে। তারপর ? —তারপর, শুক্রবার স্ত্রীর সঙ্গে,ঝগড়া করে ওকে বলেছিলাম, তুমি বাপের বাড়ী চলে যাও— —শনিবার ? —আজ্ঞে—অাজ্যে—- —বল । চাষা দুবার টোক গিলে বললে—আজ্ঞে ব্যাপারটা একটু— —বল । —আজ্ঞে ও-পাড়ার মঙ্গলদাসের শালী এসেছে পানজিম থেকে । তাকে দেখবার জন্যে, রাস্তার ইদারার পাশে যখন মেয়েরা চান করছিল, তখন বড় ডুমুর গাছের তলায় দাড়িয়ে আড়াল থেকে দেখছিলাম । বালাদাস দুই গালে হাত দিয়ে বললে—কি সৰ্ব্বনাশ। কেন ? —জাঙ্গে তা যখন বলতেই এসেছি তখন বলব। মঙ্গলদাসের শালী নামকরা স্বল্পী পানজিমের। সেখানে কী নাচঘরে কাজ করে। অমন গাইতে নাচতে কেউ জানে না এ