পাতা:বিভূতি রচনাবলী (তৃতীয় খণ্ড).djvu/৫২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অপরাজিত & কাগজে বিজ্ঞাপনের দেনার দরন—ছোট আদালতে নালিশ করেছিল, পরশ এসে বাল্পপত্ন আদালতের বেলিফ, সীল ক'রে গিয়েছে । তোমার কাছে বলতে কি, এবেলার বাজারের খরচটা পৰ্য্যন্ত নেই—তার ওপর ভাই বাড়িতে সুখ নেই। আমি চাই একটু ঝগড়াঝাঁটি হোক, মান-অভিমান হোক—তা নয়, বৌটা হয়েছে এমন ভাল মানুষ সাত চড়ে রা নেই— আপ হাসিয়া উঠিয়া বলিল— বল কি হে, সে তোমার ভাল লাগে না বুঝি ?--- —রামোঃ—পানসে লাগে, ঘোর পানসে । আমি চাই একটু দৃষ্ট হবে, একগয়ে হবে— সমাট হবে—তা নয় এত ভাল মানুষ, যা বলছি তাই করছে—সংসারের এই কন্ট, হয়তো একবেলা খাওয়াই হ’ল না—মুখে কথাটি নেই । কাপড় নেই—তাই সই, ডাইনে বললে তক্ষণি ডাইনে, বাঁয়ে বললে বাঁয়ে—নাঃ, অসহ্য হয়ে পড়েছে । বৈচিত্র্য নেই রে ভাই । পাশের বাসার বৌটা সেদিন কেমন স্বামীর উপর রাগ করে কাচের গ্রাস, হাতবাক্স দমদাম, করে আছাড় মেরে ভাঙলে, দেখে হিংসে হ’ল, ভাবলাম হায় রে, আমার কি কপাল ! না, হাসি না—আমি তোমাকে সত্যি সত্যি প্রাণের কথা বলছি ভাই—এরকম পানসে ঘরকরা আর আমার চলছে না—বিলিভ মি—অসম্ভব -“ভালমামনুষ নিয়ে ধয়ে খাব ?•••একটা দলুটু মেয়ের সম্প্রধান দিতে পার ?-- . —কেন, আবার বিয়ে করবে নাকি ?—একটাকে পার না খেতে দিতে—তোমার দেখছি সুখে থাকতে ভুতে কিলোয়— —না ভাই, এ সখি আমার আর—জীবনটা এখন দেখছি একেবারে ব্যথ হ’ল, মনের কোনও সাধই মিটল না—এক এক সময় ভাবি ওঁর সঙ্গে আমার ঠিক মিলন হয় নি—মিলন যদি ঘটত তা হলে দ্বন্দ্বও হ’ত—বুঝলে না ?“কে, টেপি ?—এই আমার বড় মেয়ে—শোন, তোর মা'র কাছ থেকে দটো পয়সা নিয়ে দু’পয়সার বেগনি কিনে নিয়ে আয় তো আমাদের জন্যে, পার অমনি চায়ের কথা বলে দে– - —আচ্ছা মরণের পর মানুষ কোথায় যায় জান ? বলতে পার ? —ও সব ব্যাপার নিয়ে মাথা ঘামাই নি কখনও । পাওনাদার কি ক'রে তাড়ানো যায় বলতে পার ? এখনি কাবলীওয়ালা একটা আসবে নেবতলা থেকে। আঠার টাকা ধার নিয়েছি, চার আনা টাকা পিছ সনদ হ’তায় । দ-হপতার সদ বাকী, কি যে আজ তাকে বলি ?—কাউন্ডুেলটা এল বলে—দিতে পার দটো টাকা ভাই ? —এখন তো নেই কাছে, একটা আছে, রেখে দাও। কাল সকালে আর একটা টাকা দিয়ে যাব এখন । এই যে টোপ, বেশ বেগনি এনেছিস-না না, আমি খাব না, তোমরা খাও, আচ্ছা এই—এই একখানা তুলে নিলাম, নিয়ে যা টেপি । বন্ধর দোকান হইতে বাহির হইয়া সে খানিকটা লক্ষ্যহীনভাবে ঘরিল । লীলা কি এখানে আছে ? একবার দেখিয়া আসিবে ? প্রায় এক বৎসর লীলারা এখানে নাই, তাহার দাদামহাশয় মামলা করিয়া লীলার পৈতৃক-সম্পত্তি কিছু উদ্ধার করিয়াছেন, আজকাল লীলা মায়ের সঙ্গে আবার বন্ধমানের বাড়িতেই ফিরিয়া গিয়াছে। থাড ইয়ারে ভত্তি হইয়া এক বৎসর পড়িয়াছিল—পরীক্ষা দেয় নাই, লেখাপড়া ছাড়িয়া'দিয়াছে । সন্ধ্যার কিছু পাবে ভবানীপরে লীলাদের ওখানে গেল। রামলগন বেয়ারা তাহাকে চেনে, বৈঠকখানায় বসাইল, মিঃ লাহিড়ী এখানে নাই, রাঁচি গিয়াছেন। লীলা দিদিমণি ? কেন, সে-কথা কিছর বাবর জানা নাই ? দিদিমগির তো বিবাহ হইয়া গিয়াছে গত বৈশাখ মাসে । নাগপরে জামাইবাব বড় ইঞ্জিনিয়ার, বিলাতফেরত—একেবারে খাঁটি সাহেব, দেখিলে চিনিবার জো নাই। খুব বড়লোকের ছেলে--এদের সমান বড়লোক। কেন, यावदनं दगटश् निभन्छनग्न प्रिंटिं याझ नाएँ ? वि. ब्र. ७-s · . . .