পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/১৮৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


लोक cशनिद्रा क्बि जबकिडे कांबरब्रव्र छांद्र भांडणा अरभद्गुरू अरूद्वैो দণ্ডের উপর ঝুলাইয় দেওয়া হয়। ঐ দও সাধারণতঃ স্ত্রীলোকেরাই ধরিয়া থাকে । তাহারা সেই গাল কাপড়ের স্তার डूणाहेब्र ८महे शंभ हहेरठ अछ अकन्नै श्रूयश् प्रखनश् ब्राकिब्र म८था cश्वमैदक श्रांकांरब्र नलिछङ कब्रेिब्र ब्रांरथ ।। ७lहे इॉनटक ‘Drying shed' द तकहेवांब्र शब्र दएन । ॐश কতকাংশে তামাক-কুঠার (Drying-houseএর ) মত। পর দিন সেই গুৰু গালার পাত ভাঙ্গিয় বাক্সের মধ্যে পুরিয়া নানা স্থানে বিক্রয়ার্থ প্রেরিত হয় । । কলিকাতার হাতিবাগানে জৰিকাকুমারের গালার ফল প্রসিদ্ধ। যুরোপে তাহার 0, c, d, মার্ক গাৰ্ণেট গালার যথেষ্ট জাদর ছিল। সুপ্রসিদ্ধ বণিক রেলীব্রাদার ঐ কল কিনিয়া গলষ্ট সাহেবকে বিক্রয় করেন। উহা এখন উন্টাডিঙ্গিতে স্থানাপ্তরিত হইয়াছে। কলিকাতার উত্তরউপকণ্ঠস্থিত এঞ্জিলে ব্রাদারের কলেও গার্ণেট গালা প্রস্তম্ভ হয় । দমদমার নিকটে পিটে কিচিনো ব্রাদারের বড় গালার একটী কারখানা আছে। গালার রঙ, চিরপ্রসিদ্ধ। পদতলে জালতামাখা হিন্দুবালার বড়ই আদরের জিনিস। মুর্শিদাবাদ, রঘুনাথপুর প্রভৃতি স্থানে রেশমী বস্ত্রের স্থত আলতার রঙে রঞ্জিত হইয়া থাকে। এই আলতা চৰ্ম্মরোগেও বিশেষ উপকারী। পারে পাকুই বা হাজ হইলে অথবা গায়ে চুলকনা হইলে তাহার মুখে আলতা গুলির গাঢ় রঙ, টিপিয়া দিলে উপকার দর্শে। হিন্দুর আয়ুৰ্ব্বেদ-শাস্ত্রে লাক্ষাদি-তৈলে ইহার ভেষজ গুণ উল্লিখিত হইয়াছে। ইহার বর্ণ সৰ্ব্বাপেক্ষ আদরণীয়। কাপড় ছোপান ব্যতীত পূৰ্ব্বে এই বর্ণের সাহায্যে অপরাপর রঙ, প্রস্তুত করা হইত, ইহার রঙ, পাকা । গালা হইতে চুড়ী, ছড়ি, নানা গহন এবং বাগানাদি অতি চমৎকার খেলান দ্রব্য প্রস্তুত হইয়া থাকে। কুসুমী গালায় প্রস্তুত গলার হার ঠিক গিনি-সোণানিৰ্ম্মিত হারের স্তায় বোধ হয়। একটী ফলফুলপরিশোভিত উদ্যান-বাটিকা প্রস্তুত করিতে ইচ্ছা হইলে সহজেই গালার দ্বারা সাজান যাইতে পারে। গালার উপর যেখানে যে রঙ, লাগান আবশ্বক, তাহাও ঠিক সেইখানে দেওয়া যায় এবং উহার গাত্র পালিসের স্থায় মন্থণ ও চাকচিক্যশালী হইতে পারে। বাঙ্গালায় সোণামুখী ও কালা প্রভৃতি স্থানে গালার অলঙ্কার ও খেলানাদি প্রস্তুত হয়। কলিকাতা সহরেও কোন কোন কারিগর গালার খেলান প্রস্তুত করিতেছে। পঞ্জাব, সিন্ধু ও পাকপত্তনে প্রসিদ্ধ গালার খেলানীর কারখানা ( Lae-turnery ) আছে । কারখানায় প্রভাত গালার দ্রব্যগুলি য়ুরোপে Lacquerwork সামে XVII .• { اجساد ] sty লাক্ষ अडिशिङ । जनग्न कांtéब्र फें★ब्र भांण छमाहेब ठांशं८क ८६ কোন কাঠের আকারে পরিণত করা যায়। কাশীতে সাদা বঁখারিতে স্থতায় গাট বাধিয়া চীন বঁাশের লাটি প্রস্তুত করিতে দেখা যায়। এইরূপে তুঙ্গয় সুন্দর বাক্ষা, ফুলদানী, টেপার প্রভৃতি তৈয়ারী হয়। স্বর্ণালঙ্কারাদিতে গাল ভরিৰার প্রচলন আছে । 影 ভারতীয় লাক্ষাকার হইতে জাপানী লাক্ষাশিল্প স্বতন্ত্ৰ । estatăl șttką Bola siirtą ofiqrá Rhus Vernicifera নামক বৃক্ষের আটায় পালিস দিয়া থাকে। গালার পালিস স্বতন্ত্র। আলকোহলে টাচ গাল, খুনখারাপী, লোবান ও রুইমুস্তকী যোগ করিলে গালার পালিশ প্রস্তুত হয়। সাধারণতঃ বাক্ষ, মালমারী, দরজা জানাল প্রভৃতিতে ইহা লেপন করিয়া চাকচিক্য সম্পাদন করা হইয়া থাকে। r লক্ষ ও লাক্ষরঙের বাণিজ্য পূৰ্ব্বাপর সমর্তাবে চলিয়াছিল। ১৮৬৫ খৃষ্টাঙ্গে চাচগাল অপেক্ষা লাক্ষাবর্ণের দাম দ্বিগুণ বাড়িয়া উঠে। এই সময় নীলের চাস চলিতেছিল, নীলে রঙের উৎকৃষ্ট জমি হওয়ায় লাক্ষারঙের পরিবর্তে তাঁহাই ব্যবহৃত হইতে থাকে। নীলের আদরে লাক্ষারঙের হতাদর বাড়িয়া যায় । ১৮৭২ খৃষ্টাব্দে উহার দর একবারে কমিয়া যায়। ১৮৭৪ भूहेॉएकाग्र २१७ नरदषत्र छांबङ-श्रृंदर्भग्नेब्र दिञ्जांभएन फेश রপ্তানীর তালিকা হইতে উঠাইয়া দেওয়া হয়। কারণ তখন যুরোপীয় বাজারে উহার বিক্রয় না থাকায় আদৌ শুদ্ধ আদায়ের সম্ভাবনা ছিল না। এখনও লাক্ষার বাণিজ্য চলিতেছে। বৃটেনরাজ্যে ও আমেরিকার যুক্তরাজ্যে প্রভূত গালা রপ্তানী হইয়া থাকে। ফ্রান্স, অষ্ট্ৰীয়া, জৰ্ম্মণি, ইতালী, অষ্ট্রেলিয়া, বেলজিয়ম, চীন, ষ্ট্রেট সেটলমেন্ট, স্পেন ও হলও রাজ্যেও বাঙ্গালা হইতে লাক্ষা রপ্তানী হইয় থাকে। সমুদ্রগর্ভে যে তাড়িত বার্তাবহ-তার পরিচালিত হইয়াছে, তাহার উপর লাক্ষার আস্তরণ দেওয়া হয়। কারণ জল ও মৃত্তিক সংযোগে গালা নষ্ট হয় না। সুতরাং তাহার অত্যন্তরস্থ তারও নষ্ট হইতে পায় না । ইহার গুণ-কটু, তিক্ত, কষায়, প্লেয়, পিত্ত্বরোগ, শোক, বিষদোষ, রক্তদোষ ও বিষমজরনাশক এবং বলকর । ভাৰপ্রকাশ মতে, লাক্ষ বর্ণকর, শীতল, বলকর, স্নিগ্ধ, লঘু, কফ, পিত্ত, অক্স, হিক, কাস, জর, ব্রণ, উরক্ষত, বিসর্প, কৃমি, ও কুণ্ঠরোগনাশক। (ভাবপ্র” ) ভৈষজ্যরত্নাবলীতে লিখিত আছে যে, লাক্ষা নূতন গ্রহণ করিতে হইবে এবং উহা যেন মৃত্তিকাদি८मांबदकिंठ झब्र { “লাল চ মুতলা গ্রাহী স্মৃত্তিকাদিৰিবৰ্জ্জিত।” (ভৈষজ্যরড়া")