পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/৫০৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বনমানুষ অস্থিসংস্থান লক্ষ্য করিয়া বৈজ্ঞানিকগণ ইহাদিগঞ্চে ওরঙ্গ, শিম্পাঞ্জী ও গিবে নামে তিনটী স্বতন্ত্র থাকে বিভক্ত করিয়াছেন। এই ওরঙ্গ ও শিম্পাঞ্জীই আমাদের দেশে বনমানুষ নামে পরিচিত। মলয় দ্বীপের ভাষায় ‘ওরঙ্গ-উটান’ শব্দে বুনোমানুষ বুঝায়। এইঞ্জষ্ঠ তথাকার অধিবাসিবর্গ এবং বর্ণিও ও সুমাত্রাদ্বীপবাসিগণ দ্বিপদচারী এবং শাখা-মৃগের ন্যায় হস্তপদ-ব্যবহারকারী মনুষ্যাকার এই বন্ত পশুকে ওরঙ্গ-উটান শব্দেই উল্লেখ করিয়া থাকেন। পরে ইংরাজ-ভ্রমণকারীদিগের অনুগ্রহে এই ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জঞ্জাত জীব দেশীয় ভাষায় orang-outang শৰে পরিগুহীত হইয়াছে। প্রাণিতত্ত্ববিদ লিনিয়াস ইহাদিগকে Simia শ্ৰেণীভুক্ত করিয়াছেন । বৈজ্ঞানিকের ভাষায় ইহার Pithecus gifs: s Chimpanzeez got to oth বৈজ্ঞানিকগণ বানরশ্রেণীর জীবসত্ত্যকে (Simiada) আকৃতিপ্রভেদে, অথবা জাতিগত পার্থক্য অনুসাবে যেরূপ বিশিষ্ট থাকে বিভক্ত করিয়াছেন, নিম্নে তাহার একটা সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রদত্ত হঠল । ঐ তালিকা হইতে বানরের সহিত ইহাদের কতদূর পার্থক্য, তাহ! সহজেই উপলব্ধি হইবে । বানা (Simiadæ) | Hvbolatina: simina JI Colobinæ Papiominae উল্লুক (Grbuon) ( হনুমান ), ( নীলবানর ) | l - | শিম্পঞ্জী ( আফ্রিকা ) গরিলা ( আফ্রিক ) বনমানুষ (Troglodytes nigar) (Tr. gorilla) (Simia satyrus) { বিস্তৃত বিবরণ বানর শব্দে দেখ। ] এই বানর জাতির মধ্যে S. Satyrus শ্রেণীর বনমানুষ নামক পশুগুলি দেখিতে ঈষৎ লালবর্ণ। ইহাদের মুখাগ (muzzle) বিস্তৃত ও স্বচ্যগ্র এবং মূলদেশে কিছু গোল, কপাল ot-sifits csağl, est sfærisifs (Supraciliary ridges) হ্রস্ব, কিন্তু করোটীর উভয় পাশ্বাস্থি-মধ্যস্থ অগ্রপশ্চাদমুখী বাণ [ ¢०७ ] Cozănso (Sagittal and lamboidal crests) Ato দৃঢ়। মুখকোণ ৩ণ ; স্বকোষ ক্ষুদ্র, উভয় পার্থে দ্বাদশটা পল্পরাস্থি। বুক্কাস্থি zš stts frēzē (Stornum in double alternate row), o&# গুলফগ্রস্থিবিলৰী, পা লম্বা ও সরু, | অনেক সময় নখ থাকে না ; দ্বিতীয়বার দস্তোদগমের সময় | হস্থ ও তাহার আভ্যন্তরিক অস্থি সংযত হইয়া যায়। ইহার প্রায় ৫ ফিটের উচ্চ হয় না। সুমাত্রা ও বর্ণিও দ্বীপে ইহাদের | বাস আছে । জীবতত্ত্ববিদগণ বলেন, জীবজাতির পশু শ্রেণীর মধ্যে গরিলা বনমানুষ নামক পশু প্রথম স্থান অধিকারে সমর্থ। শিম্পাঞ্জী ঠিক তাঙ্কার নিমাসনে অধিষ্ঠিত এবং ওরঙ্গ-উটন তৃতীয় স্থানের অধিকারী । কারণ প্রাকৃতিক জ্ঞানেও ইহাদের মধ্যে তদনুরূপ পার্থক্য দৃষ্ট হয় । আশ্চর্য্যের বিষয়, ঐ তিন শ্রেণীর মধ্যে ওরঙ্গগণ সৰ্ব্বাপেক্ষ দীর্ঘাকার এব” সৰ্ব্বতোভাবে মমুষ্যের আকৃতিবিশিষ্ট । ইহাদের বক্ষ, বাহু ও হস্তের গঠন মানুষের স্তায় তুল্যপরিমাণবিশিষ্ট । মামুষেরও যেমন পরম্পরে আকৃতির ভেদাভেদ দৃষ্ট হয়, ইহাদের মধ্যেও সেইরূপ মুখাকৃতির ইতর বিশেষ আছে । ওরঙ্গের মধ্যে যাহাবা বেশী বুদ্ধিমান, তাছারা অনায়াসেই মুখের ভাবে ও হাবভাবে বিশেষ বিচক্ষণতার সহিত হৃদয়নিহিত ভাবগুলি প্রকটন করিতে সমর্থ এবং কোন কোন বনমানুষ মনুষ্যজাতির স্বভাবজাত হর্যক্রোধাদি বিভিন্ন মানসিক বৃত্তিও প্রকাশ করিতে পারে । ওরঙ্গ উড়ল । ইহারা ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জের বিভিন্ন দ্বীপের বনমালা-পরিব্যাপ্ত সমতল প্রাস্তরে বিচরণ করিয়া বেড়ায়। তথায় ইহার মধ্যমাকার বৃক্ষের ৪০ ফিট উচ্চ চুড়া অথবা মূধিক হইতে ২৫ ফিট, উচ্চে তেফাকুড়া ডালের উপর গাছের পাতা ও ভাঙ্গা ডাল