পাতা:বিশ্বকোষ ঊনবিংশ খণ্ড.djvu/৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিষ * [ १> ] বিষ दश्नकsइनिंद्र विशां१िकां८द्र शाद्द्र ७ छत्रभ८ङएम विरु দ্বিবিধ বলিয়া উক্ত হইয়াছে। তন্মধ্যে স্থাবর বিষের আশ্রয় দশটা এবং জঙ্গম বিষের আশ্রয় ষোলটা। স্থাবর বিষের দশ আশ্রয় স্থান যথা—মূল, পত্র, ফল, পুষ্প, ত্বক, ক্ষীর, সার, নিৰ্য্যাস, ধাতু এবং কলা । ੋ এই দশট অংশকে আশ্রয় করিয়া স্থাবর বিষ বিদ্যমান থাকে ; তন্মধ্যে মূল-বিষ করবীরাদি ; পত্র-বিৰ বিষপত্রিকাশি, ফলবিষ কর্কেটিকাদি, পুষ্প-বিষ বেত্ৰাদি, ত্বক, সার ও নিৰ্য্যাস বিষ করাগুদি, ক্ষীরবিষ মনসাসিজ প্রভৃতি, ধাতুবিষ হরিতালাদি এবং কন্দবিষ বৎসনাভাদি। জঙ্গম বিষের ষোলটা আশ্রয় স্থান যথা-দৃষ্টি, নিশ্বাস, দংষ্ট্র, নথ, মুর, পুরষ, শুক্র, লাল, আৰ্ত্তব, স্পর্শ, সনাংশ, অবশৰ্দ্ধিত ( বাতকৰ্ম্ম ), গুহ, অস্থি, পিত্ত এবং শুক। দিব্য সৰ্পের দৃষ্টি ও নিশ্বাসে বিষ ; ব্যাঘ্রাদির দশনে ও নখে বিষ ; গৃহগোধিকাদির ( টাকুটীক প্রভৃতির ) মূত্র ও পুৰীষে বিষ ; মূষিকাদির শুক্রে বিধ ; উচিটিকাদির লালায় বিষ ; চিত্রশীৰ্ষাদির লাল, স্পর্শ, মূত্র, পুরাধ, আৰ্ত্তপ, শুক্র, মুখসদংষ্ট্র, বাতকৰ্ম্ম ও গুহে বিষ, সপাবি অস্থিতে বিষ, শকুল মৎস্তাদির পিৰে বিষ এবং ভ্রমরাদির শূকে বিষ। স্থাৰ { fলম্বেল ক{যf এক্ষণে স্থাবণবধেব সাধাপণ কাগ্য গুলি বলা যাইতেছে। મૂન-જાવન તાજા-4ફ ત્રિમ ખરી: બ્રાસ ફરેન હાર્મિ દ્વારા মানবত বেদনা, মোহ এবং প্রণাপ হয়। পত্রবিষের কার্য্য — স্ত, কম্প এবং শ্বাস। ফলবিষের কার্য্য—অণ্ডকোষে শোথ দা এবং অন্নভক্ষণে অনিচ্ছা । পুষ্পবিষের কার্য্য—বমি, উদরাম্মান এবং মুস্থ । ত্বক, সার ও নিৰ্য্যাস বিষের কার্য্য— মুখে দুৰ্গন্ধ, দেহের কর্কশতা, শিরঃপীড়া এবং কফম্রাব। ক্ষাব বিষের কার্য্য—মুখে ফেনোগম, মলভেদ এবং জিহবার গুরুত্ব । ধাতুবিধের কার্য্য-হৃদযে বেদন ও তালুদাহ । উল্লিখিত ময়ট স্থাবববিষে প্রায়ই কালাস্তরে প্রাণ বিনষ্ট হয় । স্থাবর বিষের মধ্যে দশম কন্দবিষ-ইহ উগ্ৰবীৰ্য্যসম্পন্ন। এয়োদশ প্রকারে এই বিষের উল্লেখ আছে । ঐ সকল বিষকে পশ্চাদ্ভুক্ত দশ গুণাস্থিত বলিয়া জানিতে হইবে। বিষ স্থাবর, জঙ্গম কিম্বা কৃত্রিম, যে কোন প্রকার হউক না কেন, তাহা দশ গুণম্বিত হইলে সম্বই প্রাণ নাশ করে। সেইদশট গুণ যথা-রুক্ষ, উষ্ণ, তীক্ষ, সূক্ষ, আশুকারী বাবায়ী, বিকাশ, বিশদ, লঘু ও অপাকী। উক্ত দশগুণযুত বিষ রুক্ষগুণে বায়ু এবং উষ্ণগুণে পিত্ত ও রক্তকে প্রকুপিত করে। তীক্ষ গুণে বুদ্ধিভ্রংশ এবং মৰ্ম্মবন্ধন ছেদন করে। স্বল্পগুণে শরীরবিয়বে প্রবিষ্ট হইয়া তাহা বিকৃত বরিয়া দেয়। আগুকার গুণ থাকায় ঐ সকল কার্য শীঘ্র সুসম্পন্ন হয়। ব্যবাস্ত্রীগুণে প্রকৃতি এবং বিকাশী গুণে দোষ, * ধাতু ও মল বিনষ্ট করে। বিশদ গুণে অতিশয় বিরেচন জন্মায়। অপাকাগুণে অজীর্ণ জন্মে এবং লঘুত্ব গুণে ইহা इ*ि5कि९ष्ट श्झेब्र डेtठं । ऊंत्रम विरुग्न लक4 । পূৰ্ব্বে স্থাবরবিষের সাধারণ কাৰ্য্যগুলি বলা হইয়াছে । এক্ষণে জঙ্গমবিষের সাধারণ-কাৰ্য্য বলা যাইতেছে। ፆ निझ, उक], ক্লান্তি, দাহ, পাক, রোমাঞ্চ, শোথ এবং অতিসার এই কয়ট জঙ্গম বিষের সাধারণ কাৰ্য্য। এই সকল জঙ্গম বিষের মধ্যে সর্প বিষই তীক্ষতর ; সুতরাং অগ্রে সর্পবিষের কথাই উক্ত হইতেছে। সর্পজাতি চাবি শ্রেণীতে বিভক্ত। যথা-ভোগী, মগুলী, রাজিক ও দ্বন্দ্বরূপী। ভোগী অর্থে ফণাযুক্ত, মণ্ডলীসপ মণ্ডলাকাল চক্রশাল, রাঞ্জিকাশ্রেণীর গাত্র দীর্ঘ দীর্ঘ বেখাযুক্ত এবং দ্বন্দুরূপী সৰ্প মিশ্রিত রূপধারী। এই সকল যথাক্রমে বাতাত্মক, পিস্তুষ্মক, কফাত্মক এবং দ্বিদোষাত্মক । ফণাবিশিষ্ট ভোগীসপ বিংশতি প্রকার। মণ্ডলী সর্পগুলি নানাবর্ণে চিত্রিত স্থল ও ধীরগামী । ইহা ছয় প্রকার । অগ্নি ও রৌদ্রের উত্ত্বাপে ইষ্ঠীর বিধ বেগবান হয়। রাজিক সৰ্প স্নিগ্ধ, তির্যাগগামী ও নানাবর্ণে রেখায় বিচিত্রবণে বিরাজিত, গ্রহ ও চয় প্রকার । [ এতৎসম্বন্ধে “সর্পবিষ" শব্দে সখ্রিস্তর দ্রষ্টব্য। । সৰ্পদঃ স্থানের লক্ষণ । ভোগী জাতীয় সৰ্পে দংশন করিলে দষ্ট স্থান কৃষ্ণবর্ণ ইষ্টযু উঠে এবং রোগী সৰ্ব্ব প্রকাবে বাতবিকার বিশিষ্ট হয়। মণ্ডলী সপের দংশনে দঃস্থান পীতবর্ণ শোথমুক্ত ও মৃত্যু হয় এবং রোগীকে পিস্তবিকারগ্রস্ত হইতে দেখা যায় । রঞ্জিকা জাতীয় সর্ণের ংশনে দুষ্ট স্থান স্থির শোধমুক্ত, পিচ্ছিল, পা ধুবৰ্ণ, স্নিগ্ধ ও অতিশয় গাঢ় রক্তযুক্ত হয় এবং রোগী সকল প্রকার শ্লেষ্মবিকাণ&ड श्ंग्र।। १iःक । fধশলিপ্ত শস্ত্রীঘাতের লক্ষণ । শত্র কর্তৃক বিষলিপ্ত শস্ত্র দ্বাবা মাহত হইলে সপ্তই মেষ্ট ক্ষত স্থান পাকিয় উঠে, ক্ষত হইতে রক্তস্রাব হয়, ও পুতি মাংস খসিয়া পড়ে। ক্ষত স্থান পুনঃ পুন: পকে এবং কৃষ্টপূর্ণ ? ক্লেদযুক্ত তুষ্টয় উঠে। পরস্তু রোণীর পিপাসা, অস্তদা, বহির্দাহ ও মুচ্ছ হয় । অন্ত প্রকাবে উৎপন্ন ক্ষতস্থানে বিষ প্রদত্ত হইলেও ঐ সকল লক্ষণ হইয়া থাকে । রাজা মহারাজদিগের শত্রু পদে পদে শত্রর প্রায়ই র্তাহ: দিগের অস্নাদিতে গুপ্তভাবে বিষ মিশষ্টয়া দেওয়ার চেষ্টা করে । বুদ্ধিমান ইঙ্গিতজ্ঞ চিকিৎসক বাক্য, চেষ্টা ও মুখের বিবর্ণাদি লক্ষণ দেখিয়া উক্ত বিষদাতা • ক্রকে চিনিয়া বাহির করবেন।