পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/১৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাগুরা [ ১৬০ ] পাণ্ডব একটী বড় রকমের বাজার অাছে। এখানে লোহার গরাদ, , কড়ি, শৃঙ্গনিৰ্ম্মিত চিরুণি প্রভৃতি প্রস্তুত হইয়া থাকে। পাণিহোম (পুং ) পাণে হোমঃ ৭তৎ। পাত্র ব্রাহ্মণদিগের পণিতে কৰ্ত্তব্য হোম বিশেষ । শ্রদ্ধাদি কার্য্যে ব্রাহ্মণ পিতৃগণের ਚੋਂ পাণিতে হোম করিবেন । পুৰ্ব্বে শ্রাদ্ধাদিতে ব্রাহ্মণ নিমন্ত্রণ করিয়া শ্রাঞ্চকার্য্য সম্পন্ন হইত, এখন কুশময় ত্ৰাহ্মণ স্বারা শ্রাদ্ধকার্য্য সম্পন্ন হইয়া থাকে । ব্রাহ্মণ স্বয়ং উপস্থিত থাকিলে পাণিতে হোম বিধেয় । কুশময় ব্রাহ্মণ স্থলে জলে হোম করিতে হইবে । "অগ্ন্যভাবে তু বিপ্রস্ত পাণবেব e লেইপি চ - ( শ্রাদ্ধতত্ব ) পাণীতক ( পুং ) কুমার:হুচর ভেদ ভারত শল্য ৪৬ অ’ ) পাণীতল (রী ) গণিতলং নিপাতনাৎ দীর্ঘ । তোলকদ্বয় । ‘বিড়ালপদকযে চ পাণিতলসুড় স্বয়ম্।’ ( শলমা” ) পাণেীকরণ ( ক্লী ) পানে ক্রিয়তেইনেল অস্মিণ বী, কু-লুটু, সপ্তম্যঃ অলুক্‌ । বিবাহ । ( জটাধর ) প{গু (ত্রি ) পও এব স্বার্থে অং। পণ্ড । পাওক (পুং ) একজন বৈদিকাচাৰ্য্য । পাগুর (রী ) পাগুরো বর্ণেহস্তান্তেতি আছ । ১ কুলপুষ্প, কুনাফুল । ২ গৈরিক ( শকমা ) ( পুং ) পাগুয়ঃ শুক্লবর্ণ অস্ত্যস্তেতি অঙ্ক। ৩ মরুবক বৃক্ষ। পড়ি-অর, দীর্ঘশ্চ । ৪ শুক্লবৰ্ণ । ৫ পৰ্ব্বত বিশেষ । এই পৰ্ব্বত মেরুর পশ্চিমদিকে অবস্থিত । “অঙ্কন: কুকুটঃ কৃষ্ণ: পাগুরশাচলোত্তমঃ । পশ্চিমেন তথামেরোৰ্বিস্ব গু!ং পশ্চিমাদ্বছি ৷” ( মার্কণ্ডেরপুং ৫৫।১s ) ও ঐরাবতকুলেtৎপন্ন নাগবিশেষ । (ভারত ১।৫৭।১১-১২) ৭ পক্ষিবিশেষ । জ্যোতিস্তত্ত্বে লিখিত অাছে—এই পক্ষী যাহার গৃহে পতিত হয়, তাঙ্কার গৃহে বিপদ হইয় থাকে । "গৃএঃ কঙ্কঃ কপোতশ্চ উলুকঃ প্তেন এব চ। চিল্লশ্চ ধৰ্ম্মচিল্লশ ভাসঃ পাওর এল চ | গৃহে যস্ত পতস্তোতে গেহং তস্ত বিপদ্যতে ॥" ( জ্যোতিস্তৰ ) ( ত্রি ) ৮ তদ্বর্ণবিশিষ্ট, পাগুরবর্ণযুক্ত । (হরিব” ৮২।৫ • ) পাগুরপুম্পিক ( স্ত্রী ) পাগুরং শুক্লবৰ্ণং পুষ্পং যন্তাঃ, কপ্‌ ততঃ কপি অত ইত্বং । শীতলাবৃক্ষ । ( শব্দচ” ) পাগুর, ছয় হস্তবিশিষ্ট-পদ্মপাণির শক্তিমূর্দুি। ইহার মস্তকোপরি অমিতাভ বুদ্ধের মূৰ্ত্তি থাকে। বামহস্তে বোতলের স্থায় একটা দ্রব্য, দক্ষিণদিকের এক হস্ততলে চক্র, বৃদ্ধাঙ্গুষ্ঠ ও তৰ্জ্জনী মধ্যে মণি থাকে । ইহা ভিন্ন দুই পাশ্বে ছুইটী শ্ৰীমূৰ্ত্তি দণ্ডায়মান । দক্ষিণদিগের স্ত্রীলোকের হস্তে একটা বোতল ও মণি এবং খামদিগের স্ত্রীলোকের বামহস্তে পদ্ম ও দক্ষিণহস্তে গোলাকায় একটী পদার্থ অাছে । এইরূপ প্রতিমূৰ্ত্তি কুর্কিহারে ও নেপালে পাওয়া গিয়াছে। কাহারও মতে ইনি বুদ্ধ অমিতাভের শক্তি । - পাণ্ডব (পুং ) পাণ্ডেী স্তদাখায় প্রসিদ্ধস্ত রাঙ্কোইপত্যং পাণ্ডুঅঞ, ( ওয়এ। পা ৪।২৭১ ) পা গুনন্দন, পাণ্ডু নৃপের ক্ষেত্ৰজ ধৰ্ম্মাদি হইতে জাত যুধিষ্ঠিরাদি পুত্ৰগণ। পাণ্ডবগণের উৎপত্ত্বির বিষয় মহাভারতে এইরূপ লিখিত আছে,— ধৰ্ম্মাত্মা পাণ্ডু মাত্রী ও কুন্ঠীনামে দুই পক্ট্রীয় সহিত অরণ্যে অবস্থান করিতে ছিলেন। মুনিশাপে পাণ্ডুর সন্তানোৎপাদনশক্তি রুদ্ধ হইয়াছিল । এই জন্য পাণ্ডু অতিশয় খিয়মনে সৰ্ব্বদা অবস্থান করিতেন । পুত্ৰ ন হইলে পিতৃঋণ হইতে উদ্ধায় হওয়া যায় না, এই জন্ত একদা পাণ্ডু ধৰ্ম্মপত্নী কুষ্ঠীকে নির্জন স্থানে আহবান করিয়া কহিলেন, কুস্তি ! আমি মুনিশাপে পুত্রোৎপাদনে অক্ষম, অতএব তুমি এই আপৎকালে অপতোtৎপাদনে যত্নপতী হও । দেখ, ধৰ্ম্মবাদীরা চিরকাল কষ্ঠিয়। থাকেন যে, সস্থান এই ত্রিলোকমধ্যে ধৰ্ম্মময়-প্রতিষ্ঠা স্বরূপ ছইয়াছে । ধাগামুষ্ঠান, দীন, ও তপস্তা উত্তমরূপে অতুষ্ঠিত হইলেও নিঃসস্তান ব্যক্তির পক্ষে পবিত্রকারী হয় না । এমন কি নিঃসন্তান ব্যক্তির কোন লোকই শুভাবহ লহে । কুন্তী পাণ্ডুর এই কথা শুনিয়া বিনয়নম্রবাক্যে কছিলেন, হে ধৰ্ম্মজ্ঞ ! আমি আপনার ধৰ্ম্মপত্নী এবং আপনাতেই অনুরক্ত ; BBB BBK BBS BB BB BBB BSBBB BSBB নহে । যেহেতু আপনি ব্যতীত আমি মনে কখনও জন্য পুরুষে গমন করিতে অভিলাষ করি না। ধৰ্ম্মজ্ঞ পাণ্ডু কুন্তী দেবীর এইরূপ নানা প্রকার যুক্তিযুক্ত বাক্য শুনিয়া পুনৰ্ব্বার তাছাকে উত্তম ধৰ্ম্মসংযুক্ত বাক্যে কছিলেন, হে কুস্তি ? তুমি যাহ! বলিলে তাঙ্ক। যথার্থ বটে, কিন্তু হে রাজপুত্ৰি ! বেদবিদগণ ইহাও বলেন যে, ধৰ্ম্মই হউক বা অধৰ্ম্মষ্ট হউক, তর্ক ভাৰ্য্যাকে যেরূপ বলিবেন, ভাৰ্য্যার তাহ সম্পন্ন করা কর্তব্য । বিশেষতঃ আমি মুনিশীপে অপত্যেtৎপাদিক-শক্তিবিহীন হুইয়াছি, অথচ পুত্রলাভের অভিলাষ নিতান্তু প্রবল, অতএব হে শুভে ! আমি পুত্রদর্শনবাসনায় তোমাকে প্রসন্না করিতেছি । সুকেশি ! তুমি আমার নিয়োগাকুসারে সমধিক তপঃসম্পন্ন ব্রাহ্মণ হইতে গুণবানু পুত্র উৎপাদন কয়, তোমা হইতেই আমি পুত্রবান ব্যক্তিদিগের গতি লাভ করি । পতিরত। কুষ্ঠী স্বামীর এইরূপ ৰিবিধ উপদেশ বাক্য গুনিয়া কহিলেন, রাহুম্ ! আমি বাল্যাৰস্থায় পিতৃগৃহে অতিথি সেবায় দুৰ্ব্বাস ঋষিকে পরিতুষ্ট করিয়াছিলাম, তাহাতে তিনি