পাতা:বিশ্বকোষ একাদশ খণ্ড.djvu/৬৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুরাণ (স্বলী ) প্রবেশ-কথন, ১৭ ব্যাসভিক্ষাটনবর্ণন, ১৮ ব্যাসক্ষেত্ৰকথা, ১৯ অদাভোশ্বরমাহাত্মাবর্ণন, ২• কাশীধৰ্ম্মনিরূপণ, ২১ ব্যাসচরিত্রবর্ণন । فينية ২য় সূতসংহিত। ১ম শিবমাহাস্থ্যখণ্ডে-১ গ্রন্থাবতীর, ২ পাশুপতত্রত, ৩ নমীশ্বর বিষ্ণুসংবাদে ঈশ্বরপ্রতিপাদন, ৪ ঈশ্বরপূজাবিধান ও তৎপূজাফলকথন, ৫ শক্তিপূজাবিধি, ৬ শিবভক্তপূজা, ৭ মুক্তিসাধন, ৮ কালপরিমাণ, তদনবচ্ছিাস্বরূপ-কথন, ৯ পৃথিবীর উদ্ধরণ, ১• ব্ৰহ্ম কর্তৃক সৃষ্টিকথা, ১১ হিরণ্যগৰ্ভাদি বিশেষ সৃষ্টি, ১২ জাতিনির্ণয়, ১৩ তীর্থমাহাত্মা । ২য় জ্ঞানযোগখণ্ডে—১ জ্ঞানযোগসম্প্রদায় পরম্পর, ২ আত্মহষ্টি, ৩ ব্ৰহ্মচৰ্য্যাশ্রমবিধি, ৪ গৃহাশ্রমবিধি, ৫ বানপ্রস্থাশ্রমবিধি, ৬ সন্ন্যালবিধি, ৭ প্রায়শ্চিত্ত্বকথা, ৮ দানধৰ্ম্মফল, ৯ পাপকৰ্ম্মফল, ১০ পিণ্ডোৎপত্তি, ১১ নাড়ীচত্র, ১২ নাড়ীগুদ্ধি, ১৩ অষ্টাঙ্গযোগে যমবিধি, ১৪ নিয়মবিধি, ১৫ আসনবিধান, ১৬ প্রাণীয়ামবিধি, ১৭ প্রত্যাহারবিধান, ১৮ ধারণাবিধি, ১৯ ধ্যানৰিধি, ২ • সমাধি । ৩য় মুক্তিখণ্ডে-১ মুক্তি, মুক্ত,পায়, মোচক ও মুক্তিপ্রদ চতুর্কিধপ্রশ্ন, ২ মুক্তিভেদ-কথন ৩ মুক্ত পায় কথন, ৪ মোচক কথন, ৫ মোচনপ্রদ কথন, ৬ জ্ঞানোৎপত্তি-কথন, ৭ গুরুপ্রসাদন ও শুশ্রষণ-মহিমা, ৮ ব্যাস্ত্রপুরে দেবতাদিগের উপদেশ, ৯ ঈশ্বরের নৃতাদর্শন । ৪র্থ যজ্ঞবৈভবথণ্ডে অধোভাগে–১

বেদার্থপ্রশ্ন, ২ পরাপরবেদার্থৰিচার, ৩ কৰ্ম্মযজ্ঞবৈভব, ৪ বাচিক যজ্ঞ, ৫ প্রণববিচার, [ ৬৬৩ ] ৬ গায়ত্রীপ্রপঞ্চ, ৭ আত্মমন্ত্র, ৮ ষড়ক্ষরবিচার, ৯ ধ্যানযজ্ঞ, ১• জ্ঞানযজ্ঞ, ১১-১৫ জ্ঞানযজ্ঞবিশেষাদি, ১৬ জ্ঞানোৎপত্তি- | কারণ, ১৭ বৈরাগ্যবিচার, ১৮ অনিত্যবস্তুবিচার, ১৯ নিতাবস্তুবিচার, ২ • বিশিষ্টধৰ্ম্মবিচার, ২১ মুক্তিসাধনবিচার, ২২ মার্গ- ; প্রামাণ্য, ২৩ শঙ্কর প্রসাদ, ২৪-২৫ প্রসাদবৈভব, ২৬ শিবভক্তিবিচার, ২৭ পরপদস্বরূপবিচার, ১৮ শিবলিঙ্গস্বরূপ কথন, ২৯ শিবস্থানবিচার, ৩. ভস্মধারণলৈড়ব, ৩১ শিবপ্রতিকর ব্রহ্মৈকবিজ্ঞান, ৩২ ভক্তাভাব কারণ, ৩৩ পরতত্ত্বনামবিচার, ৩৪ মহাদেবপ্রসাদকারণ, ৩৫ সম্প্রদায়-পরম্পরাবিচার, ৩৬ সদ্যোমুক্তিকরক্ষেত্রমহিমা, ৩৭ মুক্ত পায়বিচার, ৩৮ মুক্তিসাধনবিচার, ৩৯ বেদাদির অবিরোধ, ... সৰ্ব্বসিদ্ধিকর কৰ্ম্মবিচার, ৪১ পাতকবিচার, ৪২ প্রায়শ্চিভবিচার, ৪৩ পাপশুদ্ধ পায়, ৪৪ দ্রব্যগুদ্ধ পায়, as অভক্ষ্যনিবৃত্তি, ৪৬ মৃত্যুস্থচক, ৪৭ অবশিষ্ট পাপস্বরূপ কথন । উপরিভাগে-১ ব্রহ্মগীত, ২ ৰেদার্থৰিচার, ৩ সাক্ষিদ্বন্ধপকথন, পুরাণ (স্কন্দ) ৪ সাক্ষস্তিত্বকথন, ও আদেশকখন, উহয়েtণালন, ৭ বন্ধস্বরূপবিচার, ৮ তত্ত্ববেদবিধি, ৯ আনন্দস্বরূপকথন, ১• আত্মার ব্ৰহ্মতত্ত্ব প্রতিপাদন, ১১ ব্রহ্মার সর্বশরীরে স্থিতিকথা, ১২ শিবের অহংপ্রত্যয়াশ্রয়স্থ, ১৩ স্বতগীত, ১৪ আত্ম কর্তৃক স্বষ্টি, ১৫ সামাগুহুষ্টি, ১৬ বিশেষ স্বষ্টি, ১৭ আত্মস্বরূপকথন, ১৮ সৰ্ব্বশাস্ত্রার্থসংগ্রহ, ১৯ রহস্তবিচার, ২০ সৰ্ব্ববেদান্তসংগ্ৰহ । ७ग्न *कग्नन६fहठ । এই শঙ্করসংহিতা আবার নানাখণ্ডে বিভক্ত, তন্মধ্যে শিবরহস্তখগুই প্রধান । এই শিবরহস্তখওে লিখিত আছে— “তত্র যা সংহিতা প্রোক্ত শঙ্করী বেদসন্মিত । ত্রিংশৎসহস্রৈ গ্রন্থানাং বিস্তরেণ সুবিস্তৃত ॥ ৬• আদেী শিবরহস্যাখ্যং খণ্ডমদা বদমি বঃ । তত্ৰয়োদশসাহত্ৰৈঃ সপ্তকাগুৈরলঙ্কৃতম্ ॥ ৬১ পুৰ্ব্বঃ সম্ভবকাণ্ডাখো দ্বিতীয়ত্ত্বাস্বরঃ স্বতঃ। মাহেগ্ৰস্তু তৃতীয়ে হি যুদ্ধকাগুন্ততঃ স্মৃত ॥ ৬২ পঞ্চমে দেবকাগুখ্যে দক্ষকাগুস্ততঃ পরম্। সপ্তমস্ত মুনিশ্রেষ্ঠ উপদেশ ইতি স্থতঃ ” ৬৩ এই স্কন্দপুরাণে বেদসন্মিত শঙ্করসংহিতা ৩• • • • গ্রন্থে সবিস্তর বর্ণিত হইয়াছে । ইহার প্রথমখণ্ডের নাম শিবরহস্ত, ইহার শ্লোকসংখ্যা ১৩• • • ও ইহা সপ্তকাণ্ডে বিভক্ত। এথম সম্ভবকাগু, দ্বিতীয় আসুরকাগু, তৃতীয় মাহেঞ্জকাগু, চতুর্থ যুদ্ধকী গু, পঞ্চম দেবকীগু, ষষ্ঠ দক্ষকাণ্ড এবং সপ্তম উপদেশকাণ্ড । ১ম সস্তবকাণ্ডে—১ স্বতশৌনকসংবাদ শিবের আদেশে বিষ্ণুর ব্যাসরূপে অবতার ও অষ্টাদশপুরাণ-সঙ্কলন, যে যে পুরাণে ব্ৰহ্মাদি দেবগণের অন্যতমের মাহাত্ম্য কথিত হইয়াছে, সেই সেই পুরাণের নাম-কীৰ্ত্তন, স্কন্দপুরাণান্তর্গত ফটুসংহিতার নাম কথন, ৩ দক্ষিণয়ণীর শিবনিন্দাশ্রবণে নিজদেহত্যাগ ও মায়ামী হিমালয় কন্যারূপে আবির্ভাব, ৪ শুরপদ্ম প্রভৃতি অস্বরগণের উপদ্রবে পীড়িত ষ্টগ্রাদি দেবগণের ব্ৰক্ষার নিকট গমনকথা, ও ব্রহ্মার নিকট শূরপদ্ম, সিংহবন্ত ও তার কাসুর প্রভৃতির পরাক্রম ও ইঞ্জাদির ক্লেশবিজ্ঞাপন, ৬ ষ্টগ্রাদি দেবগণসহ ব্ৰহ্মার বৈকণ্ঠে গমন ও বিষ্ণুর নিকট অসুরদিগের উপদ্রব-কথন, ৭ ব্ৰহ্মাদিসহ নারায়ণের কৈলাসে গমন ও শিবের নিকট অঙ্গর কর্তৃক দেবপরীভব-বর্ণন, ৮ কাৰ্ত্তিক উৎপাদনপূর্বক অস্থর সংহার করিব ইত্যাদি বাক্যে বিষ্ণু প্রভৃতিকে আশ্বাস দিয়৷ শিবের সমাধি-অবলম্বন, ৮-১• শিবের সমাধি ভঙ্গ করিবার জন্য দেবাদেশে মদনের কৈলাসে গমন ও সমাধিভঙ্গের উপায় চিত্তন, ১১ শিবের সমাধিভঙ্গ ও মদনভস্ম, মদনের পুনর্জীবন জন্য রতির প্রার্থন, পাৰ্ব্বতীকে ছলনা করিৰার জন্য বৃদ্ধ ব্ৰাহ্মণ