পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/২১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভক্তিযোগ [ ২১৭ ] ভুক্তিরস 文棘

  • ভগবানের প্রিয় ।

“ভক্তিৰোগপ্রধাশার লোকস্তান্থগ্রহায় চ। गब्रrोगोंथथबांविठा क्लकटेकङछनामभूकू ॥” (रेकङछछां• ) গীতায় ১২ অধ্যায়ে ভক্তিযোগের বিষয় লিখিত হইয়াছে। *এবং সততযুক্ত যে তক্তাৰাং পযু পালতে । বে চাপাক্ষরুমীক্তং তেষাং কে ধোগবিত্তমাঃ "(গীতা১২১) অর্জন ভগবানকে জিজ্ঞাসা কম্বিয়াছিলেন, নিগুণ ও সগুণ ব্রহ্মের র্যাহারা উপাসনা করেন, তাছাদের মধ্যে কে শ্ৰেষ্ঠ ; ভগবান শ্ৰীকৃষ্ণ তাহার উত্তরে বলিয়াছিলেন, যে ব্যক্তি একাগ্রচিত্তে এবং সাত্বিক-শ্রদ্ধাযুক্ত হইয়া আমার সগুণ-স্বরূপের আরাধনা করেন, তিনিই শ্রেষ্ঠ । ইহার তাৎপৰ্য্য এই যে, লগুণ বা লাকাররূপে র্যাহার চিত্তের একাগ্র আবেশ হয় অর্থাৎ যিনি একমাত্র গতিত্বং বলিয়া অনন্তভাবে প্রতি-পূর্ণচিত্তে ভগবানের শরণাগত হন, তিনিই ভগবৎ-স্বরূপ লাভ করিয়া থাকেন। “আমি ভগবানের উপাসনা করিতেছি, ইনি নিশ্চয়ই আমাকে উদ্ধার করিবেন এইরূপ আস্তিক্য বুদ্ধিতে র্যাহার সাত্বিক-শ্রদ্ধার উদয় হয় এবং যিনি নিজ আরাধ্যরূপকে সৰ্ব্বস্ব ও সৰ্ব্বকল্যাণবিধাতা জানিয়া ভক্তিপুর্ণচিত্তে তাহারই ভজন করেন, তিনিই শ্রেষ্ঠ, অর্থাৎ ভক্তযোগী । ধিনি সৰ্ব্বদা সম্ভঃ, সমাহিত চিত্ত, সংযতাত্মা ও দৃঢ়নিশ্চয় এবং ধিনি নিজ মনোবুদ্ধি কৃষ্ণে মর্পণ করিয়াছেন, তিনিই শ্রেষ্ঠ, অর্থাং যিনি প্রাপ্তি বা অপ্রাপ্তিতে, সম্পদে বা বিপদে সন্তুষ্ট থাকেন, যিনি সৰ্ব্বদাই ভগবানে নিবিষ্টচিত্ত, শরীর ও ইঞ্জিয়াদি যাহার স্ববশ হইয়াছে, যাহার ভগবানে দৃঢ়বিশ্বাস অর্থাং কোন প্রকার কুতর্কে যাহার চিত্ত ভগবদ ভাব হইতে বিচলিত হয় না ও যিনি সংকল্প-বিকল্প ছাড়িয়া মন ও বুদ্ধিকে ভগবানেই সমর্পণ করিয়াছেন, সেইরূপ ভক্তই যাহার দ্বারা কোন লোক সস্তপ্ত হয় না অথবা যিনি অঙ্ক কর্তৃক নিজেও সস্তপ্ত হন না এবং ধিনি হর্ষ, বিষাদ, ভয় ও উদ্বেগ পরিত্যাগ করিয়াছেন, তিনিই ভগবানের প্রিয়। ধিনি নিরপেক্ষ, গুচি, দক্ষ, উদাসীন, ব্যথাবজ্জিত ও সৰ্ব্বারভপরিত্যাগী এবং যিনি ইষ্ট লাভে সন্তোষ বা দুঃখ হেতু দ্বেষ প্রকাশ করেন না, যিনি শোক বা আকাঙ্ক পরিশুদ্য এবং শুভাশুত পরিত্যাগী, এতাদৃশ ভক্তই ভগবানের প্রিয়। যাহার শত্রু ও মিত্র, শীত ও উষ্ণ, মান ও অপমান, মুখ ও ছাৰ সমস্তই সমান, তাদৃশ ভক্তিবিশিষ্ট তক্তই ভগবানের প্রিয়।• ভক্তিরস (পুং ) ঃ ঈশ্বরবিষয়া ভুক্তিরেব রসঃ । তৎস্থাদি ভাবক রসতেদ । যে রসের স্থাদ্বিভাৰ ভক্তি । * “বিভাৰৈয়ভুক্তাবৈশ্চ সাবিষ্কৈৰ্য্যভিচারিভিঃ। স্বাভাং জ্বদি ভক্তানামানীত শ্রবণাদিভিঃ ॥ এষা কৃষ্ণরতিঃ স্থায়িভাবে ভক্তিরসে ভবেৎ ॥* ( ভক্তিরসাস্থতলিঙ্ক ) ঈশ্বরে রতি স্থায়িত্তাষ প্রাপ্ত হইলে তক্তিরসের উদয় श्हेब्रा थाटक । oहे हॉब्रिडांव दिङॉय, अशृङाय, गांपिक ख সঞ্চারিভাব পছৰোগে ভক্তিয়সল্পপে পরিশক্তি পায়। তখন ভক্ত এক অপূৰ্ব্ব ভক্তিরসের স্বাদ পাই থাকেন । ঈশ্বর ७ ॐीशङ्ग फङ जांगषम-बिछांब, जेश्tब्रब्र ७*ांशि ५व१ फरख्य ঈশ্বরজম্ভ চেষ্টাদি উদ্দীপন-ৰিতাৰ । স্তম্ভ, স্বেদ, রোমাঞ্চ, স্বল্পভেদ, কম্প, ৰৈৰণ্য, অশ্র, প্ৰলয় ( স্থখছুঃখাদি বোধপুস্ততা) এই সকল সাৰিক-ভাব। নিৰ্ব্বেদ, বিষাদ, দৈছ, গ্লানি প্রভৃতি তেত্ৰিশটা সঞ্চাল্পী-ভাব। ঈশ্বরে রতি পাত্র ভেদে ভিন্ন হয়। শাস্তু, দাস্ত, সখ্য, বাৎসল্য, প্রিয়ত, এই পাচপ্রকারে উহা প্রকাশ পাইয়া থাকে। কোন সাধকে ইহার এক একটা মাত্র প্রকাশ পাইলে, তাহাকে কেবলা রতি কহে এবং উহা বিমিশ্রভাবে উপস্থিত হইলে, সন্ধুলা রতি নামে পরিচিত হয় । কিন্তু এতন্মধ্যে যেটা প্রধানত: প্রকাশ পায়, তদনুসারে সাধকের ভাব নিরূপিত হইয়া থাকে। ( ভক্তিচৈতম্ভচঙ্গিক। ) ভক্তিরসামৃতসিন্ধুতে লিখিত আছে— বিভাব, অমু ভাব, সাত্ত্বিকভাব ও সঞ্চায়িভাৰ দ্বার। অভিব্যক্ত গ্ৰীকৃষ্ণবিষয়ি-স্থায়িম্ভাব, শ্রবণাদি দ্বারা ভক্তগণের হৃদয়ে মাস্বাদাঙ্কুরতা প্রাপ্ত হইয়া ভক্তিরল রূপে পরিণত ছয় । • মৰ্যাঙ্গে মনে ক্ষে মাং দিভ্যযুঙ্গ উপসন্তে । ब्वनिः श्रुट्शिखण्खि cष षुषश्छशं बलिः ॥ “*२ XIII ●● লঙ্কই: সততং যোগী বস্তাত্মা দৃঢ়মিশ্চয়: । মষ্যাৰ্পতমনোবুদ্ধিৰ্বে মে ভক্ত: স মে ত্ৰিয়: । খন্মায়োদৰিঙ্গতে লোকো লোক্ষাঙ্কোৰিজন্তে চ য: | হধামর্বতরোৰেগৈধুক্তে য: স চ মে প্রিয়ঃ ॥ জনপেক্ষ: শুচিস্কি উদাসীমে গন্তব্যঞ্চ । সৰ্ব্বারভপরিত্যাগী যে মে ভক্ত: স মে প্রিশ্নঃ ॥ 'ஆர் ஈ হ্যক্তি নষ্টেম শোচতি লক্তি। গুণ্ডাগুঞ্চপরিত্যাগী গুক্তিমান য: স মে প্রিয়: । शमः ॰प्यौ 5 बॆिप्य ६ एठ५। भोजाश्रमात्रनिीः । গীতোষ্ণস্থপন্থ:খেষু সম: সঙ্গবিবর্জিত: | छूनानिणाचख्रिबोनी नख्डे। cयन ८कन*ि९ ।। चविंश्; fवाञ्छिंख्रिबालु cs fयग्यं लङ्गः ॥ (গীত গুলিবোগোলাঙ্গ ১২ জধ্যার ৭, ১০-৯৯ গ্লোক ) 蛟