পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৬০৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ভোজবিদ্যা s Woo & } ভোক্তবিদ্যা

  • ৪ নমো বরজালিনী সঞ্চলোকবশঙ্করী স্বাহা’ এই মন্ত্র । অষ্টোত্তর সহস্রবার জপ করিয়া সিদ্ধ হইলে, পরে অপামার্গের । মূল ও গোরোচনা একত্র পেষণ করিয়া কপালে তিলক করিলে ত্ৰিজগং বশীভুত করিতে পারা যায় ।

পেচকের চক্ষু আনিয়। তাছার সহিত গোরোচনা মিশ্রিত ' করিয়া যাহাকে জলের সহিত পান করিতে দিবে, সেই ব্যক্তি বশীভূত হইবে। ● } পেচকের দুই কৰ্ণ এবং চটক পক্ষার চক্ষু, এই দুই দ্রব্য | একত্র চুর্ণ করবে। এই চূর্ণ দ্বার। কপালে তিলক করিলে জগং বশীভূত করিতে পারা যায় । আর এই চুণ কোন i ব্যক্তির ভক্ষ্য দ্রব্য ও পানীয় জলের সহিত প্রদান করিলে অথবা গন্ধ দ্রব্য ও পুষ্পের সাহত মাস্ত্ৰাণ করাহলে কিংব। কোন ব্যক্তির মস্তকে অর্পণ করিলে সেই সেহ ব্যক্তি বশীভুত । হইয়া থাকে। ও হ্রা ক্রু স্ত্রী ম: ছে: ফটু নমঃ’ এই মন্ত্র সহস্ৰ বার জপ করিয়া পেচকের মাংস, কুস্কুম, অগুর, রক্ত চন্দন ও গোরোচনা এই সকল দ্রব্য সমপরিমাণে একত্র পেষণ করিয়া ভক্ষণে কিংবা পানে প্রদান করিলে ত্রিজগৎ বশীভুত ছয় । ইহাতে স্ত্রা বা পুরুষ সকলেহ বশীভূত হইয়া থাকে। পূৰ্ব্ব দিবস উপবাসী থাকিয়া রাখালশপার মূল উত্তোলন করিবে । পরে উত্তরাভিমুখী হইয়। উদুখলে ঐ মূল কুটিত করিবে। পরে ঐ কন্ধ ও ত্রিকটু অর্থাং মরিচ, পিপুল, ও শুঠ তুল্য পরিমাণে লইয়া ছাগদুগ্ধে পেষণপুৰ্ব্বক ছায়াতে শুষ্ক করিয়া বটা করিবে । তৎপরে ঐ বটিক ও রক্তচন্দন একত্র ঘর্ষণ করিয়া স্বীয় অঙ্গুলীতে লেপনপূরক যাহাকে স্পর্শ করিবে, সেই ব্যক্তি বশীভূত হইবে। পূৰ্ব্বোক্ত বট, দেবদারু, ও শ্বেতচন্দন তুল্য পরি মাণে লইয়া একত্র জলে ঘর্ষণ করিয়া যাহাকে অঙ্গে লেপনাথ প্রদান করা যায়, সেই বশীভূত হইয়া থাকে ৪ নমঃ শচী চন্দ্রাণী সৰ্ব্ববশঙ্করা সৰ্ব্বাথসাধিনী স্বাহ এই মন্থ সহস্ৰ । বার জপ করিয। পূৰ্ব্বকৃত বট ও গোরোচনা এই দুষ্ট দ্রব্য । তুল্য পরিমাণে লইয়া জলের সহিত পেষণপুৰ্ব্বক কপালে তিলক কfরগে সেই ব্যক্তি সৰ্ব্বত্র জয় লাভ করিবে । কৃষ্ণপক্ষীয় চতুৰ্দ্দশ কিংবা অষ্টমী তিথিতে উপবাসী থাকিয় দেবতাকে বলি প্ৰদানপুৰ্ব্বক বেড়েলার মূল উত্তোলন করিয়৷ চূর্ণ কারবে । এছ চুণ যাহাকে তামূলের সহিত ভক্ষণ . করিতে দিবে, সেই ব্যক্তি বশীভুত হইবে । গোরোচনা ও t বেড়েলা এক এ পেষণপুৰ্ব্বক তিলক করিলে এবং । মন:শিলা ও বেড়েলার মূল একত্র পেষণ করিয়া बबन । দিলে সমস্ত লোক বশীভূত হইতে পারে। বেড়েলার মূল । XIlm Ᏹ© R সপ্তাহ কাল তামূলসহযোগে প্রয়োগ করিলে রাজাও ৰশভূত হন। ও নমো ভগবত মাতলেশ্বরি সধ্বমুখরঞ্জনি সৰ্ব্বেষাং মহামায়ে মাতঙ্গি কুমারিকে লেপে লঘু লঘু বশং কুর BBS BB BB BK BBD BDDBB BSBES DDD BD সিদ্ধি করিতে হয়। বেড়েলার মূল চূৰ্ণ মস্তকে ধারণ করলে সক লোক বহু হয় এবং ঐ মূল মুখে নিক্ষেপ কারয় অথবা কাটতে বঞ্চন করি। যে নারীকে কামনা করে, সেই নারীই তাছার বশাভূত হইয়া থাকে। শ্মশানের অঙ্গার ও শৃগালের র ও একএ করিয়৷ যাহার মস্তকে নিক্ষেপ করা যায়, সেই ব্যঞি বশীভূত হয় । ময়ুরের পিত্ত, গোরস্তা, জাতিপুষ্প ও গোরেচন একত্র কুমারী দ্বার। পেষণ করা হয়। স্পর্শ বা পান করিলে ত্রিজগৎ ৭শ করিতে পারা যায়। চঞ্জ গ্রহণ কালে শ্বেত অপরাজিতার মূল আহরণ করিয়। তাছায় অঞ্জন করিলে অথবা তিলকধারণ করিলে সৰ্ব্বলোক বগু হয় । কাটানটিয়ার মূল মুখে রাখিলে অপরে বগু হয় এবং প্রতিবাদী মুক হয় অথবা দিগন্তরে পলায়ন করে। কৃষ্ণপক্ষায় চতুর্দশ তিথিতে শ্বেত গুঞ্জার মূল উদ্ধৃত করিয়া তামূলের সহিত যাহাকে ভক্ষণ করাইবে, সেচ ব্যক্তিহ বশীভূত হইবে । মনঃশলা, গোরোচনা ও শ্বেত অপরাজিতার মূল এক । জলের সহিত পেষণ করিয়া কপালে তিলক ধারণ করিলে যাহার সহিত আলাপ করা যায়, সেই ব্যক্তিক বশ হয় । স্বর্ণবেষ্টিত শ্বেত অপরাজিতামুল মুদামধ্যগত করিয়৷ যে ব্যক্তি ধারণ করে, তাহার বাক্যে সকলেহ বশীভুত হয় । ও বঞ্জfকরণে শিবে রক্ষ রক্ষ ভগবতি মমাদি অমৃতং কুরু কুর স্বাঃ। সহস্ৰ জপে সিদ্ধ হইয়া শ্বেতাপরাজিতামুল চৰ্ব্বণ পুৰ্ব্বক তন্দ্বারা তিলক করিবে । নর কিংবা নারী উ৫ তিলকধারী ব্যক্তিকে দেখিবা মাত্র বশীভূত হইয়া থাকে । পুন্যানক্ষএযুক্ত কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে সাধক উপবাসী থাকিয়া পুষ্প, ধুপ, বলি ও স্বত প্ৰদীপ প্রদানপুৰ্ব্বক ও শ্বেতবর্ণে সিতপৰ্ব্বতবাসিনি অপ্রতিহুতে মম কাৰ্য্যং কুর কুরু ঠ: ঠ; স্বাহ।’ এই মন্ত্র অষ্টাধিক সহস্রবার জপ করিবে, তৎপরে শ্বেত গুঞ্জাফল ও সেই স্থানের মুত্তিক আহরণ করিয়া ঐ ফল স্থত দ্বারা লেপন করিলে । পরে বীজ ও মৃত্তিক উত্তম একটা নূতন পাত্রে নিক্ষেপ করিয়া কৃষ্ণপগীয় চতুর্দশ কিংব। অষ্টমী তিথিতে মৃ কামধ্যে পুতিয়া রাখিবে । অনস্তর যতকাল ঐ বাজ হতে বৃক্ষ জন্মিয় ফল না উৎপন্ন হয়, ততকাল “ওঁ শ্বেতবণে সিন্সবাসিনি শ্বেতপৰ্ব্বতনিবাসিলি সৰ্ব্বকাৰ্য্যাণি কুরু কুরু অপ্রতিহতে নমো নমঃ স্বাৰা এই