পাতা:বিশ্বকোষ ত্রয়োদশ খণ্ড.djvu/৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বালি • ) وع } বালি পাড়া বালি, ভাগীরথীতীরবর্তী একটা সমৃদ্ধিশালী গ্রাম। এখানে | ইষ্ট-ইণ্ডিয়া রেলওয়ের একটী ষ্টেসন আছে। অক্ষা” ২২° ৩৯′ উঃ এবং দ্রাঘি’ ৮৮° ২৩ পূঃ । শ্রীরামপুরের ধানকুণীজলা | পৰ্য্যন্ত বালির খাল বিস্তৃত । নদীমুখে এই থালের উপর একটা পুল আছে। এই গ্রামটা ব্রাহ্মণ-প্রসিদ্ধ। এখানে অনেক | ব্রাহ্মণ পণ্ডিতের টোল আছে। ষ্টেসন হইতে অনতিদূরে বালির । কাগজের ও হাড়ের কলকারখানা স্থাপিত। এই কাগজের } কলট বহু প্রাচীন। | বালি, ( বালুক শব্দের অপভ্রংশ। ) জলস্রোতের ঘাতপ্রতিঘাতে বিচূর্ণ পৰ্ব্বতগাওঁ যে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কণায় পরিণত হয়, তাহাই । বালি ( Sand ) নামে প্রসিদ্ধ। জলালোড়নে প্রস্তরস্বয়ের পরম্পর সংঘর্ষণে উৎপন্ন বালুকাকণা স্রোতোবেগে প্রবাহিত হষ্টয়া নদী অথবা সমুদ্রোপকূলের স্থানে স্থানে জমিতে থাকে। । ঐ বালুকাকণ জলসহযোগে একত্র করিতে পারিলে পুনরায় প্রস্তরে পরিণত হইতে দেখা যায়। এই বালি সাধারণের বিশেষ হিতকর। গঙ্গাদির ইষ্টকাচ্ছাদনরূপে ইহার | বহুল ব্যবহার হয় । ইহা জল পরিষ্কারক । একটা কলসী ! মধ্যে কয়লা, অপর কলসীতে বালি রাখিয়া সাধারণ লোকে । পানীয় জল পরিষ্কার করিয়া থাকেন। বালুকাময় দেশে প্রবাহিত জল অত্যন্ত শীতল ছয় । বালু ও সোডা যোগে | কাচ উৎপন্ন ইষ্টতে দেখা যায়। পূৰ্ব্বে বালুকাযন্ত্রের দ্বারা সময় নিরূপিত হইত। [ বালুকাযন্ত্র দেখ। ] এতদ্ভিন্ন বালি আরও অনেক বিষয়ে মানবের উপকারে আইসে। বালিতে ছাচ, ধাতু গালাইবার মুচি, প্রতিমূৰ্ত্তি গঠন প্রভৃতি কাৰ্য্যও হইয়া থাকে। পাথর কাটিতে হইলে জল ও বালির প্রয়োজন । রোগীর অবস্থাভেদে কখন কখন তাহাকে উত্তপ্ত বালুকায় বসান হয়, তাহাকে “Saad oath" বলে। কিন্তু অধিকাংশ সময় রসায়ন-গৃহেই কটাহস্থিত উত্তপ্ত বালুকামধ্যে অপর কোন i আবশ্যকীয় দ্রব্য উত্তপ্ত করিতে উহার ব্যবহার দেখা যায়। ইস্পাতনিৰ্ম্মিত অস্ত্র বা অপর কোন দ্রব্যে মরিচ পড়িলে, সেই মরিচ উঠাইয়া উহার পুৰ্ব্ববৎ পালিশরক্ষা করিবার জল্প একপ্রকার কাগজ ( Sand-paper ) প্রস্তুত হইয়া শিরীষ কাগজে মাখাইয়। তাছার উপর হুঙ্কবালুকাচুর্ণ সঞ্চালন করিলে বালুক কাগজগাত্রে আঁটিয়া যায়। বর্তমান প্রচলিত এমরি কাগজ উছার পরিবর্তে ব্যবহৃত হইতেছে। উৎকৃষ্ট ইস্পাতনিৰ্ম্মিত অস্ত্রাদি ইহাঙ্খারাই পরিষ্কৃত হইয়া থাকে। " | ( s ) इभणीtबगात्र जड*ठ मजब॥ नावक शाप्नब्र पानि ५३ काr१] প্রশস্ত । _ আইল অব ওয়াইটের (Isla of Wight): এলাম (Alum' bay ) উপসাগরোপকূলে নানাপ্রকার রঙ্গিন বালু পাওয়া যায়, উহাতে সুন্দর সুন্দর চিত্র প্রস্তুত হইয়া থাকে। একখানি কার্ডবোর্ডে অভিমত চিত্র অঙ্কিত করিয়া তাহীতে প্রথমে অল্পমাত্রায় রং লাগান চয়, পরে তাহাতে পাতলা শিরীষ বা গদ লাগাইয়া পুষোক্ত রঙ্গের অনুরূপ বালি দিয়া কিছুক্ষণ রাখিলে কতক বালু আটকাষ্টয়া যায়, অবশিষ্ট ঝরিয়া পড়ে। এইরূপে চিত্রের বিভিন্ন বর্ণের অনুরূপ বালু লষ্টয়া লাগাইতে হয় ; কিছুক্ষণ ঐ চিত্র উত্তপ্ত স্থানে রাখিলে বালু সংলগ্ন হইয়া থাকে। অবশেষে বর্ণের সামঞ্জস্ত রাথিবীর জন্ত তাছার উপর অল্পে অল্পে তুলিদ্বারা রং মিলান চেষ্টয়া থাকে । বালিক। ( স্ত্রী ) বালা এব বাল স্বার্থে কন, টাপ অতইৰং । ১ বালা । ২ কন্যা । ৩ বালুক । ৪ পত্রকাহল । ৫ কর্ণভূষণ । ( মেদিনী ) ৬ এল । ( শঙ্করত্না” ) বালিখিল্য (পুং ) পুলস্ত্যকস্তা সন্নতিতে উৎপন্ন ক্রতুর ঘষ্টিসহস্ৰ সংখ্যক পুত্ৰ ঋষিবিশেষ । [ বালখিল্য দেখ । ] বালিগঞ্জ, কলিকাতার দক্ষিণপূর্ব উপকণ্ঠে অবস্থিত একটা গওগ্রাম। নিৰ্জুনতাপ্রিয় যুরোপীয়গণ এখানে বাস করায় এই স্তানের মর্যাদা দিন দিন বাড়িয়া উঠিতেছে । এতদ্ভিন্ন ভারতবর্যের বড়লাটের শরীর লক্ষী সেনাদল এথানে থাকে । কলিকাতা যাতায়াতের সুবিধার জষ্ঠ এখানে পূৰ্ব্ববঙ্গীয় রেলপথের একটা ষ্টেসন আছে। বালিগঞ্জ জংসন হইতে বজবজের রেলপথ বিস্তৃত। ষ্টেসনের উত্তরদিকে সখের সেনাদলের লক্ষ্যশিক্ষার একটা চাদমারা আছে । বালিঘাটিয়ম, মাম্রাজ প্রেসিডেন্সীর বিশাখপত্তন জেলার অন্তগত একট প্রাচীন গ্রাম । ব্ৰমেশ্বরূস্থ নামক বিথ্যাত শিবালয় প্রতিষ্ঠিত থাকায়, নানাস্থানের লোক এই পবিত্র তীর্থে দেবদর্শনে আসিয়া থাকে। অক্ষা” ১৭° ৩৯′ উঃ এবং দ্রাঘি” ৮২° ৩৮। ৩০" পূঃ । যে পৰ্ব্বতোপরি এই মন্দির স্থাপিত, সেখান হইতে বরাহনী ( পন্দের ) প্রবাহিত । এই নদী উত্তরবাহিনী বলিয়া লোকে এই তীর্থমাহাত্ম্য কীৰ্ত্তন করিয়া থাকে । এই নদীতীরে একটী গর্তমধ্যে ভয়ের মত পদার্থ দেখা যায় । দেবমন্দিরের পুরোহিতগণ ঐ ভস্মরাশিকে বালিচক্রবর্তী নামক জনৈক ব্যক্তিকৃত যজ্ঞের হোমাবশেষ বলিয়া থাকেন। এখানকার দেবমূৰ্ত্তি পশ্চিমমুখী । বালিঘুঘুর ( দেশজ ) কীটভেদ, একপ্রকার ঘুঘুরে পোকা । বালি পাড়া, আসামের দরদ জেলার অন্তর্গত একটা রক্ষিত বনবিভাগ। ভূ-পরিমাণ ৮৮ বর্গমাইল । ইহাৰ সন্নিকটে ক্লবারের চাষ আছে ।