পাতা:বিশ্বকোষ দ্বাদশ খণ্ড.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পুফলক পুষ্যনিষত্রের প্রখমাৰি চাপিয়ে স্থ, হে, হে, জু" এই চাটি अचद्रांश् िनां★ शहैरद ।। ७ई मचरज अग्रāश्न रूब्रिहण ८क्दनं* হইয়া থাকে। এই নক্ষত্র মেষ-জাতীয়। পুষ্যানক্ষত্রে জন্মগ্রহণ করিলে छात्रग्र धव हद्देब्रां शंरक् ।। ५हें मकरंबब्र ७२ भांग अत्रों ভোগ হয়। (জ্যোতিস্তৰ) এই নক্ষত্রের অধিপতি বৃহস্পতি। পুষ্যানক্ষত্রে গঙ্গাস্বান করিলে কোটিকুল উদ্ধার হয়।

  • সংক্রাত্তিৰু ব্যতীপাতে গ্রহণে চজস্বৰ্য্যয়ো । পুষ্যে রাখা তু জাহব্যাং কুলকোটীঃ সমুদ্ধরেং” (ব্ৰহ্মাওপু ) ৪ সূৰ্য্যবংশীয় নৃপতিবিশেষ ।

“তত প্রভানিৰ্ণিতপুষ্পরাগং পৌব্যাং তিধেী পুষ্যমস্থত পত্নী। তশিরপু্যাদিতে সমগ্রাং তুষ্ট্রং জনা পুষ্য ইতি দ্বিতীয়ে।” (রযু ১৮৩২ ) পুষ-ভাবে-ক্যপূ। ৫ পুষ্ট। বিধস্ত পুষ্যমক্ষন’ ( ঋক ১১৯১৷১২ ) পুষ্যং পোষং’ ( সায়ণ ) পুষ্যগুপ্ত, একজন বৈ, মৌৰ্যরাজ চন্দ্রগুপ্তের খালক রুজদামার গির্নর-লিপিতে লিখিত আছে, এই শৈলের পাদদেশে পুষ্যগুপ্ত একটী সুন্দর হ্রদ প্রস্তুত করিয়াছিলেন। মৌর্য্য অশোকের বনশাসনকর্তা তুষাম্প প্রণালীম্বারা তাহ অলঙ্কত করিয়াছিলেন। “মৌর্য্যন্ত রাজ্ঞঃ চন্দ্রগুপ্তস্ত রাষ্ট্রিয়েণ বৈপ্তেন পুষ্যগুপ্তেন কারিতং অশোকস্ত মৌর্য্যস্ত তে যবনরাজেন তুষাস্পেনাধিষ্ঠার প্রণালীভিরলষ্কৃতম্” (রুদ্রামার শিলালিপি । ) পুষ্যধৰ্ম্মন (পুং) নৃপতিভেন। পুষ্যনেত্রা (স্ত্রী) পুষ্য তন্নামকং নক্ষত্ৰং নেতা প্রথমাবধিশেষপৰ্য্যস্তসমাপকে যন্তাঃ, আচসমাসাত্মঃ। ষে রাত্রিতে প্রথমবধি শেষ পর্যন্ত পু্যানক্ষত্র থাকে, তাদৃশী রাত্রি। পুষ্যরথ (পুং ) পুব ইব রধ, পুষ্যে যাত্রোংসবাদে রখে বা। ক্রীড়ারথ, ভ্রমণ বা উৎসবাদি ষে রথে করিয়া দেখা যায়, তাহাকে পুষ্যরখ কহে। এই রথে করিয়া যুদ্ধাদি করা যায় না।

  • षश्ांद्रथः शूषाश्नुथः क्रिी ক্ষিপ্ৰং ক্ষপানাথ ইবাধিক্কড়ঃ ” ( মাঘ ৩২২ ) ঘালক (পুং) পুবাং পুষ্টং লকতি লাক্যক্তি বা-অৰ্চ, ১ গন্ধযুগ।

"কেশেষু চমরী হস্তি সীনি পু্যলকে হতঃ।” (পাণিনি) ২ ক্ষপণক। ৩ কীল, গোজ, খোড়া । { २¢ ] পুরোনলে) পূব গুৱানকালনামূলে "भूरवा मन्त्र: শ্ৰেীমভিঃ झडौ s कूणयक्षांप्न ५नवाछदूडः । . अाप्खा९डिबूत्द्र विजेश्वच्ख्: छा९ नर्संविदानिभूतः यदउः ।” (זיזהסcort8) XII পুষ্যস্নান পুষ্যানক্ষত্রে স্বান, পৌষমাসে চক্ৰ পূব্যানক্ষত্রে গমন করিলে এই যোগ উপস্থিত হয়। সেইদিন রাজগণ বিশ্বশাস্তির জন্ম এই গান করিয়া থাকেন। ইহার বিষয় কালিকাপুরাণ ও বৃহৎসংহিতাদিত্তে বিশেষরূপে লিখিত আছে— অতি সংক্ষিপ্তভাবে ইহার বিষয় আলোচনা করা যাইতেছে। পৌষমাসে চঞ্জ পুষ্যানক্ষত্রে গমন করিলে রাজা সৌভাগ্য ও কল্যাণকর এবং দুর্ভিক্ষ ও ময়কাদি ক্লেশনাশক পুষ্যস্নান করিবেন। বিষ্টভদ্রাদি ও তুষ্টকরণ এবং ব্যতীপতি, বৈধৃতি, বঙ্গ, শূল ও হর্ষশাদিযোগে যদি পুষ্যানক্ষত্র ও তৃতীয় তিথি এবং রবি, শনি অথবা মঙ্গলবার যুক্ত হয়, তাহা হইলে সেই দিন পুষ্যস্নান সকল দোৰনাশক। যদি রাজ্যমধ্যে গ্রহবিপাকে অতিবৃষ্টি বা অনাবৃষ্টি প্রভৃতি ঈতি সকল উপস্থিত হয়, তাহা হইলে রাজা পৌষমাস ভিন্ন অল্প সময়েও পুষ্প্যানক্ষত্রে স্নান করিবেন। স্বয়ং ব্রহ্ম। ইন্ত্র ও অন্তান্ত দেবগণের শাস্তির জন্য বৃহস্পতিকে এই শাস্তির উপদেশ দিয়াছিলেন। রাজা পুষ্যস্নানের জন্ত প্রথমে অতি শুচি ও পবিত্র স্থান নির্ণয় করিবেন। যে স্থানে তুষ, কেশ, অস্থি, বঙ্গীক, কীট ও কৃমি প্রভৃতি অপবিত্র বস্তু না থাকে এবং কাক, পেচক, কুৰুর, কক্ষ, কাকোল, গৃধ্র, বক প্রভৃতি যে স্থানে বিচরণ করে না এবং হংসকারওবাদি শাস্ত জলচর সকল যেখানে বিচরণ করে, নদ্যাদি তীর বা মনোহর স্থান নির্ণয় করিয়া সেই স্থানে তিনি পুষ্যস্নান করিবেন। স্থান নির্ণয় করিয়া যথাবিধানে তাহার সংস্কার কর্তব্য। পরে রাজা পুরোহিতের সহিত নানা প্রকার বাদ্যাদি করিয়া সেই স্থানে গমন করিবেন। পুরোহিত সেই স্থলে উত্তরমুখী হইয়া সুগন্ধ চলান, কপূৰ্বাদি মুবাসিত জল ও গোরোচনাদি দ্বারা গন্ধারেতি মন্ত্রে সেই স্থলের অধিবাস করিবেন। পরে গণেশাদি পঞ্চদেবতা কেশব, ইঞ্জ, ব্ৰহ্ম ও সপাৰ্ব্বতী পশুপতি এবং অন্তান্ত গণদেবতা প্রভূতি পূজা এবং পায়স ও নানাবিধ সুমিষ্ট ফলদ্বারা নৈবেন্ত দিয় এই মন্ত্রে দূৰ্ব্ব ও অক্ষতান্বিারা ভূতদিগকে অপসারণ করিতে झहेष्द । मल्ल “অপসৰ্পস্তু তে ভূত যে ভূত ভূমিপালকাঃ। ভূতানামবিরোধেন স্নানমেতং করোম্যহম্।।” পরে রাজা দেবগণকে আহবান করিয়া পুষ্যস্নান সমাপন করিয়া এই মন্ত্রে পূজা করিবেন। মন্ত্ৰ— “আগচ্ছন্তু মুরা: সৰ্ব্বে যেখত্র পূজাভিলাষিণঃ। দিশেহভিপালকাঃ সৰ্ব্বে যে চান্ত্যেহপ্যংশভাগিন: ॥* যে সকল দেবগণ আমার পুজাগ্রহণে ইচ্ছুক, সেই দিকপাল দেবগণ আসিয়া তাহাদের নিজ নিজ ভাগ গ্রহণ করুন ।