পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অঙ্গুরীয়ক [ νυ - অঙ্গুলি পরিতে হয়। না পরিলে জল শুদ্ধ হয় না । বাঙ্গালার ব্রাহ্মণ পণ্ডিতেরা অষ্টধাতুর আঙুটা পরিয়া থাকেন। অঙ্গুরীয় ধারণের ব্যবস্থা এই--তর্জনী রৌপ্যসংযুক্ত হেমযুক্ত অনামিকা । (স্থতি: )। তৰ্জনী অঙ্গুলিতে রূপার আঙুটা পরিবে এবং অনামিকাতে সোনার আঙুট। বিশুদ্ধ পারার আঙুটাও নাকি রুগ্ন ব্যক্তির পক্ষে বিশেষ উপকার করে। [ ইহা প্রস্তুত করিবার কৌশল পারদ শব্দে দেখ ] | এ দেশে অনেক দিন হইতে আঙুট পরিবার প্রথ৷ চলিয়া আসিতেছে । হস্তিনাপুরে দ্রোণাচাৰ্য্য কূপের ভিতর আপনার আঙটা ফেলিয়া দিয়া ঈষিকা দ্বারা তাহা উপরে তুলিয়াছিলেন । বীটাঞ্চ মুদ্রিকাঞ্চৈব হাস্থমেতদপিস্বয়ং । মহাভারত ১। ১৩১ ৷ ২৪ । মুদ্রিক অঙ্গুরীয়কম্। মোহর আঙট। এখনকার সিল আঙ্টর মত বাল্মীকির সময়ে নামাঙ্কিত আঙুট পরিবার প্রথা চলিত হইয়াছিল। যথা,— বানরোহহং মহাভাগে দূতে রামস্ত ধীমতঃ। রামনামাঙ্কিতং চোং পশু দেবাঙ্গুলীয়কং। রামায়ণ rে | ৩৬ ৷ ২ ৷ মহাভাগে! আমি ধীমান রামের দৃত । এই দেখুন তাহার নামাঙ্কিত আঙুট। শকুন্তলাতেও সিল আঙটর প্রমাণ আছে—নামমুদ্রাক্ষরাণামুবাচ্য পরস্পরমবলোকয়তঃ । আঙটতে রাজার নাম দেখিয়া সখীরা পরস্পরের মুখ চাওহাচাহি করিতে লাগিলেন। বিবাহের সময়ে আমাদের মধ্যে যেমন বরকল্প্যার মাল্য-পরিবর্তনের প্রথা চলিত আছে, ইংরাজের তদ্রুপ হাতের আঙুটা পরিবর্তন করেন। তাহাদের মতে, স্বামী আপনার হাতের আঙুটা খুলিয়া স্ত্রীর হাতে পরাইয়া দিলে তাহাকে প্রাণ সমর্পণ করা হয়। আর এক কথা,— অনামিকা অঙ্গুলির সঙ্গে নাড়ীতে নাড়ীতে হৃদয়ের ঘনিষ্ঠ সম্বন্ধ আছে। কাজেই, অনামিকা অঙ্গুলিতে আঙুট পরাইয়া দিলে হৃদয়ের সঙ্গে গাঢ় প্রেম আঁটীয় যায়। ইংরাজের এশিক্ষা ইহুদিদের কাছে পাইয়াছেন। অঙ্গুরীয় (ক্লী) অঙ্গুরি-ছ, অঙ্গুরে ভবম্। আকুট, অন্ধুলির ভূষণ। * । জিহামূলাজুলেশ্বঃ। পা ৪। ৩। ৬২ ৷ সপ্তম্যন্ত জিহ্বামূল এবং অঙ্গুলি শব্দের উত্তর ‘তত্ৰম্ভব এই অর্থে ছ প্রত্যয় হয় । অঙ্গুরীয়ক (পুং ক্লী) অঙ্গুরীয়-কন্তু স্বার্থে । অঙ্গুলির ভূষণ, অংট। শনিগ্ৰহ দেখিতে অতি সুন্দর। অঙ্গুরীয়কের স্তায় তিনটা মুদৃগু বেড়ইহাকে পরিবেষ্টন করিয়া আছে। অঙ্গুল (পুং) অঙ্গ-উল। হস্তপদের শাখা, আঙুল। বাৎ স্তায়ন মুনি। অঙ্গতি গচ্ছতি গ্ৰহণায় ইতি। অস্কুল। উড়িষ্যা গড়জাত প্রদেশের একটা ছোট রাজ্যের नांश। ५ शम भूर्ल रुन मांभरु अगडा छाडिग्न अशिকার ভূক্ত ছিল। ইংরাজেরা যে রূপ বাণিজ্য করিতে श्रोनिग्ना छांद्रष्ठ अशिरुांग्न कब्रिञ्चांटइम, छ६मक शिग्नू সেই রূপ অঙ্কুলে ব্যবসা করিতে গিয়া আনে নামক কন্দরাজের নিকট হইতে এই রাজ্য কাড়িয়া লন । ১৮৪৭ খৃঃ অব পৰ্য্যন্ত তাহার বংশধরেরা অস্কুলে রাজত্ব করেন । ঐ সময়ের রাজ ইংরাজদের বিপক্ষে অস্ত্র ধারণ করিতে চেষ্টা করেন। সেই অপরাধে গভর্ণমেণ্ট তাহাকে পদচ্যুত করিয়া অঙ্গুল ইংরাজ অধিকার ভূক্ত করিয়া লন। অঙ্কুলের লোক সংখ্যা প্রায় আশী হাজার; অধিকাংশই হিন্দু। এই রাজ্যের এক পাশ্ব দিয়া ব্রাহ্মণীনদী প্রবাহিত হইয়াছে। অঙ্গুলি (স্ত্রী) অঙ্গ উলি। আঙুল। হাতিশুঁড়া, গঙ্গকণিকা বৃক্ষ, গজগুওাগ্র। এই শব্দ পুংলিঙ্গও হয় । * । অঙ্গেরুলি। উ৭৪ ৷ ২ ৷ অঙ্গ ধাতুর উত্তর উলি প্রত্যয় হয়। এক এক অঙ্গুলির পরিমাণ ৮ যব । ২৪ অঙ্গুলিতে হাত হয় । সংখ্যাবাচক এবং অব্যয়াদি শব্দের উত্তর অঙ্গুলি শব্দ থাকিলে তৎপুরুষ সমাসে অচ প্রত্যয় হয়। যথা,— দ্ধে অঙ্গুলী প্রমাণমস্ত ব্যস্কুলং দারু। এই কাঠখানি দুই অঙ্গুলি পরিমিত। নির্গতমগুলিভো নিরঙ্কুলম্। অঙ্গুলি হইতে নির্গত । * । তৎপুরুষস্তাঙ্গুলেঃ সংখ্যাব্যয়াদে: | প৷ ৫ ৷৷ ৪ ৷ ৮৬ । * । অঙ্কুলের্নারণি। পা ৫। ৪ । ১১৪ ৷ দারু অর্থাৎ কাঠ বুঝাইলে বহুব্রীহিসমাসে অঙ্গুলি শব্দের উত্তর যচ (অ)প্রত্যয় হয়। পঞ্চাঙ্গুলয়ো যন্ত তৎপঞ্চাঙ্গুলং দারু । ধান ছড়াইবার কাঠী । বহুব্রীহি সমাস না হইলে, কেবল কাঠীর পরিমাণ বুঝাইলে, উপরে যে সুত্র লেখা হইয়াছে তাহার মতে তৎপুরুষ সমাসে অচ প্রত্যয় হইবে। যথা—ম্বে অঙ্গুলী প্রমাণমস্যাঃ দ্ব্যস্কুল যাইঃ । কাঠী না বুঝাইলে ষট্ এবং তৎপুরুষ না হইলে অচ ইহার কোন প্রত্যয় বিহিত হইবে না। যেমন, পঞ্চাঙ্গুলিছন্তঃ। জপাদির সংখ্যা রাখিবার জন্তু বৈদিক ও তান্ত্রিক মতে ভিন্ন ভিন্ন অঙ্গুলিতে কর বিন্যাস করিবার ব্যবস্থ৷ श्रारश् । राभिक मज्ञ छ*ी कब्रिदाब्र जभङ्ग भक्रि५ श्रछब्र অনামিকার মধ্য পর্কে বুদ্ধাঙ্গুষ্ঠ দিয়া প্রথমে জপ আরম্ভ