পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/১৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


जल्लङ्गो ] خه د [ - खाछु। -T হেনরী রেট সাছেব এই সংবাদ পাইয়া তাহাকে গুলি করিয়া বধ করেন । হিমালয় পৰ্ব্বতে ময়ল নামক এক প্রকার বোড়া আছে। ইহারা সচরাচর ১০ । ১২ হাত দীর্ঘ হয়, কিন্তু তালগাছের চেয়েও মোট । পাহাড়ী লোকে ঐ সাপ ধরিয়া গৃহস্থের বাড়ী বাড়ী নাচাইয়া বেড়ায়। নাচাইবার সময় সাপের মুখ হইতে লাঙ্গুল পৰ্য্যস্ত এক একটী বেতের বেতী পরাইয়া দেয় এবং মোট যষ্টির দ্বারা আঘাত করে। তখন সৰ্পট ক্রোধে ফুলিয়৷ উঠে। চারিদিকে চারিজন সাপুড়ে দাড়াইয়া থাকে। তাহাদের মাথায় কাঠের টুপী, টুপীর উপয় লোহার বড় বড় গোজা লাগান। সাপট ক্রোধে মামুষের চেয়েও উচ্চ হইয়া চারিদিকে ঘুরিয়া ফিরিয়া সাপুড়েদের মাথায় দংশন করিতে যায়। ইহাই ময়াল সাপের নাচ । অজগব (ক্লী-পুং ) অজগং বিষ্ণুং বাতি অজগ-বা-ক । পিনাক । অজকব, আজকাব, অজীকব, অজগব, এই রূপও হয় । শিবধনু । অজগাব (পুং-কী ) অজগ-অব-অণু অজগং বিষ্ণুং অবতি রক্ষতি। উপপদ সং। হরধনু। অজঘন্ত (ত্রি ) ন জঘন্তঃ অধমঃ। নঞ তৎ। অনধম। শ্রেষ্ঠ । জঘনমিব, জঘন্তঃ । জঘন-যৎ । জঘনশব্দ শাখাদি গণমধ্যে পঠিত । [ শাখাদি দেখ ] । অজজীবিক (ত্রি ) আজশছাগঃ ক্রয়বিক্রয়াদিন জীবিকা জীবনোপায়ো যন্ত । বস্ত্রী । ছাগ মেষাদির ব্যবসায়ী । অজট (স্ত্রী ) নাস্তি জটা জটাকারং মূলং বস্তাঃ । বহুত্ৰী । ভূই আমলা গাছ। ইহার অপর নাম অজড়া। অজড় (স্ত্রী) অজড় গিচ অচ । অজড়য়তি স্পর্শমাত্রেণ অঙ্গমর্দনাৰ্থং সঞ্চালয়তি। উপপদসং। কপিকছু। আলকুশীগাছ। জড়ভিন্ন। (ত্রি) । অজথ্যা (স্ত্রী) অজ থান। * । অজাবিভাং খান। পা ৫। ১ । ৮ । তাহার হিত এই অর্থে আজ ও অবি শব্দেয় উত্তর থ্য প্রত্যয় হয়। বাচস্পতি লিখিয়াছেন যে, সমুহার্থে অজ শব্দের উত্তর থান প্রত্যক্ষ হইয়াছে। কিন্তু বৃত্তিকারদের সে মত নহে। যথা—অজ আৰি ইত্যেতাভ্যাং থান প্রত্যয়ে ভবতি তস্মৈ তিমিত্যেতন্মিৰিবয়ে। (কালিকা)। যুথি, জুইকুল স্বর্ণযুথিকা । অজদণ্ডী (স্ত্রী) অঞ্জ-দও গৌরাদিত্বাং উীৰ্য অজস্ত রক্ষণে৷ * দণ্ডোহস্তাঃ । ঘহী। ব্ৰহ্মদওঁীবৃক্ষ। বামুনহাটী। এই রক্ষের কাঠের দ্বার ব্রাহ্মণের দ্বও নিৰ্ম্মাণ করেন এজন্য উহার নাম ব্ৰহ্মদওঁী হইয়াছে। অজদেবতা (পুং) অজাধিষ্ঠাত্রী দেবতা । মধ্যপদলোপি কৰ্ম্মধ। ছাগের অধিষ্ঠাত্রী দেবতা। অগ্নি । अञ्जननेि ( ौि ) न खान श्रांग्कांग्भं अमि । नं-उ९ । खग्रl ভাব । যথা অঞ্জনিরস্তু তস্ত । অজন্মন (পুং ) ন জনৃ-মনিন। নাস্তি জন্ম যন্ত যত্র বা, বহুত্রী। জন্মরহিত । মোক্ষ । অজন্ত (ত্রি) জন্‌পিচ্যৎ । ম জীয়তে নঞ তৎ। শুভাশুভ স্বচক ভূকম্পাদি উৎপাত বিশেষ। অজননীয়। অজপ (পুং ) ন জপ-অচ । অস্পষ্টং ‘জপতি । নিদার্থে নএ । কুপাঠক, যে ভাল পাঠ করিতে পারে না। অজং পাতি পা-ক। ৬-তৎ। যে ছাগ রক্ষণ করে। ছাগপালক । অজপঞ্চৌদন (পুং ক্লী) পুরোহিতকে ষজমান কর্তৃক ছাগদান। অথৰ্ব্ববেদে অজদানের এই রূপ ফল কথিত আছে। অজদান করিলে, যজমান তৃতীয় আকাশের, তৃতীয় স্বর্গের তৃতীয় পৃষ্ঠায় স্থান পান। ( ৯ । ৫ । ১৯ )। এক পতি থাকিতে স্ত্রীলোকেরা যদি অল্প পতি গ্রহণ করেন, তবে অজপঞ্চৌদন দান করিলে তাহাদেয় মধ্যে আর বিচ্ছেদ ঘটে না । ( ৯ । ৫ । ২৭ ) । অজপতি ( পুং ) আজ-পা-ডতি। ৬-তৎ । ছাগশ্রেষ্ঠ । মেঘরাশির অধিপতি । মঙ্গলগ্রহ। অজপথ (পুং ) অজস্ত পন্থাঃ । ৬-তৎ। অজেন ব্রহ্মণী নিৰ্ম্মিতঃ পন্থা । ৩-তৎ । ছাগলের পদ দ্বারা যে পথ হয়। প্রজাপতি যে পথ স্বষ্টি করিয়াছেন। আকাশস্থিত পথের আকার সেতু, ছায়াপথ, যমনাল। অজপথ্য (ত্রি ) আজ-পথ ইবার্থে যং অঙ্গপথ ইয। দেৰপথ। সতীর্ণ পথ । গগন সেতুতুল্য। অজপদ ( পুং ) { অঙ্গপাদ দেথ }৭ অজপা (স্ত্রী) যতুেন বিনা জপ্যাম জপ কৰ্ম্মৰি আছ । ংস মন্ত্র । স্বাভাবিক শ্বাস প্রশ্বাস । আমরা প্রত্যহ যে নিশ্বাস গ্রহণ করি ও প্রশ্বাস ত্যাগ করি তাহার কিয়দংশ দেবতার-ভোগ করেন । বিশ্বাদর্শে লিখিত আছে— অযুতে ম্বে সহস্ৰৈকং যট্‌শতানি দিবানিশোঃ । ” ভবত্তি হংসজপ্যানি নিশ্বাসোচ্ছাসনামতঃ। ঘট শতানি গণেশস্ত ঘট সহস্রং প্রজাপতেঃ। গদাপাশেঃ ঘট সহস্লং ষট সহস্রং ত্রিলোচনে । সহস্ৰং স্তাদাত্মনস্তু সহস্ৰস্তু গুরুদ্বয়ে } পরমায়ুমি সহস্ৰংস্তাদিতি সংখ্যা নিষেঙ্গল্পে২+ y রাজি দিনের মধ্যে মামুষেয় লিখাল প্রশ্বাসের লংখ্যা २४,७०० बाब्र!ऐशश्न माम श्श्नमङ्ग अन्। ७२ छ। श्रङ्ग माया [ રક્ત ] - ->