পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৩৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অন্ধক [ ૭૯૦ ] অন্ধকারি মধ্যে গর্ভসঞ্চার হইলে কিম্বা গর্ভিণীর সাধ পূরণ ন করিলে অন্ধ সস্তান জন্মে। গর্ভের ভিতরে সন্তান কি কারণে অন্ধ হয়, ইউরোপীয় পণ্ডিতগণ এখনও এ কথার কিছুই মীমাংসা করিতে পারেন নাই। অন্য প্রকার অন্ধ জন্মাবধি নয়। ভূমিষ্ঠের পর কোন সমরে নানা প্রকার রোগে চক্ষু নষ্ট হইয়া যায়। [ কি রূপে দর্শনজান জন্মে এবং চক্ষুর কোন কোন স্থান নষ্ট হইলে মনুষ্যাদি অন্ধ হয়, তাহার বিবরণ চক্ষু শব্দে দেখ] আমাদের শাস্ত্রানুসারে পুৰ্ব্বজন্মার্জিত পাপের নিমিত্ত মানুষ অন্ধ হয়। জাত্যন্ধ ব্যক্তি বিষয়ের উত্তরাধিকারী হইতে পারে না । অজ্ঞানান্ধ—অর্থাৎ যাহার জ্ঞান নাই ; অজ্ঞতা দ্বারা যে অদ্ধ হইয়া আছে। জাত্যন্ধ—ষে জন্মাবধি অন্ধ । দিবান্ধ — যে দিবাভাগে দেখিতে পায় না, যেমন পেচকাদি। মেয, বৃষ এবং সিংহকেও দিবান্ধ কহে। রাত্রান্ধ —যে রাত্রিতে দেখিতে পায় না, যেমন কপোত প্রভৃতি পক্ষী । অনেক মনুষ্য বিশেষ পীড়াবশতঃ রাত্রিকালে দেখিতে পায় না। মিথুন, কর্কট এবং কস্তারাশিকেও রাত্রান্ধ কহে । বর্ণান্ধ—যে সবুজ প্রভৃতি বর্ণ দেখিতে পায় না । [ রাত্ৰ্যন্ধ ও বর্ণান্ধের বিবরণ চক্ষু শব্দে দেখ ]। অন্ধ শব্দে পরিব্রাজক বিশেষকে বুঝায়, অর্থাৎ যিনি চলিবার সময়ে কেবল পায়ের নিকটের পথ দেখিতে দেথিতে যান, দূরে দৃষ্টি নিক্ষেপ করেন না। অন্ধয়তীতি অন্ধ চু প্রেরণে-ণিচূ-অচ । অন্ধকার। অজ্ঞান | জল । মুনি বিশেষ। ইনি নিজে বৈশু এবং ইহার স্ত্রী শূদ্রকষ্ঠা। সরযুকূলে ইহঁাদের আশ্রম ছিল। এক দিন তাহাদের সন্তান কুম্ভে জল পূরিতেছেন, অদূরে রাজা দশরথ । তিনি সেই বনে মৃগয়া করিতে গিয়াছিলেন। জলের শব্দ শুনিয়া মনে করিলেন কোন মত্তহস্তী জলপান করিতেছে। তাই সেই শব্দানুসায়ে তিনি বাণনিক্ষেপ করিলেন। তাছাতেই ঋবিকুমারের মৃত্যু হইল। পরে অন্ধমুনি তাহার সৎকার করিয়া পুত্র শোকে স্বস্ত্রীক জলস্ত চিতায় প্রাণত্যাগ করিলেন। অন্ধক (পুং) অন্ধ-স্কুল। দৈত্যবিশেষের নাম। দিতির গর্ভে এবং কগুপের ঔরসে ইহার জন্ম হইয়াছিল । এই দৈত্য মহা অত্যাচারী হুইরা উঠিয়াছিল, তজ্জন্ত মহাদেব তাছাকে বিনষ্ট করেন। (হরিবংশ)। অন্ধ এব অন্ধক স্বার্থে কম্। বৃহস্পতির জ্যেষ্ঠভ্রাতা। মমতার গর্ভে এবং উতথ্যের ঔরসে র্তাহার জন্ম। তিনি বৃহস্পতির শাপে জাত্যন্ধ হইয়াছিলেন । ইহঁার অপর নাম দীর্ঘতমা । ( মহাভারত আ• প০ ) । যদুবংশের নৃপতি বিশেষের নামও অন্ধক। ইনি সত্বতের পুত্র। অন্ধকের চারিট পুত্র উৎপন্ন হইয়াছিল। তাহাদের নাম—কুকুর, ভজমান, গুচিকম্বল এবং বৰ্হিব। (বিষ্ণু পুত্র ৪ । ১৪ )। দেশবিশেষ। মুনিবিশেষ। অন্ধকক্ষয়কর ( পুং ) অন্ধকানাং যাদ বানাং ক্ষয়করঃ নাশকরা। ৬-তৎ। বিষ্ণু। যিনি যাদবদিগকে নষ্ট করিয়াছেন। অন্ধকস্ত দৈত্যবিশেষ ক্ষয়ক রঃ। মহাদেব। অন্ধকমৃতু্যজিৎ (পুং) অন্ধকঃ অস্থরবিশেষ, মৃত্যুর্মরণং তেী জয়তি অন্ধক মৃত্যু-জি-কিপ, উপ-স০ মহাদেব। যিনি অন্ধকদৈত্য ও মৃত্যুকে জয় করিয়াছেন। মদনান্ধকমৃতু্যজিৎ । নৈষধ ৪ । ৯৭। অন্ধকরিপু (পুং ) অন্ধকস্ত রিপুঃ শক্রঃ । ৬-তৎ। মহাদেব ; যিনি অন্ধক দৈত্যকে নষ্ট করিয়াছিলেন। শ্লেষ কাব্যাদিতে অন্ধকার নাশক চন্দ্র স্বৰ্য্যাদিকেও বুঝায়। অন্ধকবর্ত (পুং ) অন্ধক ইব বৰ্ত্ততে বৃত-অচ । পৰ্ব্বত বিশেয । অন্ধকার (পুং ক্লী) অন্ধং করোতীতি কু-অণু উপ স•। তিমির | তমঃ । আলোকের অভাব। অন্ধকার শব্দের অপভ্রংশে “অ tধার’ শব্দ প্রচলিত আছে। অন্ধকারোহস্থিয়াং ধ্বন্তিং তমিস্রং তিমিরং তমঃ । ( অমর) । রাজবল্লভ, অন্ধকারের এই কয়েকটা গুণ লিখিয়াছেন – ইহা ভয়, দৃষ্টি এবং তেজের অবরোধক। ইহা তিক্ত । অন্ধকারে সকল ব্যাধি জন্মে । প্রায় সকল দেশেরই প্রাচীন ইতিহাসে লিখিত আছে যে, স্বষ্টির পূৰ্ব্বে জগৎ কেবল অন্ধকারে আবৃত ছিল। তাহার পয়, স্বৰ্য্য চন্দ্র তার প্রভৃতির সৃষ্টি হইলে জগতে আলোক হইল। অন্ধকারক (পুং ) ক্রোঞ্চদ্বীপের অন্তর্গত দেশবিশেষ। ইহ প্রাবরক ও মুনি নামক দেশের মধ্যে অবস্থিত। এখানে দেবতা, গন্ধৰ্ব্ব, সিদ্ধ ও চারণগণ বাস করেন । র্তাহায়া সকলেই গৌরবর্ণ। অন্ধকারময় (ত্রি) অন্ধকার-প্রাচুর্য্যে ময়ট অত্যন্ত অন্ধকারযুক্ত। - অন্ধকারি ( পুং ) অন্ধকস্ত দৈত্যবিশেষস্ত অরিঃ শক্রঃ। ৬-তৎ। মহাদেব, ইনি অন্ধক নামক দৈত্যকে নষ্ট করিয়াছিলেন।শ্লেষে চন্দ্র ও স্বৰ্য্যকেও বুঝায়।