পাতা:বিশ্বকোষ প্রথম খণ্ড.djvu/৬৪৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অব্যপেক্ষা বহুবচনাস্তানি নামানি। নিরুক্ত )। অব্যথা (স্ত্রী) ন ব্যথা নঞ তৎ। ব্যথার অভাব। (ত্রি) নঞ ৫-বহুব্রী। শুষ্ঠ। পদ্মচারিণীবৃক্ষ। হরীতকী। অবাথি (ত্রি) ন ব্যৰ্থতে ক্লিগুতি ব্যথ-(সৰ্ব্ব ধাতুভ্য ইন্‌। উ৭৪। ১১৭) ইতীন। ব্যথাশূন্ত। দুঃখপূন্ত। সমুদ্র মবাথির্জাম্বা। ঋক্ ১। ১১৭। ১৫। অব্যথিঃ ব্যথাং পীড়ামপ্রাপ্ত এব। (সায়ন )। অব্যথিন (ত্রি) ন ব্যৰ্থতে ব্যথবা ইনি। নঞ তৎ। নির্ভয়। ব্যথাশূন্ত। অব্যথিষ (পুং স্ত্রী) ন ব্যৰ্থতে ব্যথ-(নঞি ব্যথেঃ। উ৭, ১ । ৪৯) ইতি টমাচ, স্বৰ্য্য। সমুদ্র। (স্ত্রী) টাং উপ অব্যথিষী। পৃথিবী। রাত্রি। (অব্যথিঘোইন্ধি সমুদ্রয়োঃ। অব্যথিষী ধরারাত্র্যোঃ । সি. কে. )। অব্যথ্য (ত্রি) ন ব্যৰ্থতে ব্যথ-কৰ্ত্তার যৎ ততে নঞ তৎ। ব্যথাশূন্ত । যে দুঃখিত নছে । [ অকৃষ্টপচ্য শব্দে সূত্র দেখ }। - অব্যপদেশ (ত্রি) ন ব্যপদিশুতে বিশেযেণাদিশুতে বিঅপ-দিশ কৰ্ম্মণি ণ্যং ততো নঞ তৎ । যাহা সঙ্কল্পবাক্যে প্রয়োগ করিতে নাই । যাহা আদেশ করিতে নাই। যাহা বলিতে নাই। (ক্লী) স্তায়মতসিদ্ধ নিৰ্বিকল্পক জ্ঞান। যে জ্ঞানে কোন দ্বৈধ নাই । জাতি গুণ ক্রিয়াশূন্ত হেতুক নির্দেশ করা যায় না বলিয়া পরব্রহ্ম কেও অব্যপদেশু বলা যায় । অব্যপেক্ষ ( স্ত্রী ) বিশেষেণ অপেক্ষ ব্যপেক্ষ, তত; অভাবে নঞ তৎ । এক পদের সঙ্গে আর এক পদের বশে য রূপ সম্বন্ধের অভাব।

  • । সমর্থঃপদবিধিঃ । পা ২। ১। ১। এখানে সামর্থ্য শব্দের অর্থ একাথাভাব । সামর্থ্য দুই প্রকার,—

ব্য পেক্ষ এবং অব্যপেক্ষ । এক পদের সঙ্গে অন্ত পদের অর্থ বিষয়ে আকাজ থাকিলে তাহার নাম ‘বাপেক্ষা’। যেমন-‘রাজার গৃহ । এখানে যদি এমন কথা জিজ্ঞ{স। করা যায় যে,-“কাহার গৃহ’ ? তবে এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হইলে, ‘রাজার’—এই রূপ রাজপদের উল্লেখ হইয় থাকে। অর্থাৎ, এখানে ‘রাজার’ এই পদের সঙ্গে গৃহ পদের অর্থের আকাঙ্ক রহিয়াছে। কিন্তু যদি এমন কথা বলা যায় যে,—‘রাজার গৃহ ও পরিচ্ছদ’ । এখানে ‘রাজার’ সঙ্গে গৃহ ও পরিচ্ছদ’ এই দুই পদের অর্থাকাঙ্ক ও সম্বন্ধ আছে, কিন্তু গৃহ এবং পরিচ্ছদ’ এ দুই পদের পরস্পর কোন সম্বন্ধ নাই। [ ৬২১ ] অব্যয় এই রূপ এক পদের সঙ্গে অন্ত পদের সম্বন্ধ না থাকিলে তাহাকে অব্যপেক্ষা কহে। নঞ বহুত্র (ত্রি)। অপেক্ষাগৃষ্ঠ। অব্যভিচরিত (ত্রি) ন ব্যভিচরিতম্। নঞতং। ব্যভিচারশূন্ত হেতু। সাধ্যের অভাববিশিষ্ট পদার্থে যাই। থাকে তাহার নাম ব্যভিচরিত হেতু। সাধ্যের অভাব বিশিষ্ট পদার্থে যাহা না থাকে তাহারই নাম অব্যভিচরিত হেতু। যাহাতে ধূম থাকে তাহাতেই অগ্নি থাকে। অতএব যেহেতু পৰ্ব্বতে ধূমদেখা যায়, সেই হেতু পৰ্ব্বত যে অগ্নি বিশিষ্ট ইহাই অনুমান কয়িতে হইবে। এখানে পৰ্ব্বত পক্ষ, অগ্নি সাধ্য, এবং ধূম হেতু, সাধ্য বিশিষ্ট পৰ্ব্বত, ধূম তাহাতেই থাকে। সাধ্যের অনধিকরণ জল হ্রদাদি তাহাতে থাকে না। এই জন্তই পৰ্ব্বতে অগ্নি অনুমানের পক্ষে ধূমকে অব্যভিচরিত হেতু বলা যায়। প্রাচীন নৈয়ায়িকেরা ইহাকেই ব্যভিচরিত হেতু কছেন। ধূমবান বহেঃ, বহি হেতু ধূম বিশিষ্ট, অর্থাৎ যেখানে বহি থাকে সেই খানেই ধূম থাকে, তাহ। নহে। যেহেতু অগ্নিদগ্ধ লৌহপিণ্ডে অগ্নি থাকে, অথচ তাহাতে ধূম থাকে না । তজ্জন্ত উহাকে ব্যভিচরিত বলা যায়। ইংলওঁীয় পদার্থবিং পণ্ডিতেরা বলেন যে, যেখানে অগ্নি থাকিবে, সেখানে অল্প হউক বা অধিক হউক, সহজে দৃপ্ত হউক বা অদৃপ্ত হউক, ধূম অবগুই থাকিবে। ধুম ব্যতিরেকে অগ্নি থাকিতেই পারে না। অব্যভিচারিন (ত্রি) ন ব্যভিচরতি বি-অভি-চর-ণিনি । নঞ তৎ। কোনও প্রতিকূল হেতু দ্বারা নিবারণের শক্য নহে। যাহা কোন রূপেই অসং পথ অবলম্বন করে না। স্বমতে, যাধ্য সাধক ব্যাপ্তি বিশিষ্ট হেতু। { অব্যভিচরিত শব্দ দেখ ]। যে বিষয়ের কোন রূপেই {{१ ॐ* न । অব্যভিচার (পুং) ন ব্যভিচার । অভাবে নঞ তৎ। ব্যভিচারের অভাব। অন্যথার অভাব । নৈস্থত্যরূপ। [ অব্যভিচরিত শব্দে ইহার বিবরণ দেখ }। অব্যয় (ক্লী) বি-ইণ, এরজিতjচ, ব্যয়স্ততে। নঞ তৎ। সকল বিভক্তিতে এবং সকল বচনে একরূপ শব্দ বৃত্তি ধৰ্ম্ম বিশেষ। যে শব্দ তিন লিঙ্গে এবং সকল বিভক্তিতে ও সকল বচনে এক রূপ থাকে। স্বল্প প্রাতর ইত্যাদি । সদৃশক্তিযু লিঙ্গেষু সৰ্ব্বাস্থ চ বিভক্তিযু। বচনেষু চ সৰ্ব্বেষু যত্ন ব্যেতি তদব্যয়ম্। আথৰ্ব্বন শ্রুতি। । * । अङ्गानि नि°ाउनमबTग्नम् । श्री » । • । ७१ ।। [ ૧૭ ]