পাতা:বিশ্বকোষ ষষ্ঠ খণ্ড.djvu/৫৭২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


बाथ ऐछशरइब्र ध्द्र । তোমার দেশে পঠাইয়া দিব । তুমি জামার প্রাপসৰ্ব্বস্ব, '७' नांजौब्र निरवनन, णांभां८क cषम *ब्रिङTांनं कद्भि७ मा ।” বিভাপতিও ললিতার চিবুক ধরিয়া আদর করিয়া কছিলেন, “তুমি আমার কনিষ্ঠ পত্নী, তোমাকে কি আমি পরিত্যাগ করিতে পারি ?” "শবরপতি কস্তার অনুরোধে বিস্কাপতিকে পথ দেখাইয়৷ দিল । দ্বিজবর আকাশগগুকী নামক স্থানে শবরের নিকট হইতে কন্যমূল লইয়া বিদায় হইলেন। যথাকালে তিনি ইন্দ্রছায়ের প্রাসাদে আসিয়া পৌছিলেন । দেীবারিক গিয়া রাজাকে বলিল, “ব্রাহ্মণ বিদ্যাপতি আসিয়াছেন । র্তাহার দেহে শঙ্খচক্রের চিহ্ন দেখিয়াছি।” ইত্ৰছ্যম গোবিন্দ নাম করিয়া ভাবিলেন যে, বিদ্যাপতি নিশ্চয়ই জগৎপতির দর্শন পাইয়াছে । তিনি তৎক্ষণাৎ বিদ্যাপতিকে তাহার সমক্ষে আনিতে আদেশ করিলেন। বিষ্ঠাপতি রাজসমক্ষে উপস্থিত হইয়া নিবেদন করিলেন, “মহারাজ ! আমি ভগবানকে দেখিয়া আসিয়াছি, তিনি নীলমাধব মূৰ্ত্তিতে বটবৃক্ষমূলে অবস্থান করিতেছেন । আমি স্বচক্ষে দেখিয়াছি, তথায় রোহিণকুণ্ডের জলে পড়িয়া কাকও চতুভূজ হইয়াছে।” ‘তখন রীজ ইন্দ্র স্থায় বিস্কাপতির পাদ বন্দনা করিয়া কহিলেন, “আপনার প্রসাদে আমি উদ্ধার হইব ।” পরে মন্ত্ৰীগণকে আজ্ঞা করিলেন, “আমি নীলাচলে যাত্রা করিব, শীঘ্র প্রস্তুত হও ।” “যথোপযুক্ত দ্রব্যাদি ও সৈন্তসামন্ত লইয়া অবস্তিরাজ রাজধানী পরিত্যাগ করিলেন । বিদ্যাপতি র্তাহার পথপ্রদর্শক হইয়া চলিলেন। যথাকালে নীলাচলে সেই স্তগ্রোধ তরুমূলে সকলে আসিয়া উপস্থিত হইলেন । কিন্তু রাজা এখানে নীলমাধব বা রোহিণকুও কিছুই দেখিতে না পাইয়া বিদ্যাপতিকে জিজ্ঞাসা করিলেন, “নীলমাধব কোথায় ?” “নারায়ণের মায়ায় তখন সকলি অস্তৰ্হিত হইয়াছিল । কিন্তু বিদ্যাপতি তাহ না জানিয়া রাজাকে কহিলেন, “বোধ হয় বসু শবর কোথায়ু লইয়া গিয়াছে।” ইশ্রদ্যুম্ন শবরকে ধরিয়া আনিবার জন্ত তখনই লোক পাঠাইলেন। ‘রাজপুরুষগণ শবরালয়ে উপস্থিত হইল। বসু তাহাদিগকে দেখিয়া কাতরভাবে ভগবানকে ডাকিতে লাগিলেন, “জগস্বন্ধো ! আমার কি শেষে এই দশা করিলে। এতকাল তোমার সেবা করিলাম, এখন কি তাহার এই ফল হইল।” ‘ভক্তাধীন ভগবান তখন দৈববাণীরূপে ইন্দ্রস্থায়কে গুনাইলেন, “এখন আমার দর্শন পাইবে না। অামার মন্দির কক कङ्ग, লোকৰেলাৰলক্ষ- ব্ৰহ্মভেদ------ j अभंब्रांचे ফয়, তবে জামায় দেখা পাইবে ।" ‘ब्रांनि ब्रांथि बड़ेणमाणां नाथग्न नश्शूशैड श्रेण(*)। रेवन्वाष মাসে পুন্যানক্ষত্রে বৃহস্পতিৰায়ে শুক্ল পঞ্চমীভিখি মছেজ श८ध बभिाग्न-मिन्द्रीं५ च्यांग्रेख इहैण । यह अर्थ याब्र कब्रिञ्च हेछइाङ्ग बन्ािङ्ग गम्भू{ कनिगम ।। ५ऎ गशष्ा बांध्रा चागिङ्गा উপস্থিত হইলেন। ইজস্থায় নায়দের সহিত র্তাহার টেকিতে চড়িয়া ব্রহ্মলোকে গমন করিলেন । এখানে ব্ৰহ্মা রাজার মনোগত ভাব জানিয়া, তাহাকে কহিলেন, “তুমি ক্ষণকাল অপেক্ষা কর, আমি পূজাতপণাদি শেষ করিয়া তোমার সহিত জগতে গিয়া মন্দির প্রতিষ্ঠা করিব।” ‘সেই সময় মধ্যে শতাব্দী কাটিয়া গেল। সাগরের তরঙ্গে ইন্দ্রস্থ্যয়ের রচিত প্রাসাদও ক্রমে ক্রমে বালুকামধ্যে ঢাকা পড়িল । রাজা গালে হাত দিয়া ব্ৰহ্মার স্বারে অপেক্ষা করিতে লাগিলেন (২) । এদিকে সুদেব, বসুদেব, শ্ৰীপতি প্রভৃতি রাজগণ রাজত্ব করিয়া ইহলোক পরিত্যাগ করিল। মাধব নামে এক ব্যক্তি উড়িষ্যার রাজা হুইয়া ১৩৭ বর্ষ রাজ্যশাসন করিলেন । মাধৰ মকর দশমীর দিনে পাত্রমিত্র লইয়া সমুদ্রে স্নান করিতে যাইতেছিলেন, অগ্রে অগ্রে তাহার অনুচরগণ পথ পরিস্কার করিতেছিল । সেই সময় হঠাৎ তাহার। মন্দিরের চুড়া দেখিতে পাইল ও রাজাকে সংবাদ দিল। রাজা সেই স্থান খনন করাইতে আরম্ভ করিলেন । দীর্ঘকাল খননের পর সমস্ত মণিার দেখা গেল। মাধব ভাবিলেন যে, বোধ হয় আমারই কোন পূৰ্ব্বপুরুষ এই মন্দির নিৰ্ম্মাণ করিয়া গিয়াছেন, আমিও ইহাতে মূৰ্ত্তি স্থাপন করিব। ‘ব্রহ্মার তর্পণ শেষ হইল । তিনি ইশ্রচু্যম ও নারদের সহিত নীলাচলে অাগিলেন । র্তাহার এখানে দেখিলেন যে মন্দির পূর্ববংই রহিয়াছে, মন্দিরের দ্বারদেশে কতকগুলি দেীবারিক অপেক্ষা করিতেছে । তাহারা ব্ৰক্ষা প্রভৃতিকে মন্দিরে প্রবেশ করিতে নিষেধ করিল, কিন্তু ইজহ্ব্যয় তাহদের কথায় ক্ৰক্ষেপ না করিয়া মন্দিরে ঢুকিলেন। তখন দেীবারিক গিরা রাজা মাধবকে জানাইল যে, “একটী চতুর্মুখ ও ইঙ্গ্যুম্ন নামে একটা লোক আপনার আদেশ অগ্রাহ করিয়া মম্বিরে প্রবেশ করিয়াছে ।” “মাধব দৌবারিকের কথা শুনিয়া অত্যন্ত ক্রুদ্ধ হইয়া 縣 (२) ना७मिप्रामान जिथिब्राप्इन (व कूर्द्वनन (नई नकण भाषx *** पश्न कबिझा जानिजाहिन-“कूईबानक नि#प्त । जानडि १शर गषtब " (९) नूश्चयाप्वत्र बगब्राष थनप्न• •रेक” कष णिविड़ भार६१