পাতা:বিশ্বকোষ ষষ্ঠ খণ্ড.djvu/৬৯৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


खम्ननिरङ्

...

छब्रभूब्राहां*ब्रिड *जिक-गरफॉब्र नषरक cय जकण अङ প্রকাশ করিয়া গিয়াছেন, এখন সেই মতানুসারে রাজপুত সমাজে পঞ্জিকা প্রস্তুত হইয়া থাকে; কিন্তু এক সময়ে সমস্ত মোগল সাম্রাজ্যে তাছায়ই পঞ্জিক প্রচলিত ছিল । জয়সিংহ ষে কেবল প্রধান জ্যোতির্বিদ ছিলেন এমন নছে । তিনি একজন ঐতিহাসিক বলিয়াও বিখ্যাত ছিলেন । তাহারই ৰত্নে ও নামানুসারে “জয়সিংন্থকল্পক্ৰম” নামে সুবৃহৎ স্মৃতিসংগ্রহ সম্বলিত হয় । দোষের মধ্যে জয়সিংহ বৃদ্ধ বয়সে বড়ই অহিফেনসেবী হইয়া পড়িয়াছিলেন । এই অধিক্ষেনের দোষেই তিনি মায়বারপতি অভয়সিংহ ও ভক্তসিংহের সহিত যুদ্ধ করিয়া পরাজিত হন ও শেষে বিকানের-রাজকে মারবারের অধীনতাপাশ হইতে মুক্ত করেন । [ মারবার ও বিকানের দেখ। ] ১৭৩২ খৃষ্টাকে সম্রাটু মহম্মদশাহ ইহাকে মালবরাজ্যের শাসনভার প্রদান করেন । সে সময় মহারাষ্ট্রদিগের বল ক্রমেই বাড়িতে ছিল। তিনি বুঝিয়াছিলেন যে, ক্রমে ঐ মহারাষ্ট্র দস্থ্যগণ সমস্ত হিন্দুস্থান অধিকার করিতে পারে, এই সকল দেখিয়া শুনিয়া তিনি মহারাষ্ট্রবীর বাজীরায়ের সহিত মিত্রত স্থাপন করিয়া তাহাদিগকে মালবশাসনকর্তৃত্ব প্রদান করেন। তাহাতে অপর রাজপুতগণ জয়সিংহের উপর বিরক্ত হইলেও সম্রাট তাহার প্রতি সন্তুষ্ট হইয়াছিলেন। বুদীরাজ কবিবর বুধরাও জয়সিংহের ভগিনীপতি ছিলেন, কোন বিশেষ কারণে জয়সিংহকে উপহাস করেন, তাহাতে বীর জয়সিংহ অত্যন্ত ক্রুদ্ধ হইয়া (১৭৪• খৃষ্টাব্দে) ভগিনীপতির রাজ্য অধিকার করিয়া লইলেন । বৃদ্ধ বয়সে তিনি সমাজসংস্কারে বিশেষ মনোযোগ করিয়াছিলেন । রাজপুতসমাজে কস্তার বিবাহ ও শ্রাদ্ধ প্রভৃতিতে সকলকেই সাধ্যাতীত খরচ করিতে হয়। এই জন্ত রাজপুতানায় শিশুহত্য প্রচলিত ছিল। কিন্তু জয়সিংহ রাজ্যের সকল প্রধান প্রধান ব্যক্তিদিগকে ডাকাইয়া নিয়ম করিয়া দেন, বিবাহকালে কেহ যৌতুক দাবী করিতে পারিবে না, যথাব্যয়ে শ্ৰাদ্ধ সম্পন্ন হয় তাহা করিতে হইবে, অকারণ কেহ বেশী ব্যয় করিলে, সে দণ্ডনীয় হইবে । এই নিয়মে যে সমাজের মহা উপকার সাধিত হইয়াছিল, তাহা বলাই বাহুল্য । এতদ্ভিন্ন তিনি পথিকদিগের সুবিধার জন্ত ভারতের নানাস্থানে পান্থमिदांन, शंछे ७ यूरनग्न ब्रांरडा ७थछङ कग्निब्र निम्नांश्रिणन । “একশ নয়গুণ জয়সিংহ কা” নামক একখানি গ্রন্থে জয়সিংহের গুণ গরিমার পরিচয় বিবৃত হইয়াছে। বিশ্ববিখ্যাত রাজজ্যোতিৰ্ব্বিদ, ঐতিহাসিক ও সমাজ ( ఆసిషి ) জয়সিংহ • नश्कांब्रक भशब्राणाथिब्रांछ जबॉ३ जब्रनिश्र २१s७ ५डेश्च সেপ্টেম্বর মাসে ইহলেীক পরিত্যাগ করেন । র্তাহার মৃত্যুতে কেবল জয়পুর নয়, সমস্ত ভারত এক অমূল্য রত্ন शंङ्गाहेब्रां८झन । उँींशंग्र डिञछन ॐथांन महिवैौ७ ॐशव्र সহিত এক চিতায় শয়ন করেন। তাছার মৃত্যুর পর তৎপুত্র ঈশ্বরীসিংহ জয়পুরের সিংহাসন লাভ করেন। - छद्मलिश् ७झ, चप्रश्नङ्ग ५कश्चन कष्वांश् चि। । ऎशनि পিত জগৎসিংহ। পিতার মৃত্যুর পর জয়সিংহ জন্মগ্রহণ করেন । ১৮৯১ সম্বতে ( ১৮৩৪ খৃষ্টাব্দে ) ইহার কামদার জটায়ামের প্রদত্ত বিষপানে ইনি পরলোক গমন করেন । জয়পুর দেখ । ] জয়সিংহ, সম্রাট মহম্মদশাহের সময় ইনি আগ্রার মুবাদার ছিলেন । তিনি জাগ্রা নগরের চারিদিকে সহরপণা অর্থাৎ উচ্চ প্রাচীর নিৰ্ম্মাণ করাইয়াছিলেন । তাহাতে অনেকগুলি তোরণ ছিল, এখন কেবল ছুইটী অাছে। জয়সিংহ, সিন্ধরাজ নামে খ্যাত গুজরাটপট্রনের চেলুক্যবংশীয় একজন রাজা । ইনি রাজা কর্ণের ঔরসে ও জয়কেশীর কস্তা মৈণাল-দেবীর গর্ভে জন্মগ্রহণ করেন । দ্ব্যাপ্রয়কাব্য, প্রবন্ধচিন্তামণি, কুমারপালচরিত প্রভৃতি অনেক গ্রন্থে এই জয়সিংহ সিন্ধরাজের বিবরণ বর্ণিত আছে। ইনি অল্প বয়সেই শস্ত্র ও শাস্ত্রে বিলক্ষণ পারদর্শিতা লাভ করিয়াছিলেন । র্তাহার বীর্য্যবত্ত ও বুদ্ধিমত্ত দর্শনে অতীব স্ত্রীত হইয়া বৃদ্ধরাজ কর্ণ ইহাকে সিংহাসন প্রদান করিয়া ( ১৯৯৩ খৃষ্টাকে ) বৈরাগ্য অবলম্বন করেন। কর্ণের মৃত্যুর পর তাহার সহোদর দেবপ্রসাদ নিজ পুত্র ত্ৰিভূবনপালকে জয়সিংহের হস্তে অর্পণ করিয়া চিতারোহণ করেন । সুপ্রসিদ্ধ জৈনরাজ কুমারপাল ঐ ত্ৰিভূবনপালের পুত্র । জয়সিংহের আধিপত্যকালে বৰ্ব্বরক নামে একজন যবনরাজ সিদ্ধপুরে আসিয়া দেব ব্রাহ্মণের উপর অনেক অত্যাচার আরম্ভ করেন, অস্তধান দেশের রাজার কনিষ্ঠ ভ্রাতাও যুবনরাজের পৃষ্ঠপোষক হইয়াছিলেন । মহাবীর সিন্ধরাজ সেই অত্যাচারের কথা শুনিয়াই সসৈন্তে শ্রীস্থলতীর্থে উপস্থিত হুইয়া ৰবীরককে পরাস্ত ও বন্দী করিলেন । এক দিন এক যোগিনী আসিয়া সিদ্ধরাজকে বলেন— *छेव्छब्रिनैौ नश८ग्न विश्वTांठ भशंकॉर्जौग्न भभिद्र भां८छ्, ऊँांझांद्र অর্চনা করিলে মহা যশোলাভ হয় । আপনি উজ্জয়িনীপতির সহিত মিত্রত স্থাপন করিয়া তথায় গিয়া মহাকালীর পূজা कंक्रन ।” फाश सनिद्रा निरुग्नाज गरेनन्छ भिद्र भागबब्राजा আক্রমণ করেন । অবস্তিনাথ যশোবর্ণ জয়সিংহের হস্তে বন্দী