পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তদশ খণ্ড.djvu/৩০৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লেপছ{ পূর্বেই উল্লেখ করিয়াছি যে, অবিবাহিত কস্তাগণ পিতার মৃত্যুর পর জ্যেষ্ঠ ভ্রাতার দ্বারা প্রতিপালিত হইয়া থাকে। ঐ কন্যাদিগের বিবাহ মা হওয়া পৰ্য্যস্ত, ভ্রাতৃবর্গ অথবা বিবাহিত কষ্ঠার পিতৃসম্পত্তির উত্তরাধিকার পাইবে মা । পুত্রাদি না থাকিলে বিবাহিত কষ্ঠাই পিতৃসম্পত্তির অধিকারিণী হইবে, কিন্তু ঐ সম্পত্তিলাভের পর পিত্রালয়ে বাস করাই ইহাদের জাতীয় বিধি। সাধারণতঃ এই নিয়মে উত্তরাধিকারিত্ব নির্দিষ্ট হইলেও, অনেক সময়ে পঞ্চায়ষ্ঠের অভিপ্রায়ানুসারে কার্য্য পরিচালিত झहेब्र ६iाक । বর্তমান সময়ে অধিকাংশ লেপছাই বৌদ্ধধর্মের আশ্রয় গ্রহণ করিয়াছে, তথাপি ইহাদের মধ্যে সামানী পশ্বাচারের অভাব নাই। ইহারা পৰ্ব্বতাংশ বিশেষ ও তথাকার স্রোতস্বিনীদিগকে রোগাদি অমঙ্গলের উৎপাদক জানিয়া পূজা করে। তুষারাবৃত কাঞ্চনজঙ্ঘা পৰ্ব্বতকে ঝড়, তুষার, বৃষ্টি ও বরফ পাতের একমাত্র অধিষ্ঠাত্রী দেবতা এবং শাক্য বুদ্ধের শিক্ষাগুরু বলিয়াও উপাসনা করিয়া থাকে। ঐ পৰ্ব্বতগাত্রস্থ তুষাররাশি হুর্যোাত্তাপে বিগলিত হইয়া সময় সময় ইহাদের বাসভূমি ও শস্তক্ষেত্রাদি পরিপ্লাবিত করে। এতদ্ভিন্ন এসেগেঙপু, পালম্বেন, লামো, লাপেন রিপোছে, গেঙপু-মালেঙ এাগপু ও বহঙ্গমা প্রভৃতির উপাসনকালে ইহারা মাংস, মহুয়ামদ, ফল, তথুল, পুষ্প ও ধূপধুন প্রভৃতি গন্ধদ্রব্য দিয়া পূজা করিয়া থাকে। ইহার চিরেঞ্জী বা লছেন-ওঁম-ছুপ-ছিমুকে মহাদেব বলিয়া স্বীকার করে। র্তাহার-পত্নীর নাম উমাদেবী। অধিক সম্ভব সিকিমে বৌদ্ধধৰ্ম্মবিস্তারের পুর্কে ইহার এই শঙ্করমুষ্টি ও উমাদেবীর উপাসনা করিত । [ লামা দেখ। ] বৌদ্ধধৰ্ম্ম সম্বন্ধীয় ক্রিয়াকলাপে তিব্বতীয় লামাগণই ইহাদেয় যাজকতা করে। ইহাদের মধ্যে কেহই লামধৰ্ম্ম গ্রহণ করে নাই। অনেকে ভৌতিক বিস্ত্য অভ্যাস করিয়া “বিন্ধুরা" ( ওঝা ) হইয়াছে। ভূতপ্ৰেতাদি অপদেবতাগণের প্রকোপ উপশমনার্থ ইহায় নানা ভৌতিক ক্রিয়া কলাপের অবতারণা

  • 3. [ ૭૦૨ ]

করিয়া থাকে । ইহার প্রধানতঃ শবদেহ পুৰ্ব্বমুখী রাখিয়া কবর মধ্যে | গোয় দেয় । সমাহিত করিবার পূর্কে তিন দিন ঐ মৃতদেহ । গৃহে বসাইয়া রাখে এবং তাছার সম্মুখে নিয়ম মত ভোক্তানি । স্থাপন করে। গর্তমধ্যে মৃতদেহ স্থাপনের পূৰ্ব্বে উহার চতুৰ্দ্ধিৰ পাথর নিয়া ঘেরা হয়, পরে তন্মধ্যে শবরক্ষা করিয়া ! চাপ দেওয়া হইয় থাকে এবং তাছার উপর একটী গোলা- | কার পাথরের স্তম্ভ স্থাপন করিয়৷ তদুপরি নিশান দেওয়া হয়। রো-লেপছাগণ মৃত্যুর একমাস পরে ওহ ডাকাইয় গ্রেতের । লেপছা ബ শান্তি ও মঙ্গলকামনায় একদিন শ্ৰাদ্ধ করে। ঐ সময়ে একটা বন্ত গোর বা ছাগ মারা হয় এবং সকলে মউয় পান করিয়া নেশায় বিভোর হইয়া থাকে। ইহারা ঐরূপে বাৎসরিক শ্রাদ্ধও সম্পন্ন করে। নবশন্ত ছেদনের সময় প্রত্যেক গৃহকর্তাই পিতৃপুরুষগণের উদেশে নূতন তণ্ডুল, মউয়া ও নানা প্রকার খাদ্যদ্রব্য সজ্জিত করিয়া উৎসর্গ করিয়া থাকে। - উচ্চশ্রেণীর থাম্বা লেপছাগণের মধ্যে শবদেহ দাহ করিবার প্রথা আছে। দেহ ভক্ষ্মীভূত হইবার পর, শবের দগ্ধ অস্থি সকল চূৰ্ণ করিয়া নিকটবৰ্ত্তী কোন নদী বা জোয়ারের জলে ভাসাইয়া দেওয়া হয়। এই সম্প্রদায়ের মধ্যে অবস্থা বিশেষে ' শ্রাদ্ধ প্রক্রিয়ারও তারতম্য আছে। ব্ৰহ্মচারিণী রমণীদিগের শ্ৰান্ধ প্রথাও স্বতন্ত্র । সিকিম রাজ্যের ব্রহ্মচারিণী এক রমণীর শ্রান্ধে যেরূপ প্রক্রিয়া অবলম্বিত হইয়াছিল, তাহ নিয়ে বিবৃত হইল ;– শ্ৰাদ্ধকালে মৃতার একট প্রতিকৃতি নিৰ্ম্মাণ করিয়া তাহার সম্মুখে একখানি মেজের উপর নানা খাদ্য সামগ্ৰী, অপর এক খানিতে তাহার ব্যবহার্য্য দ্রব্যাদি এবং তৃতীয় টেবিলে ১০৮ট পিত্তলের প্রদীপ সারি দিয়া সাজাইয়া রাখা হইয়াছিল। উষ্ণৗষধার্থী ও রক্তাম্বরপরিহিত অনেকগুলি লামা ঐ সময়ে কএকদিন ধৰ্ম্মমন্দিরে সমস্বরে স্তোত্রাদি পাঠ করিয়াছিলেন । তার পর পেমিওঙ্গছি সত্তারামে আনিয়া ঐ প্রতিকৃতিকে বেদীতে বসান হয় এবং তিন দিন প্রেতের মঙ্গল কামনায় উপরোক্তরূপ স্তোত্রাদি পাঠ হইয়া থাকে। শেষ দিনে মৃতার আত্মীয় ও বন্ধু বান্ধবগণ বস্ত্র, অর্থ ও খাদ্যাদি উপহার যাহা পাঠাইল, তাহা । ঐ প্রতিকৃতির সম্মুখে সাজাইয়া দেওয়া হয়। ঐ সময়ে মঠের প্রধান লামা সেই মূৰ্ত্তির সন্মুখের আসনে উপবেশন করিয়া তল্লুক্ষেশে প্রদত্ত দ্রব্যাদি ও দাতার নাম জ্ঞাপন করিয়া থাকে। সদ্ধার সময় ব্রহ্মচারিণীর সমক্ষে চা ও মউয় পানপত্রিপূর্ণ করিয়া দেয় এবং লামার আসিয়া ঐ সময়েই মূর্তির সমক্ষে চা ও মউয় পান করে। তার পর সে ব্যক্তির বা রমণীর পরিচিত ও আত্মীয়ের সেই স্থানে উপস্থিত হইয়া প্রেতাত্মার উদ্দেষ্ঠে সেই মূৰ্ত্তিকে সাষ্ট্রাঙ্গে প্ৰণিপাত করিয়া থাকে এবং তাহার বস্ত্রাঞ্চল চুম্বন করিয়া তাহাকে চিরদিনের মত বিদায় দিয়া আইসে। ঐ সময়ে সমবেত লামাগণ প্রেতাত্মার বিদায়কামনায় সৰ্ব্বোচ্চস্বরে স্তুতি পাঠ করিতে আরম্ভ করে এবং প্রধান লামা স্বীয় আসম হইতে গাত্রোথান করিয়া একটী মেজের নিকট আসিয়া কএকটা গুপ্ত প্রক্রিয়া সাধন করেন । রাত্রি ৯টা বাজিলে স্তুতিপাঠ সমাপ্ত হয়। তখন প্রধান লামা আপনার আসন সমক্ষে দণ্ডায়মান হইয়া একটা সুদীর্ঘ বক্তৃতা করিয়া থাকেন। তাহার ২