পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৬১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ऊांछैिऊ হইতে সুদীর্ঘ অগ্নিক্ষ লিঙ্গ ইতস্তত: ৰিক্ষিপ্ত হইতেছিল ; किछु बांtन्नब्र छिङ८व्र लिमि रुिहूहे श्रश्छद करब्रन नाहे , গণিতশাস্ত্রানুসারে দেখাইতে পারা যায় যে, যে প্রদেশে তাড়িতের কোন ক্রিয়া নাই, সেখানে তাড়িতের অস্তিত্ব ও নাই। ধাতু দ্রব্যের ভিতর যেমন তাড়িতের ক্রিয় ঘটে না, সেইরূপ উহার ভিতরে তাড়িত ও সঞ্চিত থাকে না । নিরেট ব। ফাপা যেমন হউক না, কোন ধাতুময় পদার্থে তাড়িত সঞ্চয় করিলে সমগ্র তাড়িত উহার পৃষ্ঠে বা গায়ে আসিয়া উপস্থিত হয়। উছার অভ্যন্তরে একটুও থাকে না । কোন তাড়িতবিশিষ্ট দ্রব্য বাক্স বা পাচার মত ফাঁপা ধাতুময় দ্রব্যের ভিতর প্রবেশ করাইয়া স্পর্শ করিয়া দিবা মাত্র সমগ্র তাড়িত সেই বাক্সের বা খাচার বাহিরের পুষ্ঠে আসিয়া উপস্থিত ইয়। তখন সেই দ্রব্যটী বাহির করিয়৷ তড়িদ্বীক্ষণদ্বারা পরীক্ষা করিলে দেখা যাইবে, উহাতে কিছু মাত্র তাড়িত বৰ্ত্তমান নাই । একটা থাচার ভিতর বা লোহাব জালের ভিতর বাস করিলে বজ্রাঘাতের কোন অtশঙ্কা থাকে না । অপরিচালক পদার্থের অভ্যন্তরে সর্বত্র তাড়িতক্রিয়ার "ব্ধি হয় এবং উহার গাত্রে ও অভ্যন্তরে সর্বত্রই তাড়িত সঞ্চিত বাথ যাইতে পারে। পরিচালকের পৃষ্ঠদেশ ভিন্ন অন্ত ত্ৰ তাড়িত থাকে না । অtধার পিঠে ও সৰ্ব্বত্র সমান পরিমাণে থাকে না । একটা ঠিক বস্তু,লাকৃতি ভাটার গায়ে সব জায়গায় সমান ভাবে তাড়িত থাকে। কিন্তু ধাতুময় দ্রব্যের পিঠ উচু নীচু হইলে আর সব জায়গা সমান পরিমাণে থাকে না । পিঠের যে জায়গা যত উচু বা কুঞ্জ, সে জায়গায় তত অধিক জমে, যে জায়গা যত নীচু ও মু্যক্ত সে জায়গায় তত কম জমে । ফলে উহার প্রান্তভাগ বা যেখানে যেখানে কোণ খে{চ ব। শিরা বাহির হইয়া আছে, সমুদয় তাড়িত প্রায় সেই ভাগেই আসিয়া জমে, অন্যত্র বড় কিছু থাকে না । পরিচালকের ভিতরে যে তাড়িতের ক্রিয়া প্রকাশ পায় না, ঠিক সেই ধৰ্ম্মের ফলে এরূপ ঘটে ; তাহা গণিতশাস্ত্রের সাহায্যে প্রমাণ করা যায়। কোন নিদিষ্ট আকারের ধাতুময় দ্রব্যের পিঠের কোন অংশে কতখানি তাড়িত জামিলে ভিতরে সমগ্র তাড়িতে কোন ক্রিয়া প্রকাশ পাইবে না, তাছা গণিতসাহায্যে গণনা চলে । গণিতপ্রয়োগ বৰ্ত্তমান প্রবন্ধের বহিভূত । পরিচালক ও অপরিচালকের প্রভেদ –পরিচালকের ভিতরে তাড়িত বলপ্রয়োগ করে না ; অপরিচালকের 腺 [ ৬১১ ] छांड़िऊ ভিতর দিয়া তাড়িতের বল প্রযুক্ত হয় । দুইখও তাড়িতযুক্ত পদার্থ বাহমধ্যে থাকিলে উভয়ের মধ্যে হয় টান নয় ঠেল দেখা যায় । দুইএর মধ্যে একটাকে খাচী বা ধাক্সে পূরিলে আর টান বা ঠেল কিছুই সেই বাক্সের ধাতু ভেদ করিয়া যায় না। খাচা বা বাক্সট যেন মাটি চুইয়া থাকে । এরূপ ক্ষেত্রে ভিতরের তাড়িত ও বাহিরের তাড়িত পরস্পর সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র ও স্বাধীন ভাবে থাকে। পরিচালক পদার্থ তাড়িতবল সঞ্চালনে অক্ষম, অপরিচালক তাহাতে পটু ৷ উভয়ের এই প্রভেদ কতকটা এইরূপে বুঝা যাইতে পারে। ইস্পাত, কাচ, মাটি, পাথর, রবর প্রভূতি কঠিন দ্রব্য টানিতে, ভাঙ্গিতে ও বাকাইতে পারা যায় ; কিন্তু জল, তেল, গুড়, কাদা প্রভৃতি তরলদ্রব্য ঐ রূপে টানিতে, ভাঙ্গিতে বা বাকাইতে পারা যায় না। কাচকে দুই হাতে ধরিয়া টানা যায় ; কচি সেই টানে যথেষ্ট বাধা দেয় । খানিকটা কাদা লইয়া টানিতে গেলে কাদা এত কম বাধা দেয় যে টানই পড়ে না । জল আবার ততোধিক । তাড়িতের পক্ষে অপরিচালক পদার্থ যেন কঠিন দ্রব্যের মত, আর পরিচালক পদার্থ যেন জলের মত বা কাদার মত । অপরিচালকের ভিতরে তাড়িতের টান পড়ে ও ঠেল ও পড়ে ; পরিচালকের ভিতরে টানও পড়ে না, ঠেলও পড়ে না । কঠিন মাটির পিঠ উচু নীচু, বা বন্ধুর হইতে পারে, কিন্তু তরল হুশে পপঠ সমতল হয়, তবু নীচু হয় না। জলের ভিতর যৎসামান্য চাপের ইতর বিশেষ হইলেই জল আপন হইতে সরিয়া গিয়া চাপ সৰ্ব্বত্র সমান করিয়া লয় ; কিন্তু কঠিন পদার্থের ভিতর বিভিন্নস্থলে বিভিন্ন মাত্রায় চাপ দিলে" কঠিন পদার্থ বাকিয়। বা নোয়াইয়া যায় ; কিন্তু জলের মত বহিয়া ও গড়াইয়া যায় না । তেমনি অপরিচালকে পিঠে বা ভিতরে বিভিন্নস্থলে তাড়িতের বিভিন্ন মাত্রায় চাপ পড়িতে পারে, সেই চাপে তাড়িতকে এক জায়গা হইতে অন্যত্র ঠেলিয়া দিতে চায় । কিন্তু অপরিচালক ভেদ করিয়া তাড়িত সহজে যাইতে পারে না । পরিচালকের ভিতরে তাড়িতের চাপের একটু ইতব বিশেষ হইলেই তৎক্ষণাৎ থানিকট তাড়িত জলের মত অবাধে গড়াইয়া সরিয়া যায়, পরিচালক তাহাতে কিছুই বাধা দেয় না। কাজেই পরিচালকের ভিতরে তাড়িতের চাপের কোন ইতর বিশেষ থাকে না ; সৰ্ব্বত্র সমুনি চাপ হওয়ায় টানও পড়েন, ঠেলও পড়ে না । জলের চাপের সহিত তাড়িতের যে গুণের তুলনা কর। গেল,” তাহাকে আমরা উদ্ধৃতি (potential) এই শব্দে ব্যবহার করিব । কঠিন পদার্থের বিভিন্ন স্থলে চাপের ইতর