পাতা:বিশ্বকোষ সপ্তম খণ্ড.djvu/৬৭০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


उfमांक বিহারে তামাকুপ্রিয়তা এত বেশী হইয়া পড়িয়াছে যে সে দেশে একটী প্রবাদ চলিয়া গিয়াছে ‘খায় না খায় তামাকু পিয়ে । সে নর বেটাওয়া কৈসে জীয়ে ? ভারতবর্ষের তামাকু আমেরিক বা বিলাতী তামাকুর স্তায় ব্যবসায়ে ততটা আদরণীয় নহে, তবে ১৮২৯ খৃষ্টাব্দে গবর্মেটি হইতে চেষ্টা করা হয়। কাপ্তেন বাসিল হল এ বিষয় কলিকাতার এfগ্রহর্টিকলচরাল সোসাইটতে যেরূপে উপদেশ দিয়াছিলেন, তদনুসারে তাহারা মেরিল্যাণ্ড ও ভার্জিনিয়া তামাকুর বীজ হইতে চাষ করিয়া যে তামাক উৎপাদন করিয়াছিলেন তাহ বিলাতে বড়ই আদরের সহিত গৃহীত এবং বিলাতী বণিকেরা বলেন যে ভারতীয় তামাক এত ভাল আর তাহার দেখেন নাই । এই তামাক বিলাতে ৬ শিলিং ৮ পেন্স করিয়া প্রতি পাউণ্ড বিক্রয় হইয়া ছিল ; কিন্তু ইহার পর আহ্মদাবাদ হইতে একবার তামাকু প্রেরিত হয়, তাহা অাদৃত হয় নাই। তাহার পাতা অধিক শুষ্ক, ছোট ও বেশী মুড়মুড়ে হইয়াছিল। ভারতীয় তামাকে বালির ধূলা বেশী থাকে ও ইহার আমদানী মাশুল বেশী দিতে হয়, এজন্য বিদেশে ব্যবসায়পক্ষে ভারতের তামাকু বণিকগণের নিকট আদৃত হয় না। তামাকের চাষ । ১৮৮৮৮৯ খৃষ্টাব্দে স্থির হয় যে দেশীয় রাজ্যগুলি ভিন্ন বৃটৗশাধিকারে প্রায় লক্ষ বিঘা পরিমিত ভূমিতে তামাকুর চাষ হয়, আর ইহা হইতে প্রায় কোটী মণ তামাকু উৎপন্ন হয়। ভারতের মধ্যে মান্দ্রাজ, গোদাবরী, কৃষ্ণা ও কোয়স্বাতুর জেলায়, বাঙ্গালার মধ্যে ত্রিহুত ও রঙ্গপুর জেলায়, বোম্বাইয়ে খেড়া ও আহ্মদাবাদজেলায় তামাকুর চাষ বেশী হয় । বিখ্যাত “লঙ্কা তামাক” গোদা, বরী ও কৃষ্ণাজেলায় এবং ত্রিচীনপল্লীচুরুটের তামাক • কোয়ম্বাতুর ও মদুর জেলায় উৎপন্ন হয়। বাঙ্গাল -এ দেশে তামাক যথেষ্ট জন্মে। তামাকচাষে এ দেশের কত জমী লাগিয়া আছে তাহ নিরূপিত হয় নাই, কারণ এদেশে তামাক প্রচুর জন্মিলেও ইহা এদেশের কৃষি দ্রব্যের মধ্যে বিশেষ গণ্য নহে। রঙ্গপুর, ত্রিহুত, পূর্ণিয়া, দ্বারভাঙ্গ, ২৪ পরগণা, দুয়ার, চট্টগ্রাম পাহাড় ও কোচবিহার জেলায় অপেক্ষাকৃত তামাকুর চাষ বেশী এবং সকল शग्र्नतः উৎপন্ন দ্রব্যেই ব্যবসায় চলিয়া থাকে। অন্তান্ত স্বানের তামাক তদেশবাসীর ব্যবহারেই শেষ হয়। ষে,চাৰী তামকুর চাষ করিবে বলিয়া স্থির করে, সে প্রায় তাহার, বাড়ীর नियtü cशाब्रt८गग्न कांtश् ऊांभां८कब्र जमैौ क्रव्र । दांब्रांनाउ [ بہانون ] ९टयाँल अश्श्रण cश्षांध्न नैौtणग्न झारु रुक श्हेब्र गिग्नitश्, ८जहे शकण জমীতে তামাকুর চাষ ভাল হয় - শ্রাবণ, ভাদ্র ও আশ্বিনমাসে औभाङ् छांद्रा' ँडङ्गानि ...? কাৰ্ত্তিকমাসে চারা চারাইয়া বসায় এবং মাঘ হইতে চৈ পৰ্যন্ত •ो७] खोक्रिप्टङ १एक । ब्रत्रभूर्ब ७ कोशास्त्रद्र उागोरु जभख পূৰ্ব্বভারতে ও ব্রহ্মদেশে রপ্তানী হয়। রঙ্গপুরের'জমী ও আবহাওয়া তামাকের পক্ষে অতি উপযুক্ত। রাজপুরুষের মনুমান করেন, আরও কিছুদিন পরে, এখানকার তামাকু আরও ভাল হইয়া বহুদেশে বিস্তৃত হইবে । তামাকু রক্ষা করিবার ব্যবস্থার উন্নতি হইলে এ বিষয়ে আশামত ফললাভ করা যাইতে পারে। ১৮৬৭ খৃষ্টাব্দে রঙ্গপুরের একজন লোক তাহার স্বযত্ন প্রস্তুত তামাক পারী প্রদর্শনীতে পাঠাইয়া পদক পুরস্কার পাইয়াছিল। রঙ্গপুরের তামাক দেশীয়দের নিকট অতি প্রিয়। ইহার চাষ এতদ্দেশে আজকাল অন্তান্ত জেলায় ধান্ত বা পাটের সমকক্ষ হইয়া উঠিতেছে। প্রতি বৎসর ৪০/৫০ জন মগ এদেশে আসিয়া এই সমস্ত তামাকু কিনিয়া লইয়া কলিকাতা, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম ও ব্রহ্মদেশে চালান দেয়। ইহার অধিকাংশই ব্রহ্মে ও কলিকাতায় “বৰ্ম্মাচুরুট” প্রস্তুত করিতে ব্যবহৃত হয়। এদেশে প্রতি বিঘার গড়ে ৩৪ মণ তামাকু উৎপন্ন হয় ও গড়ে ৬৭ টাকায় মণ বিক্রীত হয়। মগের ব্রহ্মে চুরুটের জন্ত তামাক বাছিয়া লয়। খুব চওড়া, পুরু ও মিঠেকড়া তামাক ৭ টাকায় মণ দিয়াও তাহারা লইয়া যায় । এ দেশের সৰ্ব্বোৎকৃষ্ট তামাকুর পাত হাতীর কাণের স্তায় দেখিতে হয় এবং "হাতীকাণ” নামেই বিখ্যাত । মগের এই তামাকই বেশী পছন্দ করে । কোচবিহারের তামাকও অতি উত্তম হয় । ২৪ পরগণা ও নদীয়ায় তামাক যাহা জন্মে, তাহা তদেশবাসীর ব্যবহারেই লাগে। বারাসত, বনগী ও রাণাঘাটে যে তামাক প্রস্তুত হয়, তাহার কতকটা রপ্তানি হয়। গোবরডাঙ্গার নিকটবৰ্ত্তী গাইঘাট থানার ৩/৪ মাইল वि बभूनां नौनि अन्तिमजैौंब हिङ्गौ नाभक्तः अग्शि cय তামাক উৎপন্ন হয়, তাহাই বাঙ্গালাদেশে “হিঙ্গলী” নামে সৰ্ব্বাপেক্ষ বিখ্যাত ও উৎকৃষ্ট । রাণাঘাট ও বারাসতের ठांभांक७ श्क्रिडौ मां८भ छजिम्नां शांम्र । श्रांनल श्त्रिजी গ্রামোৎপন্ন তামাক পরিমাণে খুব অল্প। শুনা গিয়াছে, श्ञिजैौ &ांटम २७ दिघ भांख छगैौरङ खेश्ॉब्र क्रांक झग्न । হিঙ্গলী তামাক ৫ হইতে ৮ টাকা পৰ্য্যন্ত মণ ৰিক্রীত হয় । दिशtद्र *शांननैौब्र उँख्द्रकूण उांभांtरुग्न फ्रांरु अॉtझ् । ७थांtन ठिनयंकांग्न ठांमांक ठे९*ङ्ग श्ब्र, tझनै बां दफ़ कि, दिगांउँौ वा कणकउिन्नt ७०cजठूशः। cजठूछा उांमांक cगोष