পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/১০০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৯৪
৯৪
বেতালপঞ্চবিংশতি

অবিলম্বে তোমার পুত্ত্র জন্মিবেক এবং ঐ পুত্ত্র সুশীল শান্তস্বভাব ও সর্ব্ব বিষয়ে পারদর্শী হইবেক।

কিয়ৎ দিন অতীত হইলে রাজার এক পুত্ত্র জন্মিল। রাজা মহাসমারোহে সপরিবারে দেবীর মন্দিরে উপস্থিত হইয়া স্বহস্তে দেবীর পূজাকার্য্য নির্বাহ করিলেন এবং সমাগত দীন দরিদ্র অনাথ প্রভৃতিকে প্রার্থনাধিকধনদান দ্বারা পরিতুষ্ট করিয়া বিদায় করিলেন।

এক দিবস দীনদাস নামে তন্তুবায় কোন কার্য্য উপলক্ষে নিজ বন্ধুর সহিত রাজধানীতে গমন করিতেছিল। দৈবযোগে তাহার সজাতীয়া সেই নগরবাসিনী এক পরম সুন্দরী কন্যা নয়নগোচর হওয়াতে তদীয় অসামান্য রূপ লাবণ্য দর্শনে মোহিত হইল। অনন্তর সে দৃষ্টিপথের বহির্ভূত হইলে তন্তুবায় মনে মনে চিন্তা করিল আমাদের মহারাজ পুত্ত্রবিষয়ে নিতান্ত নিরাশ হইয়াও ভগবতী কাত্যায়নীর প্রসাদে বৃদ্ধ বয়সে পুত্ত্রমুখ নিরীক্ষণ করিয়াছেন। দেবীর কৃপাদৃষ্টি হইলে আমারও এই স্ত্রীরত্ন লাভ সম্পন্ন হইতে পারে।

এই চিন্তা করিয়া দেবীর মন্দিরে প্রবেশপূর্ব্বক দৃঢ়তর ভক্তিযোগ সহকারে সাষ্টাঙ্গ প্রণিপাত করিয়া কৃতাঞ্জলিপুটে মানসিক করিল ভগবতি যদি এই কামিনীর সহিত আমার বিবাহ হয় আমি স্বহস্তে আপন মস্তক ছেদন করিয়া তোমার