পাতা:বেতালপঞ্চবিংশতি.pdf/৬২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৫৬
৫৬
বেতালপঞ্চবিংশতি

ভয়ঙ্কর শ্মশানে উপস্থিত হইল। দেখিল এক সর্ব্বালঙ্কারভূষিতা পরম সুন্দরী স্ত্রী শিরে করাঘাত ও হাহাকার করিয়া উচ্চৈঃ স্বরে রোদন করিতেছে। বীরবর দেখিয়া অতিশয় বিস্ময়াবিষ্ট হইল এবং সাহসপূর্ব্বক সম্মুখবর্ত্তী হইয়া জিজ্ঞাসিল তুমি কে কি দুঃখে এই ঘোর রজনীতে একাকিনী শ্মশানবাসিনী হইয়া বিলাপ ও পরিতাপ করিতেছ। সে কিছুই উত্তর দিল না বরং পূর্ব্ব অপেক্ষায় অধিক রোদন করিতে লাগিল। অনন্তর বীরবর বিশেষ ব্যগ্রতা প্রদর্শনপূর্ব্বক বারংবার জিজ্ঞাসিতে লাগিল। সে কহিল আমি রাজলক্ষ্মী রাজা রূপসেনের গৃহে নানা অন্যায় ও অলক্ষ্মীর হইতেছে; তৎপ্রযুক্ত তদীয় আবাসে অচিরাৎ অলক্ষ্মীর প্রবেশ হইবেক। সুতরাং আমি রাজার রাজ্য পরিত্যাগ করিয়া যাইব। আমি প্রস্থান করিলে পর অল্প দিনের মধ্যেই রাজার প্রাণবিয়োগ হইবেক সেই দুঃখে দুঃখিতা হইয়া রোদন করিতেছি।

প্রভুর এইরূপ অসম্ভাবিত ভাবী অমঙ্গল শ্রবণে বিষাদসমুদ্রে মগ্ন হইয়া বীরবর কহিল দেবি আপনি যে আজ্ঞা করিলেন তাহাতে কোন ক্রমেই সন্দেহ করিতে পারি না। কিন্তু যদি কোন উপায় থাকে বলুন আমি রাজার মঙ্গলের নিমিত্ত প্রাণান্ত পর্য্যন্ত স্বীকার করিতে প্রস্তুত আছি। রাজ-