পাতা:মহাত্মা কালীপ্রসন্ন সিংহ.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ه برا: নাট্যাভিনয় হইতে আরম্ভ হয়—অভিনয়ের জন্য নাট্যসাহিত্য স্বল্প হয়। পাইকপাড়ায়, পাথুরিয়াঘাটায়,যোড়ার্সকোয় অভিনয় হইত। অভিনয়ের জন্য মধুসূদনের মত লেখকও পুস্তকরচনা করিতেন। এই সময় কালীপ্রসঙ্কের নাটকগুলি রচিত হয়। বাঙ্গালাসাহিত্যে কালীপ্রসল্লের আর এক কীৰ্ত্তি স্থতোম’ । ‘হুতোমের’, দোষও অনেক, গুণও অসাধারণ । বঙ্গদর্শনে বঙ্কিমচন্দ্র লিখিয়াছিলেন, “লিখনের উদ্দেশ্য শিক্ষাদান, চিত্তসঞ্চালন। এই মহৎ উদেখা হতোমি ভাষায় কখন সিদ্ধ হইতে পারে না। হুতোমি ভাষা দরিদ্র ; ইহার তত শব্দধন নাই ; ছতোমি ভাষা নিস্তেজ, ইহার তেমন বাধন নাই ; ভূতোমি ভাধা অসুন্দর এবং যেখানে অশ্লীল নয়, সেখানে পবিত্রতাশূন্ত । হুতোমি ভাষায় কখন গ্রন্থ প্রণীত হওয়া কৰ্ত্তব্য নহে।” কিন্তু যে কালীপ্রসঙ্গের মহাভারত ভযার বিশুদ্ধি ও তেজের আদর্শ বলিলেও অত্যুক্তি হয় না, সেই কালীপ্রসন্ন ছতোমি ভাষার প্রয়োগ করিয়াছিলেন কেন ? আমরা বলি—বিষয়বিবেচনায়। হংসকারগুবাদিসমাকীর্ণ, প্রস্ফুটিতপঙ্কজ প্রফুল্ল, স্বচ্ছদলিল সরোবরের হামশম্পাস্তৃত কূলে অবস্থিত ভারতী-মন্দিরের উপসিকার পুংস্কোকিলকলবিড়ম্বিনী বাণী কপটতার কমঠকঠোর আবরণ ভেদ করিবার উপযুক্ত কশাঘাতকটুক্তিতে পরিণতি লাভ করিতে পারে না। ছতোম’ সাময়িক সাহিত্য। তবে ড্রাইডেনের সাময়িক বিষয় লইয়া রচিত কবিতার মত ‘হুতোমেও’ স্থায়িত্বের উপকরণের অভাব নাই । ‘হুতোমের বিদ্রুপ শানিত, আঘাত দ্রুত ও মৰ্ম্মভেদী। কিন্তু 'হুতোম’ ছতোম—প্রভাতবৈতালিক দধিয়াল বা বসন্তবিলাসী কোকিল নহে। বঙ্কিমচন্ত্ৰ ছতোমকে বিদ্বেষপরিপূর্ণ বলিয়াছিলেন। আমাদের মনে হয়, ইহাতে ‘হুতোমের প্রতি অবিচার করা হইয়াছে। পরের