পাতা:মহাত্মা কালীপ্রসন্ন সিংহ.djvu/৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থকারের নিবেদন । سمسم کے .بحجم منتخب مسے বর্তমান প্রস্তাবটী কোনও মাসিক পত্রের জন্স রচিত হইয়াছিল, এক্ষণে আমার কোনও শ্রদ্ধেয় বন্ধুর অনুরোধে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত্ত হইল। অবসরাভাবে এই প্রস্তাবটার ইচ্ছানুরূপ পরিবর্তন ও পরিবর্জন করিতে পারি নাই। ‘বেওরারিশ ময়দার সহিত তুলনীয় ৰাঙ্গাল সাহিত্যে সকলের সহিত আমার সমান অধিকার থাকিলেও, মাদৃশ অল্পবুদ্ধি ব্যক্তির পুণ্যশ্লোক মহাত্মা কালীপ্রসন্ন সিংহের চরিতকারের আসন গ্রহণ করিবার ধৃষ্টতপ্রকাশের কোনও অধিকার অাছে কি না তৎসম্বন্ধে প্রশ্ন উঠতে পারে। চরিত-লেখকের কার্য্য বাস্তবিকই অতিশয় দায়িত্বপূর্ণ। প্রকৃত চরিত-লেখককে ঐতিহাসিকের দ্যায় নিরপেক্ষভাবে সত্য-নিৰ্দ্ধারণ করিতে হয়, দার্শনিকের কায় স্থস্থায়ুষ্মন্ত্ররূপে বিচার করিতে হয়, কবির ন্যায় লোকশিক্ষার দিকে দৃষ্টি রাধিয়া ঔপন্যাসিকের কায় মনোজভাবে ঘটনাবলী বিবৃত করিতে হয়। কিন্তু এরূপ বহুগুণসম্পন্ন সাহিত্য-শিল্পী অতি দুলভ । তবে, কৰ্ম্মক্ষেত্রের সকল বিভাগেই দেখিতে পাওয়া যায় যে, স্বেরূপ প্রতিভাবান শিল্পীর প্রয়োজন আছে, সেইরূপ নিরক্ষর ভারবাহী স্কুটে মজুরেরও প্রয়োজন আছে। আমার বোধ হয় সাহিত্যও এই নিয়মের অধীন। এই যে দেখিতেছি শত শত প্রতিভাবান সাহিত্য-শিল্পী মহোৎসাহে সুরম্য মাতৃমন্দির নির্মাণে অগ্রসর হইতেছেন, জাতীয় বিজ্ঞানের সুদৃঢ়