পাতা:মানিক গ্রন্থাবলী (প্রথম খণ্ড).pdf/২০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


R 0 O কেশবের গলা অনেকটা শান্ত মনে হয় । 'बनून ' “শৈলিকে তুমি বিয়ে করে নিয়ে যাও।” ‘বিয়ে ? আপনি পাগল নাকি ?” শৈলর ছাতে জামা কাপড় দিয়ে কেশব গিয়ে কালাচাদের BD DBDS BB uBB DBB D DD LL DDS SDBS দশজনের সামনে পুরুতে যে বিয়ে দেয়, সাক্ষীসাব্বুদ থাকে, বরের দায়িত্ব আইনে সিদ্ধ হয়, সে বিয়ে নয়। এ কেবল কেশবের মনের শান্তির জন্য । “আমি শুধু নারায়ণ সাক্ষী করে শৈলকে তোমার হাতে সঁপে দেব। তারপর ওকে নিয়ে তুমি যা খুন্সী কোরো, সে তোমার ধৰ্ম্মে। আমার ধৰ্ম্মে রাখে। এটুকু করতে ሻivS !' দুজন জোয়ান লোকের মাথায় শৈলর মূল্য এসে পড়েছিল। গা উজাড় হয়ে যাক, তবু বেশী লোক সঙ্গে না। করে মাঝরাত্রে গায়ের একটা মেয়েকে নিতে আসবার মতো বোকা কালাচাঁদ নয়। একা পেয়ে তাকে কেটে পুতে ফেলতে কতক্ষণ । কেশবের ন্যাকামিতে বিরক্ত হয়ে সে বলল, “যা করবার ਕ5 ' কালাচাঁদের কাছ হতেই দেশলাই চেয়ে নিয়ে কেশব ঘরের এক কোণে শিলারূপী নারায়ণের আসনের কাছে প্ৰদীপটি জালাল। ঘরের বাইরে জ্যোৎস্নায় গিয়ে শৈল নতুন ও রঙীন সায়া ব্লাউজ শাড়ী পরে এল। প্ৰদীপে সামান্য তেল ছিল। কেশবের নারায়ণ সাক্ষী করে কন্যাদানের প্রক্রিয়ার সমস্তক্ষণ শৈলর বারবার মনে হতে লাগল, প্ৰদীপের তেল টুকু মালিশ করলে বাপের পেট-ব্যথা হয়তো তাড়াতাড়ি কমে যেত, অতিক্ষণ বাপ তার কষ্ট পেত अ coCBद्र बTथम । নিবু নিবু প্ৰদীপের আলোয় কালাচাঁদ আর শৈলর হাত একত্র করে কেশব বিড় বিড় করে মন্ত্র পড়ে । কালাচাঁদ দারুণ অস্বস্তি বোধ করতে করতে তাগিদ দেয়, ‘শ্ৰীগগির YYDS BB BD DD DBDD D DBB DS দেবতার সঙ্গে এ সব ইয়ার্কি ফাজলামি তার ভাল লাগে না। একটু ভয় করে। মনটা অভিভূত হয়ে পড়তে চায়। গৃহস্থের শান্ত পবিত্র অন্তঃপুরে জলচৌকিতে শুকনো ফুলপাতায় অধিষ্ঠিত দেবতা, সদব্ৰাহ্মণের মন্ত্ৰোচ্চারণ, নির্জন মাঠঘাট প্ৰান্তরের মফস্বলে পুঞ্জীভূত মধ্যরাত্রির নিজস্ব ভীতিকর রহস্য তাকে কাবু করে দিতে চায়। মনে মনে নিজেকে গাল দিতে দিতে সে ভাবে যে বুড়োর এ श्रांशंगांभिष्ठ् ब्रांची ना श्sब्राझेि उांद्र ऐष्ठि क्षिण । প্ৰদীপটা নিবে যাওয়ামাত্র কালচাদ হাত টেনে নিল । তার হাতে শৈলর হাত ঘামে ভিজে গিয়েছিল। কালাচাঁদের গাঁও থেমে গিয়েছিল। রুমালে মুখ মুছে - asprato শক্ত করে শৈলর হাত ধরে টানতে টানতে সে বার হয়ে গেল । নিজেও বিদায় নিল না, শৈলকেও বিদায় নিতে দিল না। দোকানীর কাছে ক্রেতা বা পণ্য কোন পক্ষই বিদায় নেয় না বলে অবশ্য নয় ; কালাচাঁদের ভাল লাগছিল না । শৈলও থ' বনে গিয়েছিল। শিউলি জবা গাছের মাঝ দিয়ে বাড়ীর সামনে কঁচা রাস্তায় পা দিতে দিতে এ-ভাবটা শৈলর কেটে গেল । সেইখানে প্ৰথম হাত টেনে প্ৰথমবার সে বলল, “আমি शांब नां ।' আরও কয়েকবার হােতটানা ও যাব না বলার পর জোরে কেঁদে উঠবার উপক্রম করায় তারই শাড়ীর আঁচলটা তার মুখে গুজে দিয়ে কালাচাঁদ তাকে পাজাকোলা করে তুলে নিল। তখন কয়েক মুহুর্ভের জন্য হাল্কা রোগী শরীরে জেলার এল অদ্ভুত রকমের। পর পর কয়েকবার রোমাঞ্চ আসার সঙ্গে হাত পা ছুড়ে সে ধনুকের মতো বঁকা হয়ে যেতে KYS ESL LD BY K K DDLDD D LLY গো-গো আওয়াজ করতে লাগল। তারপর হঠাৎ শিথিল নিম্পন্দ হয়ে গেল । সব শুনে কালাচাদের মন্দোদরী গোসা করে বলল, “কী দরকার ছিল বাবা অত হাঙ্গামার ? আর কি মেয়ে নেই त्रिशिंष्ठ ? কেমন একটা বোক চেপে গেল।” SLu DEB DBB S DBB SS S SDDD DD LDDDDD কালে হাড়গিলেকে দেখে ঝোক চেপে গেল ' “দুত্তোরি, সে ঝোক নাকি ?” কিন্তু মন্দোদরীর সন্দেহ গেল না । পুরুষের পছন্দকে সে অনেক কাল নমস্কার করেছে, আগামাথাহীন উদ্ভট সে জিনিষ । শৈলীর জন্য কালাচাদের মাথাব্যথা, আদর-যত্ন ও বিশেষ ব্যবস্থার বাড়াবাড়িতে সন্দেহটা দিন দিন ঘন হয়ে আসতে লাগল। সাদা থান ও সেমিজ পরা তদ্রঘরের দেবীর মতো যে মন্দোদরী, তার চোখে দেখা দিল কুটিল কালো চাউনি। শৈলকে দেখতে ডাক্তার আসে। তার জন্ত হাল্কা দামী ও পুষ্টিকর। পথ্য আসে। অন্য মেয়েগুলিকে তার কাছে ঘেষতে দেওয়া হয় না ! কালাচাদ তার সঙ্গে অনেক সময় কাটায়। একদিন ব্যাপারটা অনেকখানি স্পষ্ট হয়ে গেল । শৈলর চেহারাটা তখন অনেকটা ফিরেছে। ‘ওকে বাড়ী নিয়ে যাব ভাবছিলাম।” 'cन ' “মনটা খুতখুতে করছে। ধরতে গেলে ও আমার বিয়ে করা বেী। ঠাকুরের সামনে ওর বাবা মন্ত্র পড়ে ওকে আমার সঙ্গে বিয়ে দিয়েছে। আমি বলি কি, ৰাড়ী নিয়ে যাই, এক BE DLDD BBDDB BEtYD BD E দু'জনে প্ৰচণ্ড কলহ হয়ে গেল। বাস্তব, অশ্লীল, কুৎসিত