পাতা:মুক্তি-পথে - গোপীপদ চট্টোপাধ্যায়.pdf/২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
২০
মুক্তি-পথে
বিপিন—(বুক-পকেটে হাত দিয়া ) য়্যাঁ, আমার রুমাল! এতে টাকা ছিল যে! তবে কি ঐ—
[ বিস্ময়ের ভাব ]

প্রকাশ—আ-হা-হাঃ বল কি! ওর যে কথার মধ্যে কোনো রকম জড়তা বা অস্পষ্টতা-দোষ নাই। ষোলো আনাই পরিষ্কার, বিশুদ্ধ ভাষা। গেলেই বা তোমার কয়েকটা টাকা, একটা খাঁটি লোকের দেখাতো পেলে ভায়া! এটাই তো পরম লাভ।

দ্বিতীয় অঙ্ক

প্রথম দৃশ্য

বঙ্গীয় কৃষ্টি-সাধন সমিতির কার্য্যালয়

[ কবিতা, ভাষা ও দর্শন-বিভাগের সভ্যগণ নিজ নিজ প্রকোষ্ঠে আসীন। পদ্যবিভাগের সভ্যগণ একটি পদ্য লইয়া আলোচনা করিতেছেন। ]

১ম সভ্য—তবে শোন। মাইকেলের অনুকরণ করে কি সুন্দর একটা কবিতা লিখেছি!

অম্বলে সম্বরা যবে দিলা শম্ভূমালী ওড্র-কুলোদ্ভব মহামতি, বঙ্গধামে নিম্বশিম্বি গ্রামে, মধ্যাহ-সময়ে আহা ! তিন্তিড়ী পলাও লঙ্কা সঙ্গে সযতনে উচ্ছে আর ইক্ষু গুড় করি বিড়ম্বিত অপূর্ব ব্যঞ্জন, মরি, রান্ধিয়া স্বমতি প্র-পঞ্চ ফোড়ন দিল মহা আড়ম্বরে ;