পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৩৫৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

থা জাহান আলী । Հbr(t ১২ মাসে ও ৩৬• দিনে বৎসর ধরা হইত বলিয়, এই দুইটি সংখ্যা হিন্দু মুসলমানের নিকট কিছু অধিকতর পরিচিত বলিয়া মনে হয়। চিরপরিচিত সংখ্যা দ্বারা সংজ্ঞাজ্ঞাপন করিলে তাহা সকলেই মনে রাখিতে পারে না। জানি না, এইরূপ সংখ্যা নির্দেশের মূলে এরূপ কোন তথ্য নিহিত আছে কি না। তবে এই মাত্র জানি যে যশোহর খুলনায়ও একটি প্রবাদ আছে যে, সাহ জালালের সমসময়ে, বার জন ফকির ধৰ্ম্মপ্রচারার্থ যশোহর অঞ্চলে আসিয়া ভৈরবতীরে যে স্থানে প্রথম আস্তানা করিয়াছিলেন, তাহারই নাম হইয়াছিল বারবাজার। এই বার জনের নায়ক ছিলেন খাঁ জাহান আলী। তিনি যখন বাগেরহাটে স্থায়ী হাবলী বা বাসস্থান নির্দেশ করেন, তখন র্তাহার শিষ্যসংখ্যা বৃদ্ধি পাইয়৷ ৩৬০ জন হইয়াছিল। এই শিষ্যগণের জন্য তিনি বাগেরহাট অঞ্চলে ৩৬০টি মসজিদ নিৰ্ম্মাণ ও ৩৬০ টি দীঘি খনন করেন। উহার অনেকগুলি এখনও আছে। আমরা সে শিষ্যসম্প্রদায়ের কথা শেষে তুলিব, প্রথম দেখা যাউক এই খ জাহান আলী কে ? দীর্ঘকাল সুশাসনের পর এবং বহু পুণ্যকৰ্ম্মে দেশ অলঙ্কত করিয়া যে দিন তোগলক-কুলতিলক দিল্লীশ্বর ফিরোজসাহ নবতি বর্ষ বয়সে দেহত্যাগ করিলেন (১৪৮৮), সেইদিন হইতে দিল্লীতে এক ভীষণ বিভ্রাট উপস্থিত হইল। সিংহাসন লইয়া মহা গণ্ডগোল চলিতে লাগিল। ৫ বৎসরে পাঁচ জন রাজা পার হইলেন। অবশেষে সমাট হইলেন ফিরোজের এক নাবালক পৌত্র মামুদ তোগলক। একে অরাজকতা, তাহাতে এক নিজ্জীব বালক শাসকের পদে সমাসীন ; সুতরাং অচিরে দেশময় এক বিপ্লব উপস্থিত হইল ; যাহা কিছু বাকী ছিল তাহাও ৪ বৎসর পরে নরদস্থ তৈমুরলঙ্গের নৃশংস আক্রমণে (১৩৯৮) তাহাও শেষ হইয়া গেল, দিল্লী শ্মশানে পরিণত হইল। পলায়িত মামুদ ফিরিয়া আসিয়া ২০ বৎসর কাল নামে মাত্র সম্রাট ছিলেন বটে, কিন্তু দেশ সম্পূর্ণরূপে তাহার শাসনবহিভূত ছিল। এই মামুদের এক উজীর ছিলেন, খাজা জাহান। তিনি সুযোগ পাইয়৷ বালক মামুদের রাজ্যের প্রারম্ভেই (১৩৯৪ ) জৌনপুরে এক নূতন রাজ্য স্থাপন করেন। তিনি এমন প্রবলপ্রতাপে শাসন করিতে থাকেন যে সম্রাট তাহাকে "মালিক উপ-শর্ক” (পূৰ্ব্বদেশীয় রাজ্যসমূহের অধিপতি) উপাধি প্রদান করিতে