পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৪২৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

খাঁ জাহানের শেষ জীবন । "GGඳ “জগতে ক্ৰন্দন ল’য়ে খুলি এজীবন, কত বা যাতনা কষ্ট করে আক্রমণ ! পরীক্ষার নাহি পার জীবন ভরিয়া ( কিন্তু ) সব শেষ করে শেষে মরণ আসিয়া । মৃত্যুই নিশ্চিত, ভাই, মৃত্যুই নিশ্চয়,-- জীবন-উদ্যানে তীক্ষ কণ্টকের দ্যায়, মরণ নিশ্চয়, ভাই, মরণ নিশ্চয়। জীবনের হেন অরি নাহি কেহ আর, অন্ত শক্ৰ হ’তে এর প্রভেদ বিস্তর, দুষ্ট সয়তান আছে আরাতি তোমার ট’লাতে বিশ্বাস তব চেষ্টা সদা তার ; সকল সমাজে দেখি এই রীতি আছে-- দুৰ্ব্বল লভয়ে ক্ষমা সবলের কাছে ; यमौ नश्-िनग्नां नश्-िशृङ् निदiङ्ग, মরণ নিশ্চিত, ভাই, আছয়ে সবার ।” জীবন্মুক্ত পুরুষের মত দীর্ঘ জীবন যাপন করিয়া ভক্ত সাধু যে উদাসপ্রাণে দেহত্যাগ করিয়াছিলেন, তাহার সমাধি-বেদীর নানা লিপিতে সেই উদাস ভাবের অভিব্যক্তি রহিয়াছে। তাহার কীৰ্ত্তির সহিত তাহার এই মৃত্যুনীতির মিলন করিয়া বহুদশক তাহার সমাধি গাত্র হইতে উপদেশ সংগ্ৰহ করিতে পারেন । গা জাহানের সমাধিমন্দির হইতে পশ্চিমের দরজা দিয়া বাহির হইলেই পীর আলি মহম্মদ তাহেরের সমাধি। ইনি খ জাহানের উজীর বা প্রধান মন্ত্রী ছিলেন। পীরালি ব্রাহ্মণের ইতিবৃত্তে ইহার বিবরণ দেওয়া হইয়াছে। মহম্মদ তাহের এখানে মারা যান নাই ; এখানে মাত্র তাহার একটি শূন্তগর্ভ সমাধিবেদী গাথা রহিয়াছে। খ জাহানের সমাধির মত উহার উপরে কয়েকটি লিপি আছে ; আর আছে —“এই স্থান স্বগীয় কাননের অংশবিশেষ এবং ইহা এক বিশেষ বন্ধুর সমাধি, তাহার নাম মহম্মদ তাহের, তারিখ ৮৬৩ জেলহজ্জ ।” বন্ধুর স্মৃতিচিহ্ন রাখা কৰ্ত্তব্য, এই বুদ্ধিতে খাজাহান মৃত্যুর অব্যবহিত পূৰ্ব্বে সেই একই জেলহজ্জ মাসে মহম্মদ তাহেরের জন্ত এই স্মৃতিস্তম্ভ গঠিত করিয়া রাখিয়া যান। 8ථ