পাতা:রজনী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রজনীর কথা । సి সেফালিকা, কামিনী, গোলাপ, সেঁউতি । সব ফুলের ঘ্রাণ পাইলাম । বোধ হইল, আমার আশে পাশে ফুল, অামার মাথায় ফুল, আমার পায়ে ফুল, আমার পরণে ফুল, আমার ৰুকের ভিতর ফুলের রাশি । আ মরি মরি। কোন বিধাতা এ কুসুমময় স্পর্শ গড়িয়ছিল ! বলিয়াছি ত কাণার সুখ দুঃখ তোমরা বুঝিবে না। অ৷ মরি মরি—সে নবনীত সুকুমার-- পুষ্পগন্ধময় বীণাধবনি বৎ স্পর্শ ! বীণাধবনিবৎ স্পর্শ, যার চোখ আছে, সে বুঝবে কি প্রকারে ? আমার মুখ দুঃখ আমাতেই থাকুক। যখন সেই স্পর্শ মনে পড়িত,তখন কত বীণাধবনি কর্ণে শুনিতাম তাহ তুমি, বিলোল কটাক্ষকুশলিনি ! কি বুঝিবে । ছোট বাবু বলিলেন, “ না, এ কাণ সারিবার নর ? আমার ত সেই জন্য যুম ইষ্টতেছিল না । ল বঙ্গ বলিল, “ ত না সারুক টাকা খরচ করিলে কাণার fক বিয়ে হয় না ?” ছোট বাবু। কেন, এ র কি বিবাহ হয় নাই ? লবঙ্গ । না। টকা খরচ করিলে হয় ? ছোট বাবু। আপনি কি ইহার বিবাহ জন্য টাকা দিবেন? লবঙ্গ রাগিল । বলিল “ এমন ছেলেও দেখি নাই ! আমার কি টাকা রাখিবর জায়গা নাই ? বিয়ে কি হয়, তাই জিজ্ঞাসা করিতেছি । মেয়ে মানুষ, সকল কথা ভ জানি না । বিবাহ কি হয় ?” ছোট বাবু, ছোট মাকে চিনিতেন। হাসিয়া বলিলেন “ত মা, তুমি টাকা রেথ আমি সম্বন্ধ করিব।” মনে মনে, ললিত-লবঙ্গ-লতার মুগুপাত করিতে করিড়ে আমি সে স্থান হইতে পলাইলাম ।