পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/২৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


දෘථO রবীন্দ্র-রচনাবলী অষ্টাদশ সর্গ ললিতা আদর করিয়া কেন না পাই আদর ? লজ্জা নাই কিছু নাই, না ডাকিতে কাছে যাই— সঙ্কোচে চরণ যেন করে থর থর— ধীরে ধীরে এক পাশে বসি পদতলে । বড় মনে সাধ যায় মুখখানি তুলে চায়, বারেক হাসিয়া কাছে বসিবারে বলে ! বড় সাধ কাছে গিয়ে মুখখানি তুলে নিয়ে চাপিয়া ধরি গো এই বুকের মাঝার, মুখপানে চেয়ে চেয়ে কাদি একবার ! সে কেন বারেক চেয়ে কথাও না কয়, পাষাণে গঠিত যেন, স্থির হয়ে রয় ! ষেন রে ললিতা তার কেহ নয়— কেহ নয়— দাসীর দাসীও নয়, পথের পথিকো নয় ! যেন একেবারে কেহু— কেহ নাই কাছে, ভাবনা লইয়া তার একেলা সে আছে ! কি যেন দেখিছে ছবি আকাশের পটে, মুহূর্বের তরে যেন মনে মনে ভাবে হেন— “ললিত এসেছে বুঝি, বসেছে নিকটে, সে এমন মাঝে মাঝে এসে থাকে বটে । ” মাঝে মাঝে আসে বটে, পারে না যে নাথ— সথা গো, নিতান্ত তাই কথাটি শুধাতে নাই ? বারেক করিতে নাই স্বেহনেত্রপাত ? নিতাস্তই পদতলে পড়ে থাকে বটে ! সখা, তাই কি গো তারে তুলিয় উঠাবে না রে, বারেক রাখিবে নাকি বুকের নিকটে ! লতা আজ লুটাইয়া আছে পদমূলে,