পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৫১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষরক্ষা S89 তৃতীয় मूर्छा নিবারণের বাড়ি নিবারণ ও শিবচরণ নিবারণ। তবে তাই ঠিক রইল ? এখন আমার ইন্দুমতীকে তোমার গদাইয়ের পছন্দ হলে হয় । শিবচরণ। সে বেটার আবার পছন্দ কী ! বিয়েটা তো আগে হয়ে যাক, তার পর পছন্দ সময়মতো পরে করলেই হবে। নিবারণ। না ভাই, কালের যেরকম গতি সেই অনুসারেই চলতে হয়। শিবচরণ। তা হোক-না কালের গতি, অসম্ভব কখনো সম্ভব হতে পারে না । একটু ভেবেই দেখো-না, যে ছোড়া পূর্বে একবারও বিবাহ করে নি সে স্ত্রী চিনবে কী করে ? পাট না চিনলে পাটের দালালি করা যায় না, আর স্ত্রীলোক কি পাটের চেয়ে সিধে জিনিস ? আজ পয়ত্রিশ বৎসর হল আমি গদাইয়ের মাকে বিবাহ করেছি, তার থেকে পাচটা বৎসর বাদ দাও, তিনি গত হয়েছেন সে আজ বছর পাচেকের কথা হবে, যা হোক তিরিশটা বৎসর তাকে নিয়ে চালিয়ে এসেছি, আমি আমার ছেলের বউ পছন্দ করতে পারব না আর সে ছোড়া ভূমিষ্ঠ হয়েই আমার চেয়ে পেকে উঠল ? তবে যদি তোমার মেয়ের কোনো ধতুৰ্ভঙ্গ পণ থাকে, আমার গদাইকে যাচিয়ে নিতে চান, সে আলাদা কথা । ్కు নিবারণ। নাঃ, আমার মেয়ে কোনো আপত্তিই করবে না, তাকে যা বলব সে তাই শুনবে। আর-একটি কথা তোমাকে বলা উচিত। আমার মেয়েটির কিছু বয়স হয়েছে । শিবচরণ। আমিও তাই চাই। ঘরে যদি গিন্নি থাকতেন তা হলে বউমা ছোটো হলে ক্ষতি ছিল না। এখন এই বুড়োটাকে যত্ন করে আর ছেলেটাকে কড়া শাসনে রাখতে পারে, এমন একটি মেয়ে না হলে সংসারটি গেল। নিবারণ। তা হলে তোমার একটি অভিভাবকের নিতান্ত দরকার দেখছি। শিবচরণ। ই ভাই, মা ইন্দুকে বোলো আমার গঙ্গাইয়ের ঘরে এলে এই বুড়ে নাবালকটিকে প্রতিপালনের ভার তাকেই নিতে হবে। তখন দেখব তিনি কেমন মা । নিবারণ। ত৷ ইন্দুর সে অভ্যাস আছে। বহুকাল একটি আন্ত বুড়ে। বাপ তারই