পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্দশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৫৩০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


भांछुिमि८कडम &3& পরিমাণেই আমাদের বিনাশ । এইজন্য সকল দেশেই সর্বত্রই মাহুৰ জেনে এবং না জেনে এই সাধনাই করছে, সে বিশ্বাস্থস্কৃতির মধ্যেই আত্মার সভ্য উপলব্ধি খুজিছে, সকলের মধ্যে দিয়ে সেই এককেই সে চাচ্ছে, কেননা সেই একই অমৃত, সেই একের থেকে বিচ্ছিন্নতাই মৃত্যু । কিন্তু আমার মনে কোনো নৈরাপ্ত নেই। আমি জানি অভাব যেখানে অত্যন্ত স্বম্পষ্ট হয়ে মূতি ধারণ করে সেখানেই তার প্রতিকারের শক্তি সম্পূর্ণ বেগে প্রবল হয়ে ওঠে । আজ যে-সকল দেশ স্বজাতি স্বরাজ্য সাম্রাজ্য প্রভৃতি নিয়ে অত্যন্ত ব্যাপৃত হয়ে আছে তারাও বিশ্বের ভিতর দিয়ে সেই পরম একের সন্ধানে সজ্ঞানে প্রবৃত্ত নেই, তারাও সেই একের বোধকে এক জায়গায় এসে,আঘাত করছে কিন্তু তবু তারা বৃহতের অভিমুখে আছে—একটা বিশেষ সীমার মধ্যে ঐক্যবোধকে তারা প্রশস্ত করে নিয়েছে। সেইজন্যে জ্ঞানে ভাবে কর্মে এখনও তারা ব্যাপ্ত হচ্ছে, তাদের শক্তি এখনও কোথাও তেমন করে অভিহত হয় নি। তারা চলেছে তারা বদ্ধ হয় নি। কিন্তু সেই জস্তেই তাদের পক্ষে স্বম্পষ্ট করে বোঝা শক্ত পরম পাওয়াটি কী ? তারা মনে করছে তারা ঘা নিয়ে আছে তাই বুঝি চরম, এর পরে বুঝি আর কিছু নেই, যদি থাকে মানুষের তাতে প্রয়োজন নেই। তারা মনে করে মা মুষের বা কিছু প্রয়োজন তা বুঝি ভোট দেবার অধিকারের উপর নির্ভর করছে, আজকালকার দিনে উন্নতি বলতে লোকে স্বা বোঝে তাই বুঝি মানুষের চরম অবলম্বন। কিন্তু বিধাতা এই ভারতবর্ষেই সমস্তাকে সব চেয়ে ঘনীভূত করে তুলেছেন, সেই জন্তে আমাদেরই এই সমস্তার আসল উত্তরটি দিতে হবে, এবং এর উত্তর আমাদেৱ দেশের বাণীতে যেমন অত্যন্ত স্পষ্ট করে ব্যক্ত হয়েছে এমন আর কোথাও হয় নি । বন্ত সর্বাণি ভূতানি আত্মন্তেবানুপগুতি, সর্বভুতেষু চাক্মানং ন তত্তে বিজুগুপসতে । विनि ममण छूट्ररू गब्रबांच्चाब भाषाई प्क्रथन 4बर नब्रशांच्चाररू गर्दङ्करङब बरश tनcथन उिनि जाब কাউকেই ঘৃণা করেন না। সর্বব্যাপী স ভগবান তস্মাং সর্বগতঃ শিবঃ । সেই ভগবান সর্বব্যাপী এইজন্তে তিনিই হচ্চেন সর্বগত মঙ্গল । বিভাগের দ্বারা, বিরোধের দ্বারা যতই তাকে খণ্ডিত করে জানব ততই সেই সৰ্বগত মঙ্গলকে বাধা দেৰ । । একদিন ভারতবর্ষের বাণীতে মাছুষের সঙ্কলের চেয়ে বড়ো সমস্তার ৰে উত্তর দেওয়া হয়েছে, আজ ইতিহাসের মধ্যে আমাদেৱ সেই উত্তরটি দিতে হবে। আজ