পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উদয়ন, শান্তিনিকেতন ২৮ মার্চ, ১৯৪০ নৰজাতক ❖ፄ কালি-লেপ কিছু-নয় মনে হয় যারে নিদ্রার পারে রয়েছে সে । পরিচয়হারা দেশে । ক্ষণ-আলো ইঙ্গিতে উঠে ঝলি, পার হয়ে যায় চলি অজানার পরে অজানায়, অদৃপ্ত ঠিকানায়। অতিদূর-তীর্থের যাত্রী, ভাষাহীন রাত্রি, দূরের কোথা যে শেষ ভাবিয়া না পাই উদ্দেশ । চালায় যে নাম নাহি কয় ; কেউ বলে, যন্ত্র সে, আর কিছু নয় । মনোহীন বলে তারে, তবু অন্ধের হাতে প্রাণমন সঁপি দিয়া বিছানা সে পাতে। বলে, সে অনিশ্চিত, তবু জানে অতি নিশ্চিত তার গতি । নামহীন যে অচেনা বার বার পার হয়ে যায় অগোচরে যারা সবে রয়েছে সেখায়, তারি যেন বহে নিশ্বাস, সন্দেহ-আড়ালেতে মুখ-ঢাকা জাগে বিশ্বাস । I গাড়ি চলে, নিমেষ বিরাম নাই আকাশের তলে । ঘুমের ভিতরে থাকে অচেতনে কোন দূর প্রভাতের প্রত্যাশা নিত্রিত মনে।