পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (চতুর্বিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8ማbሥ রবীন্দ্র-রচনাবলী আলোক-ছায়া চমকিছে ক্ষণেক আগে, ক্ষণেক পিছে, পূর্ণিমারে ফুটিয়ে তোলে আমার অন্ধকার । ছুটির খেলা খেলাও কর্ণধার, ডাইনে বঁায়ে দ্বন্দ্ব লাগে সত্যের মিথ্যার । লীলার কর্ণধার জীবন নিয়ে মৃত্যুর্ভাটায় চলেছ কোন পার । নীল আকাশের মৌনখানি আনে দূরের দৈববাণী, গান করে দিন উদ্দেশহীন অকুল শূন্ততার। তুমি ওগো লীলার কর্ণধার রক্তে বাজাও রহস্যময় মন্ত্রের ঝংকার । অলস ক্ষেতের পোড়ে ভূমে আগাম ফসল মগন ঘুমে। অগোচরে মাটির নীচে সোনার স্বপন অঙ্কুরিছে, আলোর পানে কান্না ওঠে খবর না পাই তার । তুমি করে লীলার কর্ণধার শু্যামল ঢেউয়ের তাল-সাধনা দিগন্ত-দোলার । তাকিয়ে থাকে নিমেষহারা দিনশেষের প্রথম তারা ।