পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাদশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বলাক তাদের আঘাত যবে প্রেমের সর্বাঙ্গে বাজে, সহিতে সে পারি না যে ; অশ্রু-আঁখি তোমারে র্কাদিয়া ডাকি,— খড়গ ধরে, প্রেমিক অামার, করো গো বিচার । তার পরে দেখি এ কী, কোথা তব বিচার-অাগার। জননীর স্নেহ-অশ্র ঝরে তাদের উগ্রতা-’পরে ; প্রণয়ীর অসীম বিশ্বাস তাদের বিদ্রোহশেল ক্ষতবক্ষে করি লয় গ্রাস। প্রেমিক আমার, তোমার সে বিচার-অাগার বিনিদ্র স্নেহের স্তব্ধ নি:শব্দ বেদনামাঝে, সতীর পবিত্র লাজে, সখীর হৃদয়রক্তপাতে, পথ-চাওয়া প্রণয়ের বিচ্ছেদের রাতে, অশ্রুপুত করুণার পরিপূর্ণ ক্ষমার প্রভাতে। হে রুদ্র আমার, লুব্ধ তারা, মুগ্ধ তারা, হয়ে পার তব সিংহদ্বার, সংগোপনে বিনা নিমন্ত্রণে সিদ্ধ কেটে চুরি করে তোমার ভাণ্ডার। চোরা ধন দুৰ্বহ সে ভার পলে পলে তাহাদের মর্ম দলে, সাধ্য নাহি রহে নামাবার । ২৯