পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (দ্বাবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শাপমোচন brసి গ্রহ তারা রবি, তুমি কি তাদের মতো সত্য নও— হায় ছবি, তুমি শুধু ছবি ! নয়নসম্মুখে তুমি নাই, নয়নের মাঝখানে নিয়েছ যে ঠাই । আজি তাই খামলে খ্যামল তুমি নীলিমায় নীল। আমার নিখিল তোমাতে পেয়েছে তার অস্তরের মিল । নাহি জানি, কেহ নাহি জানে তব স্বর বাজে মোর গানে, কবির অস্তরে তুমি কবি— নও ছবি, নও ছবি, নও শুধু ছবি । রাজা লিখলেন চিঠি চিত্ররূপিণীর উদ্দেশে । লিখলেন— কখন দিলে পরায়ে স্বপনে ব্যথার মালা, বরণমালা। প্রভাতে দেখি জেগে অরুণ মেঘে বিদায়বশরি বাজে অশ্রুগালা । গোপনে এসে গেলে, দেখি নাই আঁখি মেলে। আঁধারে দুঃখডোরে বঁাধিলে মোরে, ভূষণ পরালে বিরহবেদন-ঢালা । চিঠি পৌছল রাজকন্যার হাতে । অজানার আহবানে তার মন হল উতলা । সখীদের নিয়ে বারবার করে পড়লে সেই চিঠি । দে পড়ে দে আমায় তোরা কী কথা আজ লিখেছে সে, তার দূরের বাণীর পরশমানিক লাগুক আমার প্রাণে এসে। শস্তখেতের গন্ধখানি একলা ঘরে দিক সে আনি, ক্লাস্তগমন পান্থ হাওয়া লাগুক আমার মুক্তকেশে।